প্রচেষ্টা প্রকল্প কি? কি লাভ? প্রচেষ্টা প্রকল্পে কিভাবে আবেদন করবেন? জেনে নিন

প্রচেষ্টা প্রকল্প সারা পৃথিবীতে যখন করোনা ভাইরাসের আঘাত। একের পর এক দেশে যখন করোনা ভাইরাস আঘাত হানছে। দেশের জনগণের সুরক্ষার জন্য সারা দেশে লকডাউন ঘোষণা করেছে।

তখন ভারতের দিন এনে দিন খাওয়া দরিদ্র শ্রেনীর লোকজনের আয় রোজগার বন্ধ হয়ে যায়। এই লকডাউনে আর্থিক দূর্দশায় পড়ে নিম্নআয়ের মানুষগুলি।

প্রচেষ্টা প্রকল্প কি? কি লাভ? প্রচেষ্টা প্রকল্পে কিভাবে আবেদন করবেন?
প্রচেষ্টা প্রকল্প কি? কি লাভ? প্রচেষ্টা প্রকল্পে কিভাবে আবেদন করবেন?

এই নিম্নআয়ের মানুষগুলোর পাশে দাড়ানোর জন্য পশ্চিমবঙ্গের মূখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যনার্জী West Bengal Prochesta Scheme চালু করেন।

আজ আমরা এই West Bengal Prochesta Scheme নিয়ে আপনাদের সাথে আলোচনা করবো। আমরা বিস্তারিত দেখার চেষ্টা করবো কি আছে এই West Bengal Prochesta Scheme-এ।

West Bengal Prochesta Scheme-এর কিছু গুরুত্বপূর্ন তথ্যঃ

আসুন দেখে নি West Bengal Prochesta Scheme-এর কিছু গুরুত্বপূর্ন তথ্য।

বিষয় বিবরণ
প্রকল্পের নাম West Bengal Prochesta Scheme
উদ্ভোধন করেন মূখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যনার্জী
রাজ্য পশ্চিমবঙ্গ
প্রযোজ্য দিনমজুর
আবেদনের ধরন অফলাইন
চালু হয় ২৪শে মার্চ ২০২০
শুরুর তারিখ ১৫ই এপ্রিল ২০২০

West Bengal Prochesta Scheme-এর লক্ষ্যঃ

করোনা ভাইরাসজনিত লকডাউনের কারনে ভারতের সকল রাজ্যের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও জীবনের স্বাভাবিক কার্যক্রম বন্ধ হয়ে যায়। এর ফলে দিনমজুর শ্রেণী কাজ হারিয়ে দিশেহারা হয়ে পড়ে।

এই সময়ে সমাজের দিনমজুরদের মাঝে পশ্চিমবঙ্গ সরকারের উদ্যোগে West Bengal Prochesta Scheme চালু হয়। এর ফলে পশ্চিমবঙ্গের দিনমজুররা কাজ না থাকা অবস্থায় আর্থিক সাহায্য পেয়ে তাদের জীবন ধারনের মৌলিক বিষয়গুলি চালিয়ে যেতে পারে।

এই West Bengal Prochesta Scheme-এর সুবিধা কিঃ

আসুন দেখে নি West Bengal Prochesta Scheme পশ্চিমবঙ্গের দিনমজুরদের কি সুবিধা দিয়েছে।

১) দিন মজুরদের জন্য আর্থিক সহায়তা প্রদান।

২) সকল সুবিধাভোগীর জন্য মাসিক ১০০০ টাকা করে।

৩) এই সুবিধা দিন মজুরদের জীবনের মৌলিক চাহিদা পূরন করতে সাহায্য করবে।

এই West Bengal Prochesta Scheme এর জন্য যোগ্যতাঃ

আসুন দেখে নি West Bengal Prochesta Scheme-এর জন্য কি যোগ্যতা থাকতে হবে।

১) পশ্চিমবঙ্গের বাসিন্দা যেকোন দিনমজুর যারা লকডাউনের জন্য তাদের কাজ করতে পারে নাই এবং আর কোন আর্থিক সোর্স না থাকায় নিদারুন আর্থিক কষ্টে পড়ছে তাদের সবাই এই West Bengal Prochesta Scheme-এ আবেদন করতে পারবে।

২) ঐ দিনমজুর তার পরিবারের অন্যতম উপার্জনক্ষম ব্যক্তি।

৩) ঐ দিনমজুর সরকারের আর কোন সামাজিক সহায়তা প্রজেক্টের সুবিধাভোগী নয়।

৪) এক পরিবারের একজন মাত্র সদস্য এই West Bengal Prochesta Scheme-এর জন্য প্রযোজ্য হবে।

৫) আবেদনকারীর আর কোন বিকল্প আয়ের উৎস নেই ।

এই West Bengal Prochesta Scheme-এ আবেদনের প্রক্রিয়াঃ

আসুন জেনে নি West Bengal Prochesta Scheme-এ কিভাবে আবেদন করতে হয়।

১) আবেদনকারী শুধুমাত্র অফলাইনে এই আবেদন করা যাবে।

২) একজন আবেদনকার শুধুমাত্র ১ টি আবেদন করতে পারবে।

৩) আবেদনকারী জেলা মেজিস্ট্রেট অফিস হতে আবেদনপত্র সংগ্রহ করতে পারবে।

৪) নির্দেশনা অনুযায়ী আবেদনপত্র পূরন করুন।

৫) সঠিকভাবে পূরনকৃত আবেদনপত্র জেলা মেজিস্ট্রেট বরাবর জমা দিন।

Prochesta Scheme Application Form PDF Download →

West Bengal Prochesta Scheme-এর জন্য বাছাইয়ের প্রক্রিয়াঃ

আসুন জেনে নি West Bengal Prochesta Scheme-এর বাছাই প্রক্রিয়া কিভাবে সম্পন্ন হয়।

১) আবেদনপত্র জমা দেয়ার পর জেলা মেজিস্ট্রেট প্রাথমিক বাছাই করে থাকে।

২) যোগ্য প্রার্থীদের নাম West Bengal Prochesta Scheme পোর্টালে আপলোড করা হয়।

৩) এই লিস্ট লেবার ডিপার্টমেন্টে পাঠানো হয়।

৪) চুড়ান্ত ভাবে নির্বাচিত প্রার্থীরা একাউন্টে টাকা পেয়ে থাকেন।

আজকের এই আলোচনায় আমরা West Bengal Prochesta Scheme নিয়ে অনেক বিষয় জানতে পারলাম । পরবর্তীতে আমরা এই West Bengal Prochesta Scheme নিয়ে আরো খুঁটিনাটি আলোচনা করবো।

আরো বিভিন্ন প্রকল্প নিয়ে বিস্তারিত জানতে আমাদের সাইটে চোখ রাখুন। আমাদের লেখা নিয়ে আপনাদের কোন পরামর্শ থাকলে আমাদের কমেন্টের মাধ্যমে বা আমাদের ফেসবুক পেজে জানান। আমরা আপনার মতামতের সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে থাকি।

Leave a Comment