WB Free Tablet Scheme 2022: পশ্চিমবঙ্গ বিনামূল্যে ট্যাবলেট প্রকল্প 2022

West Bengal Free Tablet Scheme 2022 (পশ্চিমবঙ্গ বিনামূল্যে ট্যাবলেট প্রকল্প 2022), বিনামূল্যে ট্যাবলেট প্রকল্প কি? এই যোজনার লাভ কি? বিনামূল্যে ট্যাবলেট প্রকল্পতে কিভাবে আবেদন করবেন? এবং এই যোজনার আরও তথ্য এখানে দেখুন।

বেশ কয়েকদিন আগে থেকেই ইন্টারনেটের মাধ্যমে আমরা অনেক কিছু কাজ সহজ ভাবেই করতে পারছি। এছাড়া স্মার্টফোন এর ব্যবহার ছাত্র-ছাত্রীদের মধ্যে ব্যাপক পরিমাণে দেখা গিয়েছে করোনা মহামারীর পরিস্থিতিতে। কেননা এই স্মার্টফোনের মাধ্যমেই পড়াশোনা করা, পরীক্ষা দেওয়া, টিউশন সবকিছু সম্ভব হয়েছে।

বলতে গেলে অনলাইনে ক্লাস (Online Class) এখন বর্তমানে সবার অজানা নয়। তা ছাড়াও বিভিন্ন রকমের সমস্যা দূর করার জন্য পশ্চিমবঙ্গ সরকার মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীদের স্মার্ট ফোন দেওয়ার প্রকল্পটির বাস্তবায়িত করেছে।

পশ্চিমবঙ্গ বিনামূল্যে ট্যাবলেট প্রকল্প - West Bengal Free Tablet Scheme
পশ্চিমবঙ্গ বিনামূল্যে ট্যাবলেট প্রকল্প – West Bengal Free Tablet Scheme

যার মধ্যে দিয়ে অনেক পড়ুয়া উপকৃত হয়েছেন, যারা প্রত্যন্ত গ্রাম অঞ্চলে বসবাস করেন তাদের ক্ষেত্রে তো ভীষণ ভাবে কাজে এসেছে এই স্মার্টফোন। কেননা সেখানে কোনরকম শিক্ষক, শিক্ষা পরিষেবা করোনা মহামারীতে পৌছাতো না।

পশ্চিমবঙ্গ বিনামূল্যে ট্যাবলেট প্রকল্প:

এরপর উচ্চমাধ্যমিক স্তরের ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকার বিনামূল্যে ট্যাবলেট প্রকল্প শুরু করেছে। প্রকল্পটির নামকরণ করা হয় ট্যাবলেট স্কিম ২০২২ (WB Tablet Scheme 2022)। এই তথ্য প্রযুক্তির যুগে এই প্রকল্পটি শিক্ষা ক্ষেত্রে অনেকটাই পরিবর্তন আনবে এবং ছাত্র-ছাত্রীদের প্রযুক্তি অভিজ্ঞতা আরো বৃদ্ধি পাবে, আশা করা যায়।

মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ছাত্র-ছাত্রীদের ভবিষ্যতের কথা ভেবেই এই ট্যাবলেট অথবা মোবাইল দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছেন।

পশ্চিমবঙ্গ বিনামূল্যে ট্যাবলেট প্রকল্প ২০২২ (West Bengal Free Tablet Scheme 2022):

2020 সাল, আশা করি কারোরই ভোলার কথা নয়। এই সাল থেকে করোনা ভাইরাস আমাদের জীবনে এক মহামারী হয়ে আসে। যার ফলে সবকিছু এক নিমেষ ভেঙে চুরমার হয়ে যায়।

সাধারণ মানুষের জীবনযাত্রা হয়ে ওঠে দুর্বিসহ। স্বাভাবিক জীবন-যাপনে নেমে আসে বিপর্যয়। কর্মক্ষেত্র থেকে শুরু করে স্কুল-কলেজ সব বন্ধ রাখতে হয় বাধ্য হয়েই।

পশ্চিমবঙ্গ বিনামূল্যে ট্যাবলেট স্কিম এর উদ্দেশ্য:

তবে এমন ভাবে চললে ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে পড়ছে অনেক কিছুই, ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে পঠন-পাঠন, ছোট ছোট শিশুদের ভবিষ্যৎ, ছাত্রছাত্রীদের ক্যারিয়ার। দেশের সবচেয়ে বড় সম্পদ হলো ছাত্র-ছাত্রী, যারা ভবিষ্যতে এই দেশকে আরো বেশি উন্নতির শিখরে নিয়ে যাওয়ার সক্ষমতা রাখে।

তবে এই পরিস্থিতিতে অনলাইনে ক্লাস শুরু হয়েছে অনেক জায়গায়। তবে সবার পক্ষে অনলাইনে ক্লাস করা একেবারেই সহজ সাধ্য ছিল না, কেননা সবার ঘরে যে মোবাইল অথবা ট্যাবলেট থাকবে এমন তো কোন কথা নয়।

এমন অনেক ছাত্র-ছাত্রী রয়েছেন যারা এতটাই প্রত্যন্ত গ্রাম অঞ্চলে বসবাস করেন আর এতটাই দরিদ্রসীমার নিচে বসবাস করে থাকেন, তাদের পক্ষে স্মার্টফোনে অনলাইনে ক্লাস করা একেবারেই সম্ভব নয়।

তার উপরেই করোনা মহামারীতে একেবারে কর্মহীন হয়ে পড়েছে বহু পরিবার। তার মধ্যে স্মার্টফোন কেনা, একেবারে স্বপ্ন সমান। আর সেই মুহূর্তে সবদিক বিবেচনা করেই মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ছাত্র-ছাত্রীদের মোবাইল অথবা ট্যাবলেট কেনার জন্য ১০ হাজার করে টাকা পাঠিয়েছেন।

যার ফলে সবার পক্ষে সম্ভব হয় অনলাইনে ক্লাস করা, যার মাধ্যমে ছাত্র-ছাত্রীদের পঠন-পাঠন যেন থেমে না যায়, চলতে থাকে।

পশ্চিমবঙ্গে বিনামূল্যে ট্যাবলেট স্কিম 2022:

পশ্চিমবঙ্গ সরকার রাজ্যের সব কিছু দিক বিবেচনা করে, আর করোনাভাইরাস মহামারী- এর মধ্যে দিয়ে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত বিভাগ গুলোর মধ্যে অন্যতম হলো শিক্ষা দপ্তর (Education Department)।

অনলাইনে ক্লাস শুরু হওয়ার ফলে শিক্ষার কিছুটা উন্নতি হলেও, বেশিরভাগ শিক্ষা জগৎ স্মার্টফোনের অভাবে অন্ধকারেই রয়ে গিয়েছিল। পশ্চিমবঙ্গের ৯.৫ লাখ ট্যাবলেট ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে সরবরাহ করা হয়।

আর এই ট্যাবলেট এর জন্য শুধুমাত্র উচ্চমাধ্যমিক অর্থাৎ 12th ক্লাসের ছাত্র ছাত্রীরাই আবেদন করতে পারবেন। তথ্যপ্রযুক্তির মাধ্যমে তাদের উজ্জ্বল ভবিষ্যতের উদ্দেশ্যে।

পশ্চিমবঙ্গ বিনামূল্যে ট্যাবলেট স্কিম 2022 এর কিছু তথ্য:

  • Organiger:- পশ্চিমবঙ্গ সরকার।
  • উদ্দেশ্য: শিক্ষার্থীদের তথ্য প্রযুক্তির মাধ্যমে অথবা ডিজিটাল মাধ্যমে শিক্ষা প্রদান করা।
  • Beneficiaries:- পশ্চিমবঙ্গের সমস্ত রকম সরকারি স্কুল, সরকারি সাহায্যপ্রাপ্ত স্কুল, এবং মাদ্রাসার টুয়েলভ ক্লাস শিক্ষার্থীরা এই ট্যাবলেট স্কিম এর সুবিধা পাবেন।

পশ্চিমবঙ্গ বিনামূল্যে ট্যাবলেট স্কিম এর সুযোগ সুবিধা:

  • এই স্কিমের মধ্যে দিয়ে অনেক ছাত্রছাত্রী যো উপকৃত হবেন, তা তো আশা করাই যায়।
  • প্রায় সাড়ে নয় লক্ষ (৯,০০,০০০) শিক্ষার্থীকে একেবারে বিনামূল্যে ট্যাবলেট দেওয়া হবে।
  • ৩৬,০০০ সরকারি স্কুল ও সরকারি সাহায্যপ্রাপ্ত মাধ্যমিক স্কুল কে কম্পিউটার দেওয়া হবে।
  • ১৪,০০০ উচ্চ মাধ্যমিক স্কুল ও ৬০০ টির বেশী মাদ্রাসার শিক্ষার্থীরা ট্যাবলেট মোবাইল পাবেন।
  • এর মধ্যে দিয়ে ডিজিটাল ভাবে শিক্ষা অর্জন করতে পারবেন ছাত্রছাত্রীরা।

পশ্চিমবঙ্গ বিনামূল্যের ট্যাবলেট স্কিম এর জন্য আবেদন করার ক্ষেত্রে আবেদনকারীর যোগ্যতা:

পশ্চিমবঙ্গ বিনামূল্যের ট্যাবলেট স্কিম 2022 এ আবেদন করার জন্য অবশ্যই আবেদনকারী যোগ্যতা তো লাগবেই। সেই অনুসারে:-

  • আবেদনকারীকে অবশ্যই পশ্চিমবঙ্গের উচ্চ মাধ্যমিক সরকারি স্কুল, সরকারি সাহায্যকারী স্কুল, মাদ্রাসাতে পড়তে হবে।
  • তার সাথে শিক্ষার্থীকে অবশ্যই 12th ক্লাসে পড়তে হবে।
  • আবেদনকারীর ফ্যামিলি ইনকাম বছরে দু লাখ (২,০০,০০০) টাকার কম হতে হবে।

ট্যাবলেট স্কিমের জন্য যে সমস্ত ডকুমেন্টস প্রয়োজন পড়বে:

  • ঠিকানার প্রমাণপত্র
  • পরিচয় পত্র
  • আধার কার্ড
  • পাসপোর্ট সাইজের সবেমাত্র তোলা ফটোগ্রাফ
  • স্কুল আইডি কার্ড
  • স্ক্যান করা সিগনেচার
  • চালু থাকা মোবাইল নাম্বার ইত্যাদি।

বিনামূল্যের ট্যাবলেট স্কিমের জন্য অনলাইনে আবেদন পদ্ধতি:

Step 1. সবার প্রথমে ভিজিট করুন এই অফিশিয়াল ওয়েবসাইট, https://wb.gov.in

Step 2. এরপর ক্লিক করুন “Apply Online for Tablet” এই বাটন টির উপর।

Step 3. দেখবেন একটি অ্যাপ্লিকেশন ফর্ম (Application Form) আসবে মোবাইল অথবা ল্যাপটপের স্ক্রিনে।

Step 4. সেই অ্যাপ্লিকেশন ফর্ম টিতে আবেদনকারীর নাম (Students Name), বাবার নাম (Father’s Name), ডেট অফ বার্থ (Date of Birth), লিঙ্গ (Gender), কাস্ট (Caste) এবং আরো অন্যান্য যে সমস্ত ইনফরমেশন প্রয়োজন হবে, সেগুলি আপলোড করে দিন।

Step 5. সব কিছু ডকুমেন্টস আপলোড করে অ্যাপ্লিকেশন ফর্ম ফিলাপ করার পর, সাবমিট (Submit) বাটনে ক্লিক করুন।

তো এইভাবে খুবই সহজ ভাবে ট্যাবলেটের জন্য উচ্চ মাধ্যমিক স্তরে পড়তে থাকা ছাত্রছাত্রীরা অনলাইনে আবেদন করতে পারবেন, তার জন্য ঘরে বসেই এই আবেদন করতে পারবেন।

শিক্ষার্থীদের উজ্জল ভবিষ্যৎ এর কথা ভেবেই পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকার এই বিনামূল্যে ট্যাবলেট স্কিম চালু করে করোনা মহামারীর মধ্যে শিক্ষা স্তর কে আরো অনেকটা উন্নতীর শিখরে নিয়ে গেছে বলা যেতে পারে।

Home Click here
Official Website Click here

Leave a Comment