ডিভোর্স বা বিবাহ বিচ্ছেদ এর জন্য কত টাকা খরচ হতে পারে?

Cost of Divorce: আপনি কি জানেন Divorce বা বিবাহ বিচ্ছেদের জন্য কত টাকা খরচ হয়? না কি Divorce বা বিবাহ বিচ্ছেদ বিনামুল্যে হয়? যদি না জেনে থাকেন তাহলে আসুন জেনে নিন Divorce বা বিবাহ বিচ্ছেদ এর জন্য খরচ ও জরুরি তথ্য।

বিবাহ একটি সুন্দর পবিত্র বন্ধন, দুই পরিবারের মত অনুসারে দুটি মনের মিলন হয় একটি বিয়ের মধ্যে দিয়ে। তবে যদি সেই দুটি মানুষ একসাথে সারা জীবন না থাকার সিদ্ধান্ত নিয়ে থাকেন তখন পরিস্থিতি অন্যরকম হয়ে যায়।

বাধ্য হয়ে আলাদা থাকার সিদ্ধান্ত নিতে হয় দু’জনকেই। কেননা অশান্তিপূর্ণ জীবন থেকে একাকীত্ব অনেকটাই ভালো, এমনটাই মনে করেন অনেকেই।

What is the Cost of Divorce in India
What is the Cost of Divorce in India

তবে যদি বলা যায় যে ডিভোর্স অথবা বিবাহ বিচ্ছেদ একটি সাধারণ মানুষের কত টাকা খরচ করতে পারে বাস্তবে ? তবে এই প্রশ্নের উত্তর দেওয়া কোনভাবেই সম্ভব নয়, যে কত এমাউন্ট টাকার মধ্যে এই ডিভোর্স হতে পারে। বিভিন্ন রকমের পরিস্থিতি, বিষয়ের উপর নির্ভর করে খরচটা নির্ভর করে।

তো জানা যাক যে বিষয় গুলোর উপর নির্ভর করে ডিভোর্সের খরচ ভিন্ন ভিন্ন হতে পারে:

ডিভোর্সের ভিন্ন খরচঃ

১) প্রথমত যদি দুজনের সম্মতি থাকা সত্ত্বে এই বিবাহ বিচ্ছেদ হয়ে থাকে, তাহলে কিন্তু খরচটা অনেকটাই কম হয়।

২) আর যদি দম্পতি বিভিন্ন আসল কারণ এর উপরে এই বিবাহ বিচ্ছেদ নিয়ে যে কোনো একজন যদি সহমত না হয়ে থাকেন, তাহলে কিন্তু সেই ডিভোর্স অথবা বিবাহ বিচ্ছেদ অনেকটাই খরচসাপেক্ষ হতে পারে।

৩) যদি কোনো দম্পতির কোন বাচ্চা না থাকে এবং যদি বড় বাচ্চা থেকে থাকে সেই তুলনায় যে দম্পতির বাচ্চা খুবই ছোট, সে ক্ষেত্রে ডিভোর্স অথবা বিবাহ বিচ্ছেদ করতে গেলে অনেকটাই টাকা আপনাকে কিন্তু খরচ করতে হতে পারে। কারণ সেই বাচ্চার ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা থেকে শুরু করে তাকে বড় করা সবকিছুই নির্ভর করে এই খরচের উপর।

বিবাহ বিচ্ছেদের জন্য খরচঃ

এবার আসা যাক আইনি হিসাব অনুসারে একটি বিবাহ বিচ্ছেদ কেমন খরচ করাতে পারে:

জীবনসঙ্গীকে অথবা জীবনসঙ্গিনীকে চিরদিনের মত ছেড়ে দিচ্ছেন, তাই তো! সে ক্ষেত্রে বিভিন্ন রকমের বিষয়ের উপর নির্ভর করে, বিভিন্ন রকমের খরচ আপনার হতে পারে। সেটা কম অথবা বেশি হতে পারে।

তবে যদি অন্যদিকে দেখা যায়, যেমন ধরুন ডিভোর্স করতে গেলে প্রয়োজন পড়ে আইনি সহযোগিতা, সে ক্ষেত্রে উকিল এর খরচ থেকে শুরু করে আরো অন্যান্য খরচ তো রয়েছেই।

তো চলুন তাহলে জেনে নেওয়া যাক আইন হিসাব অনুসারে আপনার কোন কোন ক্ষেত্রে টাকা খরচ হতে পারে:

উকিল এর ফিসঃ

  • একজন উকিল তিনি তার সময় ব্যয় করে আপনার সাথে এ বিষয়ে আলোচনা করবেন, সে ক্ষেত্রে ঘন্টা হিসাব করে কিন্তু একটা চার্জ আপনার উপরে করতে পারেন তিনি।
  • ডিভোর্সের জন্য সামান্য সামান্য জিনিসের উপরে ঘন্টা হিসেবে কিছু টাকা চার্জ করতে পারে কেননা এই মামলার প্রকৃতি জটিল এবং অপ্রত্যাশিত হয়ে থাকে।
  • সে ক্ষেত্রে দেখা যায় অনেক সময় অনেক দম্পতির মত পরিবর্তন হয়েছে।

ডিভোর্স অথবা বিবাহ বিচ্ছেদের প্রকারঃ

  • দম্পতির মধ্যে দুজনের সহমতি অনুসারে যদি ডিভোর্স হয়ে থাকে তাহলে কিন্তু সে ক্ষেত্রে অনেকটাই বিপদ মুক্ত থাকা যায় বা এক্ষেত্রে ডিভোর্স খুব সহজভাবে হয়ে থাকে।
  • এছাড়া যদি বাচ্চা থেকে থাকে তাহলে তার ভরণপোষণ অনুসারে সেই বিবাহবিচ্ছেদ  ব্যাঙ্ক ব্যালান্স অনেকটা ফাঁকা করতে পারে কিন্তু আপনার।
  • আবার দেখা যায়, যদি কোন ডিভোর্স অথবা বিবাহ বিচ্ছেদে কোনরকম বাচ্চা মানুষ করার প্রশ্নই ওঠে না, সে ক্ষেত্রে কিন্তু উকিল খুবই সহজ ভাবে সেই ডিভোর্স অথবা বিবাহবিচ্ছেদ ঠিক করে দিতে পারেন, যদি দুজনের সম্মতি থাকে তো।

বিভিন্ন রকমের খরচঃ

খরচ এবং ভরণপোষণের উপর আপনার করণীয়ঃ

  • আপনি যে উকিল সিলেক্ট করেছেন সেই উকিলকে বলে রাখুন যে আপনার সমস্ত রকম এই মামলার বিষয় সম্পর্কে সহজভাবে যেন সমাধান করে দেন।
  • এছাড়া ফোন করা অথবা ইমেইল সেন্ড করার আগে অন্ততপক্ষে দুবার ভাবতে হবে, বিশেষ করে সেই মামলার বিষয়ে যেখানে কোন উকিল প্রতি ঘন্টা অনুসারে চার্জ করেন।
  • জিজ্ঞাসা করার জন্য একটি পেপার এ প্রশ্ন গুলো সাজিয়ে গুছিয়ে লিখে রাখতে পারেন, কোন রকম প্রশ্ন যেন বাদ না যায়। তারপর একটি মিটিং অথবা বৈঠক করে সেখানে সেই সমস্ত প্রশ্নের উত্তর সঠিক ভাবে আপনি প্রাপ্ত করতে পারেন।
  • এছাড়া যদি কোন মহিলা হয়ে থাকেন এই ডিভোর্সের বিষয়ে, সে ক্ষেত্রে যদি সেই মহিলার স্বামী আর্থিক পরিস্থিতিতে খুবই ভালো অবস্থানে থেকে থাকেন, তাহলে ভরণপোষণ অনুসারে বেশ ভালো মতো টাকা দেওয়ার আদেশ আপনি দিতে পারবেন অথবা বলতে পারবেন উকিলকে।

যেভাবেই হোক আপনার ডিভোর্স এর ক্ষেত্রে কিন্তু অনেকখানি খরচ হয়ে থাকে, ভরণপোষণ ছাড়াও আরো অন্যান্য খরচ হিসাব করলে আপনার হয়তো মাথায় হাত উঠতে বাধ্য।

এর সাথে ভরণপোষণ অনুসারে যদি কোন মহিলা তার স্বামীর কাছ থেকে বেশ ভালো মতো এমাউন্টের টাকা পেয়ে থাকেন, সেক্ষেত্রে যদি বাচ্চা থেকে থাকে তার পড়াশোনার খরচ, তাকে মানুষ করা এবং তার ভবিষ্যত পরিকল্পনা করা অনায়াসেই করতে পারবেন একজন সিঙ্গেল মাদার অথবা একাকী মা।

এছাড়া বাচ্চা না থাকলেও নিজের জীবনের ভবিষ্যৎ পরিকল্পনার জন্য সেই টাকা অনেকখানি সহযোগিতা করবে। তবে হ্যাঁ, যে উকিল আপনি সিলেক্ট করবেন সেই উকিলের কাছে সমস্ত রকম তথ্য ভালোভাবে জেনে নিয়ে, খুবই কম ঝামেলার মধ্যে দিয়ে যেন কাজটি সম্পন্ন হয়ে যায়, সে দিকে খেয়াল রাখবেন। এতে আপনার এবং আপনার পরিবারের জন্যই ভালো।

Leave a Comment