2022 স্টেট ব্যাংক শিক্ষা লোন আবেদন পদ্ধতি | 2022 State Bank Education Loan in Bengali

State Bank Education Loan 2022 (স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া শিক্ষা লোন 2022): How to Apply for State Bank Education Loan? | Documents for State Bank Education Loan Apply | State Bank Education Loan Interest Rates List | State Bank Education Loan Apply Online.

শিক্ষা মানুষের জীবনকে আরও বেশি উন্নত করে তোলে। একটি ছোট্ট শিশুকে সুন্দর করে গড়ে তুলতে সাহায্য করে। সেই শিশুটির প্রতিভাকে প্রকাশিত করতে সাহায্য করে শিক্ষা। তবে অনেক সময় সমাজে এমন অনেক পরিবার আছে যাদের কিনা প্রতিদিনের খাবার জোগাড় করতে গিয়ে মাথার ঘাম পায়ে ফেলতে হয়।

এমন অবস্থাতে পড়াশোনার খরচ চালানোর মতো কোনো রকম পরিস্থিতি থাকেনা। আবার দেখা যায় পরিবারের অভাবের কারণে পড়াশোনা মাঝপথে ছেড়ে দিতে হচ্ছে। স্বপ্নগুলো ভেঙ্গে চুরমার হয়ে যাচ্ছে। আর সারা জীবন বয়ে বেড়াতে হচ্ছে এই আফসোস। “যদি পড়াশোনা শেষ করে কোন জব করতে পারতাম!”

Bank Name State Bank of India (SBI)
Type of Loan Education Loan
Loan Application Process Online / Offline
Official Website https://sbi.co.in/

তবে আপনি চাইলে আপনার ভবিষ্যতকে সুন্দর করে গড়ে তোলার জন্য কোনরকম কোর্স অথবা ট্রেনিংয়ের জন্য যে টাকার প্রয়োজন হয় সেটা ব্যাংক থেকে লোন হিসেবে নিতে পারেন, অথবা আপনার সন্তানের পড়াশোনা ভালো ভাবে চালিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য ব্যাংক থেকে এডুকেশন লোন আপনি নিতে পারেন।

স্টেট ব্যাংক শিক্ষা লোন আবেদন পদ্ধতি - State Bank of India Education Loan in Bengali
স্টেট ব্যাংক শিক্ষা লোন আবেদন পদ্ধতি – State Bank of India Education Loan in Bengali

খুবই কম এবং আকর্ষণীয় সুদের হার, তার সাথে সব থেকে বড় বিষয় হলো, আপনি লোন পরিশোধের জন্য অনেকটা সময় পাবেন। বলতে গেলে কোর্স কমপ্লিট করার পর কোন কাজ অথবা চাকরি পাওয়ার পরে থেকেই কিন্তু সেই লোন পরিশোধের সময়সীমা শুরু হয়।

সুচিপত্র

State Bank of India Education Loan (স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া শিক্ষা লোন):

তো চলুন তাহলে জানা যাক, কিভাবে আপনি স্টেট ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া এডুকেশন লোন এর জন্য আবেদন করবেন এবং এই লোন সম্পর্কিত আরো অন্যান্য তথ্য সম্পর্কেও জানা যাক:

সুদের হার: ৮.১৫% শতাংশ থেকে শুরু।

স্টেট ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া এডুকেশন লোন এর বিভিন্ন রকমের স্কিম এবং তাদের সুদের হার:

১) স্টেট ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া স্টুডেন্ট লোন (SBI Student Loan): 

সর্বোচ্চ লোন এমাউন্ট: ২০ লাখ টাকার উপরে।

সুদের হার: ৮.১৫% শতাংশ থেকে ৮.৬৫% শতাংশ পর্যন্ত।

২) স্টেট ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া স্কলার লোন (SBI Scholar Loan): 

সর্বোচ্চ লোন এমাউন্ট: ৪০ লাখ টাকা

সুদের হার: ৬.৮৫% শতাংশ থেকে ৮.১৫% শতাংশ পর্যন্ত।

৩) স্টেট ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া গ্লোবাল ই ডি ভেন্টেজ (SBI Global ED- Vantage):

সর্বোচ্চ লোন এমাউন্ট: ১.৫ কোটি টাকা।

সুদের হার: ৮.১৫% শতাংশ থেকে ৮.৬৫% শতাংশ পর্যন্ত।

৪) স্টেট ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া স্কিল লোন (SBI Skill Loan): 

সর্বোচ্চ লোন এমাউন্ট: ১.৫ কোটি টাকা।

সুদের হার: ৮.১৫%।

৫) স্টেট ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া টেক ওভার অফ এডুকেশন লোন (SBI Take Over of Education Loan):

সর্বোচ্চ লোন এমাউন্ট: ১.৫ কোটি টাকা।

৮.১৫% শতাংশ থেকে ৮.৬৫% শতাংশ পর্যন্ত।

যদি আবেদন কারীর অথবা স্টুডেন্ট দের “SBI Rinn Raksha” অথবা অন্যান্য কোন লাইফ পলিসি থেকে থাকে সেক্ষেত্রে ০.৫০% সুদের হারে ছাড় পেতে পারেন।

আবেদনকারী যদি ছাত্রী হয়ে থাকেন সেক্ষেত্রে ০.৫০% ছাড় পাবেন সুদের হারে।

স্টেট ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া এডুকেশন লোন স্কিম (State Bank of India Education Loan Scheme): 

১) স্টেট ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া স্টুডেন্ট লোন:

i) সুদের হার: ৮.১৫% শতাংশ থেকে ৮.৬৫% শতাংশ পর্যন্ত।

ii) প্রসেসিং ফি:

সর্বোচ্চ লোন এমাউন্ট কুড়ি লাখ টাকার উপরে: NIL

কুড়ি লাখ টাকার বেশি লোন এর ক্ষেত্রে: ১০,০০০ টাকা তার সাথে ট্যাক্স

iii) সর্বোচ্চ লোন এমাউন্ট: ৭.৫ লাখ টাকা: None

iv) লোন পরিশোধের সময়সীমা: ১৫ বছর পর্যন্ত এবং হলিডে পিরিয়ড ১২ মাস অর্থাৎ ১ বছর।

v) আবেদনকারীকে অবশ্যই ভারতীয় নাগরিক হতে হবে।

২) স্টেট ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া স্কলার লোন স্কিম:

i) সুদের হার: ৬.৮৫% শতাংশ থেকে ৮.১৫% শতাংশ পর্যন্ত।

i) প্রসেসিং ফি: NIL

iii) লোন পরিশোধের সময়সীমা: সর্বোচ্চ ১৫ বছর পর্যন্ত, কোর্স কমপ্লিট হওয়ার পর থেকে এবং তার সাথে হলিডে পিরিয়ড ১২ মাস অর্থাৎ এক বছর।

iv) ভারতীয় নাগরিক হতে হবে আবেদনকারীকে।

৩) স্টেট ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া গ্লোবাল ই ডি ভেন্টেজ স্কিম:

i) সুদের হার: ৮.১৫% শতাংশ থেকে ৮.৬৫% শতাংশ পর্যন্ত।

ii) প্রসেসিং ফি: সর্বোচ্চ ১০ হাজার টাকা।

iii) লোন পরিশোধের সময়সীমা: সর্বোচ্চ ১৫ বছর পর্যন্ত।

iv) আবেদনকারীকে অবশ্যই ভারতীয় নাগরিক হতে হবে।

৪) স্টেট ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া স্কিল লোন স্কিম:

i) সুদের হার: ৮.১৫% শতাংশ।

ii) লোন পরিশোধের সময়সীমা: সর্বোচ্চ ৭ বছর পর্যন্ত।

iii) আবেদনকারীকে অবশ্যই ভারতীয় নাগরিক হতে হবে।

৫) স্টেট ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া টেক ওভার অফ এডুকেশন লোন স্কিম:

i) সুদের হার: ৮.১৫% শতাংশ থেকে ৮.৬৫% শতাংশ।

ii) প্রসেসিং ফি: NIL

iii) লোন পরিশোধের সময়সীমা: সর্বোচ্চ ১৫ বছর পর্যন্ত।

কোন কোর্স করার জন্য স্টেট ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া এডুকেশন লোন নিতে পারবেন?

যে সমস্ত কোর্স করার জন্য আপনি স্টেট ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া এডুকেশন লোন নিতে পারবেন সেগুলি হল:

১) রেগুলার গ্রাজুয়েট ডিগ্রী (Regular Graduate Degrees)

২) রেগুলার পোস্ট গ্রাজুয়েট ডিগ্রী (Regular Post Graduate Degrees)

৩) ডিপ্লোমা কোর্স (Diploma Courses)

৪) সার্টিফিকেট কোর্স (Certificate Courses)

৫) ডক্টরেট (Doctorate)

বিদেশে যে সমস্ত জায়গায় পড়াশোনা করার জন্য অফার করে থাকে সেগুলি হল: ইউনাইটেড স্টেটস অফ আমেরিকা, কানাডা, অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড, ইউরোপ, সুইজারল্যান্ড, সুইডেন, স্পেন, রাশিয়া, পর্তুগাল, পোল্যান্ড, নরওয়ে, নেদারল্যান্ড, ইতালি, জার্মানি, ফ্রান্স, ইত্যাদি।

স্টেট ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া বিদেশে পড়াশোনার জন্য এডুকেশন লোন:

সুদের হার: ৮.৬৫% শতাংশ

প্রসেসিং ফি: ১০,০০০ টাকা প্রতি অ্যাপ্লিকেশন এর উপরে।

লোন পরিশোধের সময়সীমা: সর্বোচ্চ ১৫ বছর পর্যন্ত।

সর্বনিম্ন লোন এমাউন্ট: ৭.৫০ লাখ টাকা এবং এর বেশি, সর্বোচ্চ লোন এমাউন্ট ১.৫ কোটি টাকা।

স্টেট ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া এডুকেশন লোন নেওয়ার জন্য প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টস:

ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য/ আবেদনকারী:

১) পরিচয় পত্র হিসেবে- পাসপোর্ট, প্যান কার্ড, ড্রাইভিং লাইসেন্স, ভোটার আইডি কার্ড।

২) ঠিকানার প্রমাণপত্র হিসেবে- ইউটিলিটি বিল, আধার কার্ড, ড্রাইভিং লাইসেন্স, পাসপোর্ট, ইত্যাদি।

৩) একাডেমিক রেকর্ড হিসেবে- মাধ্যমিক, উচ্চমাধ্যমিক, গ্রাজুয়েশন এর এক্সাম রেজাল্ট।

৪) এডমিশন প্রুফ।

৫) আবেদনকারীর পাসপোর্ট সাইজের ফটোগ্রাফ।

অভিভাবকদের জন্য/ কো-অ্যাপ্লিকেন্ট হিসেবে:

১) পরিচয় পত্র হিসেবে- পাসপোর্ট, প্যান কার্ড, ড্রাইভিং লাইসেন্স, ভোটার আইডি কার্ড।

২) ঠিকানার প্রমাণপত্র হিসেবে- ইউটিলিটি বিল, আধার কার্ড, ড্রাইভিং লাইসেন্স, পাসপোর্ট।

৩) লোন অ্যাকাউন্ট স্টেটমেন্ট, যেটা কমপক্ষে এক বছর হতে হবে এবং আবেদনকারীর পাসপোর্ট সাইজের ফটোগ্রাফ।

স্টেট ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া এডুকেশন লোনের সাবসিডি:

১) সেন্ট্রাল স্কিম ফর ইন্টারেস্ট সাবসিডি ফর ইকনোমিক্যালি ওয়েকার সেকশন (Central scheme for interest subsidy for economically weaker section).

২) পড়ো পরদেশ (Padho Pardesh)

৩) ডঃ আম্বেদকর সেন্ট্রাল সেক্টর স্কিম (Dr. Ambedkar Central Sector Scheme)

স্টেট ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া এডুকেশন লোন আবেদন করবেন কিভাবে?

State Bank of India Education Loan অনলাইন আবেদন:

Step 1. প্রথমত আপনাকে স্টেট ব্যাংক অফ ইন্ডিয়ার অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে ভিজিট করতে হবে, https://www.sbi.in/

Step 2. এরপর এ্যাপলাই নাও (Apply Now) অপশনটিতে ক্লিক করুন। লোন (Loan) অপশনে গিয়ে এডুকেশন লোন (Education Loan) সিলেক্ট করুন।

Step 3. এরপর এপ্লাই নাও অপশনটি তে ক্লিক করুন, এরপর একটি লোন অ্যাপ্লিকেশন ফর্ম (SBI Education Loan Application Form) আসবে, প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টস গুলি দিয়ে লোন অ্যাপ্লিকেশন ফর্ম টি ভালো ভাবে ফিলাপ করুন।

Step 4. ফিলাপ করে নিয়ে ভালোভাবে চেক করে সাবমিট (Submit) বাটনে ক্লিক করুন। আপনার লোন অ্যাপ্লিকেশন টি স্টেট ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া ভেরিফাই করবে এবং খুব শীঘ্রই আপনার সাথে যোগাযোগ করবে।

State Bank of India Education Loan অফলাইন আবেদন:

এছাড়া বাবা-মা অথবা অন্য কোন অভিভাবকের সাথে প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টস গুলি নিয়ে আপনার কাছাকাছি স্টেট ব্যাংক অফ ইন্ডিয়ার যে কোন ব্রাঞ্চে গিয়ে এডুকেশন লোন এর জন্য আপনি আবেদন করতে পারবেন অফলাইনেও।

SBI Scholar Loan: এই লোনের জন্য স্টেট ব্যাংক অফ ইন্ডিয়ার যে কোন ব্রাঞ্চে আপনি আবেদন করতে পারেন।

তো এইভাবে কয়েকটি সহজ পদক্ষেপ অবলম্বন করে খুবই কম এবং আকর্ষণীয় সুদের হারে এডুকেশন লোন এর জন্য আপনি আবেদন করতে পারেন স্টেট ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া থেকে। তার সাথে লোন পরিশোধের সময়সীমা পাবেন অনেকটাই। যেটা শুরু হয় কোর্স কমপ্লিট করার পর কোন জব পাওয়ার পর থেকেই সর্বোচ্চ ১৫ বছর পর্যন্ত।

Home Click here
Official Website Click here

Leave a Comment