জিনিসপত্র বিক্রি ও বিক্রির চুক্তির মধ্যে পার্থক্য ও আইনি নিয়ম

Sale and Agreement to Sell Laws in Bengali: কোন জিনিসপত্র ক্রয় বিক্রয়-এর চুক্তি কি? কি কারণে এই চুক্তির প্রয়োজন? জানুন জিনিসপত্র বিক্রি ও বিক্রির চুক্তির মধ্যে পার্থক্য ও আইনি নিয়ম।

সমস্ত কিছু বিষয়ের উপরে আইনি ব্যবস্থা রয়েছে, নিয়ম রয়েছে, যেগুলি লংঘন করলে আপনার শাস্তি হতে পারে আবার আইন অনুসারে সেগুলি না করাটা আপনার জন্য বাধ্যতামূলক।

জিনিসপত্র বিক্রি ও বিক্রির চুক্তির মধ্যে পার্থক্য ও আইনি নিয়ম
জিনিসপত্র বিক্রি ও বিক্রির চুক্তির মধ্যে পার্থক্য ও আইনি নিয়ম

ব্যবসা বাণিজ্যের ক্ষেত্রে অনেকেই বিভিন্ন রকমের জিনিসপত্র বিক্রির মধ্যে দিয়ে নিজের কর্ম জীবনকে বেছে নিয়েছেন। তেমনি কিছু জিনিসপত্র কেনা বেচার মধ্যে দিয়ে অনেকে তাদের ব্যবসা বাণিজ্য চালিয়ে থাকেন।

তার উপরেও কিছু নিয়ম-নীতি রয়েছে। তার সাথে রয়েছে আইন অনুসারে সে সমস্ত জিনিসপত্র বিক্রি করা অথবা কেনা।

জিনিসপত্র বিক্রি করার অধিনিয়ম কি?

জিনিসপত্র বিক্রি করার অধিনিয়ম একটি চুক্তি হিসেবে ব্যক্ত করা যেতে পারে। যেখানে বিক্রেতা তার জিনিসপত্র টি ক্রেতাকে একটি নির্দিষ্ট দামে এর উপর ভিত্তি করে সেই জিনিসপত্র বিক্রি করবেন। এক্ষেত্রে বিভিন্ন রকমের বিষয়ের উপর ভিত্তি করে এটা বলা যেতে পারে যে, সে জিনিসপত্র টি যিনি কিনছেন সেই ক্রেতা এবং বিক্রেতা আসলে কারা।

এটি জিনিস পত্রের ডেলিভারি, ক্ষতি আর বিক্রির নিয়ম লঙ্ঘন এর ক্ষেত্রে অনেকটা সুরক্ষা প্রদান করতে পারে। এটি একটি ব্যবসায়িক আইন যা কিনা ভারতে এর অস্তিত্ব তখন হয়েছে যখন ভারতে ইংরেজদের শাসন ছিল।

এটি এমন একটি অধিনিয়ম যা কিনা জিনিসপত্র বিক্রির উপর খেয়াল রাখা বিষয়কে কেন্দ্রবিন্দুতে রাখা হয়। যেখানে একটি পক্ষ থেকে আরেকটি পক্ষ কে জিনিসপত্র বিক্রি করা অথবা হস্তান্তরিত করা হয়।

বিক্রি আসলে কি ? 

জিনিসপত্র বিক্রির অধিনিয়ম 1930 অনুসারে একটি বিক্রি হলো এক রকম চুক্তি বলতে পারেন। যেখানে বিক্রেতা একটি নির্দিষ্ট মূল্যের জন্য নিজের থেকে কেনা জিনিসপত্র কে হস্তান্তরিত করার জন্য সহমত হয়ে থাকেন।

এমন ভাবে চলতে থাকা ঘটনাকে বিক্রি বলা হয়। একজন ব্যক্তি যে কোন জিনিস পত্র অন্য কোন ব্যক্তিকে একটি নির্দিষ্ট মূল্যের বিনিময়ে স্থানান্তরিত করার এই প্রক্রিয়াকে বিক্রি বলা হয়।

এই বিক্রির ক্ষেত্রে অনেক সময় চুক্তি হিসেবে লিখিত অথবা রেকর্ড করা যেতে পারে। ধারা 5 অনুসারে জিনিসপত্রের বিক্রির চুক্তি প্রক্রিয়াও কিন্তু এর সাথে জড়িত রয়েছে। লেনদেনের ক্ষেত্রে বিক্রির জন্য আপনি এমন চুক্তি করতেই পারেন।

বিক্রির চুক্তির প্রয়োজনীয়তা:

জিনিসপত্র বিক্রির যে চুক্তি রয়েছে সেটি কিছু বিষয়ের উপরে নির্ভর করে, সেগুলি নিচে দেওয়া হল:

১) বিক্রির চুক্তির কম করে দুটি পক্ষ হওয়া জরুরী।

২) জিনিসপত্রের বিক্রির একটি সুন্দর চুক্তিপত্র হতে হবে।

৩) একরকম মূল্য হওয়া প্রয়োজন। এটি চুক্তির একটি পূর্ণ এবং শর্ত স্বরূপ বিষয় হতে পারে।

৪) এটি একটি বৈধ চুক্তির জন্য সমস্ত রকম অনিবার্যতার অনুরূপ হতে হবে।

বিক্রির কিছু উদাহরণ এখানে দেওয়া হলো:

১) A তার নিজের বাইক B কে ১,৫০,০,০০ টাকাতে বিক্রি করেছে।

২) C নিজের নামের জমি D কে ৭০,০০,০০০ টাকার বিনিময়ে বিক্রি করেছে।

৩) X 3000 টাকার অগ্রিম ভরপাই প্রাপ্ত করার পর নিজের ব্যাগ Y কে 5000 টাকা দিয়ে বিক্রি করে দিয়েছে, কেননা বাকি টাকা ভরপাই হিসাবে প্রতি মাসে Y দিয়ে থাকতো।

বিক্রি করার জন্য একটি চুক্তি কি?

বিক্রি করার জন্য একটি চুক্তি হলো জিনিস পত্রের হস্তান্তর করা। যা কিনা ভবিষ্যতে হতে পারে এবং হস্তান্তরের জন্য কিছু শর্ত নির্ভর করে যেখানে যে শর্ত গুলি পূরণ করা অবশ্যই প্রয়োজন। যখন শর্তগুলো পূরণ করা হয়ে যায় এবং যে সময় দেওয়া হয় সেই সময় পার হয়ে যায় তখন কিন্তু এই চুক্তি বিক্রি হিসেবে গণ্য করা হয়।

আপনার জিনিসপত্র বিক্রির জন্য উকিল অথবা বিক্রি করার জন্য চুক্তির প্রয়োজনীয়তা আছে কি ?

একটি উকিলকে আপনি এ বিষয়ে নিযুক্ত করতেই পারেন, যখন আপনাকে একটি চুক্তির মধ্যে প্রবেশ করার প্রয়োজনীয়তা চলে আসে সেটা বিক্রির অথবা বিক্রির চুক্তি সম্বন্ধিত হতেও পারে। কেননা একটি সিভিল উকিল এর কাছে এ বিষয়ে সমস্ত রকম প্রয়োজনীয় তথ্য থাকে। যাকে সেই উকিল খুবই সহজ ভাবে আপনার কাছে ব্যক্ত করতে পারবেন।

এ বিষয়ের উপর নির্ভর করে আপনি আপনার এই বিক্রির বিষয়ে একটি চুক্তি কিভাবে করবেন এবং সে অনুযায়ী কিভাবে পদক্ষেপ গ্রহণ করবেন তেমনটা কিন্তু সেই উকিল আপনাকে বলে দিতে পারবেন।

বিশেষ বিশেষ ক্ষেত্রে আপনি কেমন পদক্ষেপ গ্রহণ করতে চান বা করতে পারেন সেটাও কিন্তু সেই উকিল আপনাকে পরামর্শ দিতে পারবেন। নিজের একটি চুক্তি তৈরি করার জন্য।

তবে হ্যাঁ যদি আপনি এই চুক্তি কোন ভুল উদ্দেশ্যে এবং বে-আইনি রাস্তায় তৈরি করার চেষ্টা করেন, আর এর জন্য একজন উকিল কে নিযুক্ত করেন তাহলে এই মামলাতে আপনার জন্য অনেক টা খারাপ পরিস্থিতি অপেক্ষা করছে।

বলতে গেলে আপনি খুবই বিপাকে পড়তে পারেন। হিতে বিপরীত হতে পারে। কেননা আইনের দিক থেকে আপনি কোনোভাবেই এ বিষয়ে ছাড় পাবেন না।

জিনিসপত্র বিক্রির ক্ষেত্রে সেটা হতে পারে কোন ব্যবহারের জিনিসপত্র এবং কোনো সম্পত্তি, সে ক্ষেত্রে কিন্তু দুই পক্ষের মধ্যে বোঝাবুঝি এবং চুক্তি হওয়াটা খুবই জরুরি। তার সাথে দুই পক্ষের মতামত যেন একই রকম হয়। সমস্ত কিছু আইন হিসাবে পরিষ্কারভাবে যেন উল্লেখ থাকে সেই চুক্তিতে।

এছাড়া জিনিসপত্র বিক্রির পর কোন ক্রেতা কিন্তু বলতেই পারেন যে, আপনার জিনিসপত্র নেওয়ার পর তার অনেক বড় ক্ষতি হয়েছে, এমনটা পরিস্থিতি যাতে না তৈরি হয়, সেদিকে খেয়াল রাখাটা আপনার কর্তব্যের মধ্যে পড়ে।

Leave a Comment