PM Awas Yojana-Gramin 2022 আবেদন পদ্ধতি, কারা পাবে ও কি কি দরকার?

Pradhan Mantri Awas Yojana Gramin (PMAYG)  ভারত সরকারের গ্রামীন দরিদ্র মানুষের আবাসন প্রকল্প। এই প্রকল্পের নাম পূর্বে ছিলো Indira Awas Yojana (IAY)। এই Pradhan Mantri Awas Yojana Gramin (PMAYG)  একটি সামাজিক সহায়তা প্রোগ্রাম।

এই প্রোগ্রামের লক্ষ্য আগামী ২০২২ সালের মধ্যে ভারতের প্রত্যেক নাগরিকের বাড়ি বানানো প্রকল্প “Housing For All” বাস্তবায়ন ত্বরান্বিত করা। আজ আমরা আপনাদের সাথে Pradhan Mantri Awas Yojana Gramin (PMAYG)   নিয়ে আলোচনা করবো।

PM Awas Yojana-Gramin 2022 আবেদন পদ্ধতি, কারা পাবে ও কি কি দরকার?
PM Awas Yojana-Gramin 2022 আবেদন পদ্ধতি, কারা পাবে ও কি কি দরকার?

আমরা জানার চেষ্টা করবো, এই Pradhan Mantri Awas Yojana Gramin (PMAYG)  কবে থেকে চালু হয়েছে, এই প্রকল্পের সহায়তা পেতে কি কি দরকার হয়। আসুন জেনে নি এই প্রকল্পের বিস্তারিত।

Pradhan Mantri Awas Yojana Gramin (PMAYG) প্রকল্প কি?

ভারতীয় সরকারের অর্থায়নে এটি একটি আবাসিক প্রকল্প। ২০১৫ সালের ২৫শে জুন এই প্রকল্প চালু হয়। এই প্রকল্পের আওতায় ভারতের বিভিন্ন গ্রামীন জনপদের আর্থিক অসচ্ছল ও ভূমিহীন পরিবারকে থাকার জন্য পাকা আবাসন তৈরি করে দেয়া হয়।

এই প্রকল্পের মাধ্যমে প্রায় ১ কোটি ১২ লাখ বাড়ি তৈরি করা হবে। এই Pradhan Mantri Awas Yojana Gramin (PMAYG)  এর নীতিমালা অনুসারে আর্থিকভাবে অসচ্ছল পরিবার প্রতি ৩০ স্কয়ার মিটার পর্যন্ত জমি বরাদ্ধ দেয়া হবে।

তবে, রাজ্য ও ইউনিয়ন কর্তৃপক্ষ চাইলে মন্ত্রনালয়ের অনুমতি নিয়ে এই জমির সাইজ পরিবর্তন করতে পারবে।

এই PMAYG প্রকল্পের মূল বৈশিষ্ট্য কি কি ?

আসুন জেনে নি এই প্রকল্পের কি কি মূল বৈশিষ্ট্য রয়েছে।

১) বাড়ি বানানোর নির্মাণ ব্যয় কেন্দ্রীয় সরকার ও রাজ্য সরকার উভয়েই আনুপাতিক হারে বহন করবে।

২) বাড়ি বানানোর ব্যয় কেন্দ্রীয় সরকার শতকরা ৬০ ভাগ এবং রাজ্য সরকার শতকরা ৪০ ভাগ বহন করবে।

৩) প্রত্যন্ত রাজ্যগুলি যেমন, হিমালয় কোলঘেষা রাজ্য, উত্তরাঞ্চলের রাজ্য, জম্মু ও কাশ্মীরে নির্মান ব্যয়ের আনুপাতিক হার ৯০% এবং ১০% হবে।

৪) লাদাখের আবাসন প্রকল্পের ক্ষেত্রে এই নির্মান ব্যয়ের ১০০% কেন্দ্রীয় সরকার বহন করবে।

৫) উপকারভোগীদের আবাসন প্রকল্পে শ্রম দেয়ার জন্য প্রতিদিন ৯০ টাকা করে দেয়া হবে।

৬) এই প্রকল্পের পাকা বাড়ি তৈরি করার জন্য দক্ষ মেশন ও অভিজ্ঞ ডিজাইনার দিয়ে ডিজাইন ও পরিকল্পনা করতে হবে।

৭) এই প্রকল্পে মান সম্পন্ন মালামাল কাচামাল হিসেবে ব্যবহার করতে হবে।

৮) এই প্রকল্পের জন্য সুবিধাভোগীদের আর্থ সামাজিক অবস্থা, কাস্ট (SECC) এর প্রেক্ষাপটে বিবেচনা করা হবে। এই বাছাইয়ে গ্রামসভার ভূমিকা থাকবে।

৯) এই প্রকল্পের সাথে ভারতীয় সরকারের অন্য প্রকল্প Swachh Bharat Mission Gramin (SBMG) একিভূত করে উন্নত টয়লেট তৈরি করার জন্য ১২,০০০ টাকা বরাদ্ধ দেয়া হবে।

১০) এই প্রকল্পের অর্থ বিতরন সরাসরি সুবিধাভোগীর আধার কার্ড বা পোষ্ট অফিসে প্রদান করা হবে।

১১) সুবিধাভোগী চাইলে এই প্রকল্পের সহায়তায় ৭০,০০০ টাকা পর্যন্ত ঋণ নিতে পারবে।

কারা পাবেন এই যোজনার লাভ ?

ভারত সরকার তাদের Pradhan Mantri Awas Yojana Gramin প্রকল্পের জন্য কিছু নির্ধারিত যোগ্যতা নির্ধারন করেছে। আসুন জেনে নি, কি কি যোগ্যতা থাকলে এই প্রকল্পের সুবিধা পাওয়া যায়।

১) যে সকল পরিবারের কোন বাড়ি নেই অথবা সর্বোচ্চ ২ রুমের কাচা বাড়ি আছে তারা এই প্রকল্পের জন্য বিবেচিত হবে।

২) যে সকল পরিবারে ২৫ বছরের অধিক বয়সী শিক্ষিত সদস্য নেই।

৩) যে সকল পরিবারের প্রাপ্তবয়স্ক ১৬-৫৯ বছর বয়স পর্যন্ত পুরুষ নেই।

৪) পরিবারের কেউ শারীরিক প্রতিবন্ধী থাকলে।

৫) ভূমিহীন মানুষ, যারা শুধুমাত্র অদক্ষ শ্রমিকের কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করে।

৬) নির্দিষ্ট কাস্ট, নির্দিষ্ট উপজাতী এবং সংখ্যালঘু।

কারা এই যোজনার লাভ পাবেন না?

এই প্রকল্পের নীতিমালায় যোগ্যতার পাশাপাশি কিছু অযোগ্যতার কথাও বলা আছে। যে যোগ্যতা থাকলে কোন নাগরিক এই প্রকল্পের সুবিধা হতে বঞ্চিত হবে।

আসুন দেখে নি এই কি কি কারনে  Pradhan Mantri Awas Yojana Gramin প্রকল্পে অযোগ্য বলে বিবেচিত হবে। (নিচের দেওয়া তথ্যের সমান যদি কোনো পরিবার থাকে তাহলে তাদের এই যোজনার লাভ দেওয়া হবে না)

১) আবেদনকারীর পরিবারের কারো নামে ৫০,০০০ টাকা বা তার অধিক সীমার কৃষান ক্রেডিট কার্ড থাকলে।

২) আবেদনকারী পরিবারের কোন সদস্য ১০,০০০ টাকা বা তার অধিক টাকা বেতনে সরকারী চাকরীরত থাকলে।

৩) আবেদনকারী পরিবারের কোন সদস্য ভারতে আইন অনুযায়ী আয়কর প্রদান করে থাকলে।

৪) আবেদনকারী পরিবারের ল্যান্ডফোন বা রেফ্রিজারেটর থাকলে।

কি কি কাগজপত্র জমা দিতে হয়?

১) আধার নাম্বার।

২) ব্যাংক একাউন্টের বিবরন।

৩) আবেদনকারীর আধার কার্ডের জড়িত বিভিন্ন তথ্য।

৪) MGNREGA রেজিস্ট্রার্ড জব কার্ড নাম্বার

৫) Swachh Bharat Mission (SBM) এর সুবিধা ভোগী হিসেবে আইডি নাম্বার।

PMAYG এর জন্য কিভাবে আবেদন করতে হয়?

আবেদনের জন্য যোগ্য ব্যক্তিগন গ্রামের ওয়ার্ড মেম্বার অথবা পঞ্চায়েতের সাথে যোগাযোগ করে এই Pradhan Mantri Awas Yojana Grameen এর জন্য আবেদন করতে পারেন। কর্তৃপক্ষ তখন আবেদনকারীর আবেদন ও প্রয়োজনীয় কাগজপত্র দ্বায়িত্বপ্রাপ্ত অধিদপ্তরে পাঠাবে।

আবেদনকারী Pradhan Mantri Awas Yojana Gramin প্রকল্পের ওয়েব সাইটে প্রবেশ করে অথবা নিজের নাম, পিতার নাম ইত্যাদি তথ্য দিয়ে নিজের আবেদনের অবস্থা জানতে পারে।

আজ আমরা Pradhan Mantri Awas Yojana Grameen-এর নানা বিষয় সম্পর্কে বিস্তারিত জানলাম। এ বিষয়ে পরবর্তীতে আরো বিস্তারিত আলোচনা করা হবে। আমাদের লেখা নিয়ে যে কোন মন্তব্য আমাদের কমেন্ট করে বা আমাদের ফেসবুক পেজে জানাবেন। আপনাদের মন্তব্য আমরা সবসময় সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে দেখে থাকি।

Leave a Comment