প্রধানমন্ত্রী শ্রী যোজনা 2023 সুবিধা ও লাভ | PM SHRI Yojana in Bengali 2023

PM SHRI Yojana in Bengali 2023: প্রধানমন্ত্রী শ্রী যোজনা কি? প্রধানমন্ত্রী শ্রী যোজনা 2023: পিএম শ্রী যোজনার সুবিধা কি? এই যোজনার ভেতরে সাধরন মানুষ কিভাবে লাভ পাবে? জানুন মোদী সরকারের এই নতুন যোজনা সম্পর্কে সবকিছু।

PM SHRI YOJANA: স্কুল অথবা বিদ্যালয় একটা শিশুর জীবনে কতখানি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে তা তো আমরা সকলেই জানি। সেই কারণে বিদ্যালয় এর উপরে বিশেষভাবে গুরুত্ব দেওয়া জরুরী। আর সেই লক্ষ্য নিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি স্কুল গুলোকে আরো বেশি উন্নত করে তোলার জন্য একটি পরিকল্পনা করেছেন, আর একটি প্রকল্প চালু করার কথা ভেবেছেন। একের পর এক যোজনা আমাদের জীবনকে আরো বেশি সহজ করে তুলতে সাহায্য করছে।

এর মধ্যে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি সোমবার শিক্ষক দিবস উপলক্ষে স্কুল ফর রাইজিং ইন্ডিয়া (PM SHRI) এই যোজনার কথা ঘোষণা করেছেন, এর মধ্যে দিয়ে সমগ্র দেশে ১৪,৫০০ টি স্কুলে উন্নতির কাজ সম্পন্ন করা সম্ভব হবে, বলা যেতে পারে ১৪ হাজার ৫০০ টি স্কুলে বিকাশ ঘটানো হবে।

PM-SHRI Yojana in Bengali - প্রধানমন্ত্রী শ্রী যোজনা কি? পিএম শ্রী যোজনা
PM SHRI Yojana in Bengali – প্রধানমন্ত্রী শ্রী যোজনা কি? পিএম শ্রী যোজনা

এছাড়া প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি আরো বলেন যে, পি এম শ্রী স্কুলে শিক্ষা প্রদান করার জন্য এটি আধুনিক আর পরিবর্তনকারী পদ্ধতি হবে। যেখানে নতুন নতুন টেকনিক, স্মার্ট শ্রেণীকক্ষ, খেলা আর আধুনিক সংরচনা এর উপরে বিশেষভাবে খেয়াল রেখে স্কুল গুলোতে উন্নতি সাধন করা হবে। তিনি এই ঘোষণা টুইটারের মাধ্যমে দেশবাসীকে জানিয়েছেন।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলেন যে, “শিক্ষক দিবস উপলক্ষে আমি একটি নতুন সূচনার ঘোষণা করছি, প্রধানমন্ত্রী স্কুল ফর রাইজিং ইন্ডিয়া। (পি এম শ্রী/ PM- SHRI) অনুসারে সমগ্র দেশে ১৪,৫০০ টি স্কুলে বিকাশ সাধন অথবা উন্নতি সাধন করা হবে, এই যোজনা কে সমস্ত স্কুল, মডেল স্কুল, তৈরি হবে আর এখানে রাষ্ট্রীয় শিক্ষা নীতির সম্পূর্ণ ভাবনা নিহিত থাকবে।”

PM SHRI স্কুলে শিক্ষা প্রদান করার একটি আধুনিক পদ্ধতি:

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলেন যে, পিএম শ্রী স্কুলে শিক্ষা প্রদান করার একটি আধুনিক পরিবর্তনশীল পদ্ধতির মধ্যে দিয়ে শিক্ষা প্রদান করা হবে, আর এই সমস্ত পদ্ধতি হবে সম্পূর্ণ উন্মুক্ত আর এর কেন্দ্রবিন্দুতে রেখে শিক্ষা প্রদান করার এই পদ্ধতির কথা তিনি জানিয়েছেন।

তিনি আরও বলেন যে, নতুন নতুন টেকনিক এর মধ্যে দিয়ে শ্রেণীকক্ষ, খেলাধুলা এবং আরো অন্যান্য শিক্ষা গ্রহণ করানো হবে, ছাত্রছাত্রীদের, এর উপরে বিশেষভাবে খেয়াল রাখা হবে।

PM SHRI প্রকল্পের অধীনে স্কুল গুলিকে উন্নত এবং আপগ্রেড করা হবে:

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি তার অফিসিয়াল টুইটার থেকে এই বিষয়ে বিস্তারিত জানিয়েছেন, তিনি বলেছেন প্রধানমন্ত্রী স্কুল ফর রাইজিং ইন্ডিয়া আজকের ১৪,৫০০ টি স্কুলের উন্নত আর আপগ্রেড করবে, আবার অন্য একটি টুইটে তিনি জানিয়েছেন যে, রাষ্ট্রীয় শিক্ষানীতিকে মাথায় রেখে PM SHRI

যোজনার মাধ্যমে স্কুলগুলি সম্পূর্ণভাবে আধুনিক এবং একেবারে মডেল স্কুলে পরিণত করা হবে বলে তিনি উল্লেখ করেছেন। পি এম শ্রী, এই যোজনা স্কুলগুলির শিক্ষাপ্রদানের একটি আধুনিক রূপান্তর মূলক এবং সামগ্রিক পদ্ধতিতে অনুসরণ করবে বলে তিনি জানিয়েছেন।

PM SHRI YOJANA আসলে কি?

অন্যান্য যোজনার মত এটাও কিন্তু একটা যোজনা অথবা প্রকল্প। কেন্দ্র পরিকল্পনা করেছে যে, তৈরি করা হবে পি এম শ্রী স্কুল, ছাত্র-ছাত্রীদের উন্নত শিক্ষার কথা মাথায় রেখেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। এছাড়াও জাতীয় শিক্ষানীতি যাতে সম্পূর্ণভাবে প্রতিষ্ঠিত হয়, সেই উদ্দেশ্য সাধন করার জন্য এই স্কুল গুলি তৈরি করা হবে বলে জানা যাচ্ছে।

তাছাড়া শিক্ষাক্ষেত্রে আমূল পরিবর্তন অথবা বিপ্লব আনতে একেবারে অত্যাধুনিক শিক্ষা ব্যবস্থা চালু করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তিনি জানিয়েছেন যে, মূলত উদ্ভাবনী শিক্ষার উপরেই জোর দেওয়া হবে। যে পড়াশোনা থেকে প্রকৃত শিক্ষালাভ করা যায়, তাতেই থাকবে সবার থেকে বেশি গুরুত্ব।

এই শিক্ষা ব্যবস্থায় থাকবে স্মার্ট এবং ডিজিটাল ক্লাসরুম, অত্যাধুনিক প্রযুক্তি, খেলাধুলার সমস্ত রকম ব্যবস্থা থেকে আরও অত্যাধুনিক ব্যবস্থা থাকবে বলে জানা গিয়েছে, যার ফলে এখনকার বাচ্চারা যেমন অনেকটাই আধুনিক সেই অনুসারে তাদের শিক্ষাটাও অনেকটাই আধুনিক হওয়া প্রয়োজন। এছাড়া এই যোজনা কার্যকর করা হলে কয়েক লক্ষ পড়ুয়া উপকৃত হবে বলে জানা যাচ্ছে।

PM SHRI YOJANA PDF DOWNLOAD

PM SHRI YOJANA PDF NOTICE DOWNLOAD

এই যোজনা তে নতুন জাতীয় শিক্ষানীতির প্রশংসা: 

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি জানিয়েছেন যে, নতুন জাতীয় শিক্ষানীতি বর্তমান সময়ে শিক্ষাব্যবস্থাকে অনেকখানি বদলে দিয়েছে আর তাই আগামী দিনে পিএম শ্রী যোজনা এর মাধ্যমে আরো বেশি অগ্রসর হবে এই শিক্ষার জগত, এমনটাই মনে করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এর পাশাপাশি নতুন জাতীয় শিক্ষানীতির প্রশংসাও করেন তিনি।

এখানে একটি কথা উল্লেখ করে রাখা প্রয়োজন যে, এমন ধরনের স্কুলের কথা চলতি বছরের শুরুতেই জানিয়েছিলেন ধর্মেন্দ্র প্রধান। এই শিক্ষা ব্যবস্থাতে প্রাক স্কুল থেকে শুরু করে মাধ্যমিক স্তর পর্যন্ত পড়াশুনা করা যাবে বলে জানা যাচ্ছে। বিশেষ করে ছোট্ট শিশুদের জন্য বিশেষ ব্যবস্থা থাকবে, ক্লাস রুম থেকে শুরু করে শিক্ষকদের প্রশিক্ষণ সবটাই এই যোজনার মাধ্যমে করা হবে।

PM SHRI Yojana Official Notice
PM SHRI Yojana Official Notice

এমনকি অ্যাডাল্ট এডুকেশন কেও গুরুত্ব দেওয়া হবে এই প্রকল্পের মধ্যে দিয়ে। তবে এই ব্যবস্থা তে মাতৃভাষায় পড়াশুনাতে বিশেষ গুরুত্ব দেওয়া হবে, যাতে স্থানীয় ভাষার মানুষজন তাদের বাচ্চাদের মাতৃভাষায় শিক্ষা গ্রহণ করাতে অগ্রসর হতে পারবেন।

এই প্রকল্পের মাধ্যমে স্কুলগুলি জাতীয় শিক্ষানীতির আওতায় এনে ভারতের প্রায় ১৪ হাজার ৫০০ স্কুলের উন্নয়ন করা হবে, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি স্কুল গুলিকে একটি বিকল্প আধুনিক রুপান্তরিত শিক্ষা প্রদানের ক্ষেত্র হিসেবে তৈরি করতে সহায়তা করার ক্ষেত্রে এই প্রকল্প চালু করার কথা পরিকল্পনা করেছেন।

যেখানে থাকবে আধুনিক ক্লাসরুম, ডিজিটাল মাধ্যমে লেখাপড়া করা, খেলাধুলায় থাকবে আধুনিক যন্ত্রের ব্যবহার, এছাড়াও অত্যাধুনিক পরিকাঠামোর ব্যবস্থা। যেখানে সবকিছুই আধুনিক।

এই পিএম শ্রী (PM SHRI) স্কুল গুলোতে বিশেষ কি থাকছে?

অবশ্যই জানা প্রয়োজন যে, এই প্রকল্পের মধ্যে স্কুল গুলোতে কি এমন বিশেষ বিশেষত্ব থাকছে যার কারণে ছাত্রছাত্রীরা এতখানি উপকৃত হতে পারবে!  এই স্কুল গুলিতে বিশেষ বিষয় হলো এখানে সমস্ত রকম ভাষাকে গুরুত্ব দেওয়া হবে, কেননা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি মনে করেন যে, হিন্দি অথবা ইংরেজি ভাষার কাছে আরও অন্যান্য ভাষা কোন অংশে কম নয়।

এছাড়া এই সমস্ত স্কুলে আধুনিক সুবিধা গুলি সংযুক্ত থাকবে, বিশেষ করে স্কুল গুলি মডেল স্কুলে পরিণত হবে। তাছাড়া এক কথায় বলা যায় যে পিএম শ্রী (PM SHRI) যোজনার মাধ্যমে স্কুল গুলোকে একেবারে ঢেলে সাজানো হবে। যার মাধ্যমে সকলের খুবই পছন্দ হবে এই স্কুল গুলি।

এর পাশাপাশি দেশের সমস্ত শিক্ষক শিক্ষিকাদের শুভেচ্ছা জানাতে ভোলেননি আমাদের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। সকলকে সম্মান জানিয়ে তিনি লিখেছেন, মা আমাদের জন্ম দিলেও, শিক্ষক আমাদের জীবন দান করেন, তার কথায় আমরা ভালো শিক্ষক পেলে, ভালো বৈজ্ঞানিক পেলে, ভালো ডাক্তার পেলে, মনে রাখতে হবে তাদের পেছনে ভালো শিক্ষক ছিলেন।

শিক্ষক দিবসের দিনে এই ঘোষণা করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এই পরিকল্পনা ও এই প্রকল্প কতখানি সফলতা পাবে সেটা শুধু সময়ের অপেক্ষা। তবে লক্ষ লক্ষ ছাত্র-ছাত্রী এর থেকে উপকৃত হবে সেটা আশা করাই যায়।

Home Click here
Official Website Click here

Leave a Comment