শনিবার ভুলেও এই কাজগুলি করলে জীবনে নেমে আসবে অমঙ্গল

শনিবার ভুলেও এই কাজগুলি করলে জীবনে নেমে আসবে অমঙ্গল: হিন্দু ধর্মে বিভিন্ন বিধি-নিষেধের মধ্যে এমন অনেক বৈজ্ঞানিক যুক্তি রয়েছে যা মেনে চললে আমাদের শরীর মন ভালো থাকার পাশাপাশি সংসারের শান্তি বজায় থাকে। সেই কারণে প্রতিনিয়ত, প্রতিদিন কোন না কোন বিধি-নিষেধের মধ্যে দিয়ে পূজা অর্চনা পালন করা হয়, ব্রত পালন করা হয়, আর তার সুফল পাওয়া যায় জীবনে।

বিভিন্ন দেব-দেবীর মধ্যে শনিদেব হলেন ন্যায়ের দেবতা, তিনি সূর্যদেব এবং মাতা ছায়ার পুত্র। এই জগত সংসারে শনিদেব কে সকলেই খুবই ভয় করেন এবং সতর্কতা মেনে  তাকে পুজো করেন। সকলেই বলেন শনির দৃষ্টি একবার যদি কারোর উপরে পড়ে তাহলে তা থেকে সহজেই মুক্তি পাওয়া যায় না।

শনিবার ভুলেও এই কাজগুলি করলে জীবনে নেমে আসবে অমঙ্গল
শনিবার ভুলেও এই কাজগুলি করলে জীবনে নেমে আসবে অমঙ্গল

শনিদেবকে সন্তুষ্ট রাখতে সকলে কত কিছুই না পালন করে থাকেন, তার পূজা হয়ে থাকে সপ্তাহের শেষ দিন শনিবার, এই দিন আরো অনেক নিয়ম মেনে চলতে হয় সকলকেই।

প্রত্যেক শনিবার সারাদিন উপোস থেকে সন্ধের সময় মন্দিরে গিয়ে শনিদেবের পুজো অর্পণ করা, সকলেই সংসারের মঙ্গল কামনা এবং পরিবারের সুখ শান্তি বজায় রাখতে হিন্দু মহিলারা শনিদেবের ব্রত পালন করেন। উপোস থেকে পূজা করে থাকেন।

তবে শনিদেবকে সন্তুষ্ট করতে যেমন বিভিন্ন নিয়ম কানুন পালন করতে হয়, তেমনি এমন কিছু কাজ আছে যা তার পূজার দিন অর্থাৎ শনিবার না করাটাই সকলের জন্য মঙ্গলজনক।

তো চলুন তাহলে জেনে নেওয়া যাক এমন কিছু পার্শ্ববর্তী কাজ সম্পর্কে, যেগুলি শনিবার না করাটাই ভালো:

আমাদের দৈনন্দিন জীবনে বিভিন্ন জিনিসপত্রের প্রয়োজন হয়, যেগুলির উপরে নির্ভর করে আমাদের জীবনযাত্রা অতিবাহিত হয়। সেগুলি বাজার থেকে কিনে আনতে হয় ব্যবহার করতে হয় এবং ঘরে গুছিয়ে রাখতে হয় ভবিষ্যতের জন্য, তবে এমন অনেক জিনিস রয়েছে যেগুলি শনিবার ব্যবহার করা, কেনা একেবারে উচিত নয় বলে মনে করা হয়।

শনিবার কোন জিনিস গুলি আপনি কিনবেন না?

১) বাদাম:

বাদাম পুষ্টিগুণে ভরপুর একটি খাবার, প্রায় প্রতিটি বাড়িতেই থাকে। বাচ্চা থেকে বড় সকলের সুস্বাস্থ্যের দিকে খেয়াল রাখে এই বাদাম। তবে তা প্রয়োজন মত বাজার থেকে কিনে আনতে হয়।

তবে এখানে বাদামের কথা কেন বলছি, শনিবার শনিদেবের পূজার সাথে সাথে এই দিন কোনভাবেই বাদামও কিনতে নেই। তবে ঘরে থাকলে সেটা খেতেই পারেন, যদি সেটা আগে থেকে কেনা থাকে। শনিবার বাদাম কিনে ঘরে আনবেন না।

২) লবণ:

লবণ হলো আমাদের সংসারে নিত্য প্রয়োজনীয় একটি বস্তু, যেটা ছাড়া চলেই না বলতে গেলে। আর এটা বেশি পরিমাণে ব্যবহৃত হয় প্রতিটি বাড়িতে। সেক্ষেত্রে কিনে তো আনতে হবেই প্রতিনিয়ত।

তবে সপ্তাহের আরো যে কোনদিন আপনি লবণ কিনে আনলেও শনিবার অন্তত লবণ কিনে ঘরে কখনোই নিয়ে যাবেন না। এটা অমঙ্গল জনক বলে মনে করা হয়। এর পাশাপাশি শনিদেবকে সন্তুষ্ট করতে চাইলে শনিবার দিন লবণ কিনবেন না।

৩) কাঠের ফার্নিচার:

প্রতিনিয়ত কোন না কোন জিনিসপত্রের প্রয়োজন পড়ে সংসারে। তবে শনিবার কাঠের তৈরি কোন আসবাবপত্র কেনা উচিত নয়। সপ্তাহের আরও যে কোনদিন আপনি কিনতে পারেন। তবে খুব প্রয়োজন না হলে শনিবার এর এই দিনটা কাঠের জিনিসপত্র কেনা অথবা বেচা না করাই ভালো।

৪) কালো জামা অথবা জুতো:

অনেকেই আছেন যারা কালো রং খুব পছন্দ করেন, আর কালো রং শনিদেবেরও পছন্দ, তবে এখানে একটা কথা বলে রাখা জরুরী যে, কালো রঙের কোন নতুন জিনিস কেনার আগে আপনাকে মাথায় রাখতে হবে সেই দিনটা শনিবার কিনা।

শনিবার দিন কখনো শুভ হবে না আপনার জন্য, এই সমস্ত জিনিসপত্র গুলি কেনার ক্ষেত্রে। আর এই দিন কখনোই জুতো কিনবেন না, যেটা আপনার জন্য এবং আপনার সংসারের জন্য অমঙ্গলজনক।

৫) লোহার জিনিসপত্র:

লোহার জিনিসপত্র অথবা লোহার পাত্র শনিদেবের পূজায় ব্যবহৃত হয়, শনিবার চেষ্টা করবেন লোহার জিনিস কেনা থেকে দূরে থাকতে। যদি পারেন শনিবার কোন ধরনের যানবাহন না কেনাই আপনার পক্ষে শুভ। সপ্তাহের আরো যেকোন শুভদিনে আপনি এগুলি কিনতে পারেন।

৬) গোলমরিচ:

রান্নায় বিভিন্ন ধরনের মশলা ব্যবহার করা হয়। সেই সমস্ত মশলার মধ্যে গোলমরিচ হলো একটি অন্যতম আর গোলমরিচ যে কোন সময় আপনার রান্নাঘর থেকে শেষ হয়ে যেতেই পারে। তবে কখনোই সঙ্গে সঙ্গে কিনে আনার ক্ষেত্রে অসতর্ক হবেন না, খেয়াল করবেন সেই দিনটা শনিবার কিনা। শনিবার গোলমরিচ কেনা আপনার সংসারের জন্য ভালো নয়। প্রয়োজনে গোলমরিচ ছাড়াই রান্না করুন।

৭) ইলেকট্রিক জিনিসপত্র:

বর্তমান সময়ে প্রতিটি বাড়িতে ইলেকট্রিক জিনিসপত্র প্রতিনিয়ত বেড়েই চলেছে। সেটা সৌখিন কোন জিনিস হতে পারে অথবা ঘর সাজানোর কোন জিনিস, তবে শনিবার কখনোই ইলেকট্রিক জিনিসপত্র কেনা যাবে না। এই শনিবার দিনটা এড়িয়ে যাওয়াই আপনার এবং আপনার সংসারের জন্য মঙ্গল জনক।

৮) সরষের তেল:

রান্নায় সবচেয়ে যেটা প্রয়োজনীয় জিনিস হলো সেটা হলো সরষের তেল, রান্নাঘরে যদি সরষের তেল আপনার প্রয়োজন পড়ে অর্থাৎ ফুরিয়ে যায়, আর তেলের প্রয়োজন হয়, যে দিনটা আনতে যাচ্ছেন সেদিনটা যেন শনিবার না হয়।

যদি শনিবার হয়ে থাকে তাহলে সেই দিনের মতো সেদ্ধ ফুটিয়ে খান তবুও কিন্তু শনিবার সরষের তেল কিনবেন না, এমনকি সরষেও কিনবেন না, শনিদেবের পছন্দের জিনিস গুলির মধ্যে একটি হলো সরষের তেল আর শনিবার এই জিনিসটা কেনা থেকে বিরত থাকুন।

৯) বেগুন:

যারা সৌখিন খাবার খান বা মুখরোচক খাবার খেতে পছন্দ করেন, তারা প্রায়ই বেগুন পুড়িয়ে সেটা মাখা করে খেতে পছন্দ করেন। এখানে একটা কথাও খেয়াল রাখতে হবে যে, যেদিন আপনি বেগুন পুড়িয়ে মাখা করে খেতে চাইছেন, সেদিন শনি মঙ্গলবার যেন হয়ে থাকে অর্থাৎ এখনো পর্যন্ত এই দুটো দিনে বেগুন পুড়িয়ে খাওয়ার রীতি প্রচলিত রয়েছে। তবে শনিবার কখনোই বেগুন কেনা যাবে না, যদি খেতেই হয় তাহলে আগে থাকতে বেগুন ঘরেতে কিনে এনে রাখুন।

১০) কালো শস্য:

আমরা আগেই জেনেছি শনিদেবের সবচেয়ে পছন্দের জিনিস গুলির মধ্যে কালো রং, কালো শস্য এগুলি রয়েছে। রান্না ঘরে খাবার তৈরির ক্ষেত্রে কালো রঙের যত শস্য আছে, তা যদি কিনে আনতেই হয় সেগুলি যেন কখনোই শনিবারে কেনা না হয়। না হলে আপনার সংসারে অমঙ্গল নেমে আসতে পারে, আর সেটা নিশ্চয়ই আপনি কখনোই চাইবেন না, তাই না !

১১) ছাতা:

বিভিন্ন রকমের জিনিস কেনা থেকে বিরত থাকার পাশাপাশি আরও একটি জিনিস কিনতে বারণ রয়েছে এই শনিবার। গরম হোক অথবা বৃষ্টি, প্রখর রোদে যেমন প্রয়োজন তেমনি ঝমঝম বৃষ্টিতেও প্রয়োজন। সেটা হল ছাতা।

যদি থেকে থাকে খুবই ভালো, আর যদি কিনতেই হয় তাহলে শনিবার কিন্তু কখনোই ছাতা কেনা উচিত নয়। তা সে আপনি রোদ এ কষ্ট পান আর বৃষ্টিতে ভিজে যান, সেটাও অনেক ভালো, তবুও শনিবার কখনোই ছাতা কেনা উচিত নয়।

⭐ দৈনন্দিন জীবনে বিভিন্ন রকমের জিনিসপত্র যেমন প্রয়োজন পড়ে তেমনি সেই জিনিসপত্র গুলি কেনার সময় অবশ্যই কি বার পড়ছে সেটাও খেয়াল রাখবেন। শনিবার হলে এই জিনিসগুলি কেনা থেকে বিরত থাকুন। তাহলে দেখবেন শনিদেব আপনার উপরে সন্তুষ্ট থাকছেন আর সংসারের সুখ, শান্তি, সমৃদ্ধি বৃদ্ধি পাচ্ছে অহরহ।

Leave a Comment