মোদী সরকারের National Digital Health Mission কি? এই Yojana এর লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য কি?

ভারতের জনগনের উন্নত স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করতে ভারতীয় সরকার নানা প্রকার উদ্যোগ গ্রহন করেছে। এর মাঝে অন্যতম হচ্ছে National Digital Health Mission (NDHM Yojana)।

এই NDHM এর মাধ্যমে ভারতের জনগনের স্বাস্থ্য সম্পর্কিত সকল তথ্য ডিজিটাইজেশন হবে। আজ আমরা এই National Digital Health Mission (NDHM Yojana) নিয়ে আপনাদের সাথে আলোচনা করবো।

মোদী সরকারের National Digital Health Mission
মোদী সরকারের National Digital Health Mission

আমরা জানার চেষ্টা করবো National Digital Health Mission এর লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য কি ? এই প্রকল্প আমাদের কি কি সুবিধা এনে দিতে পারে। আসুন দেখে নি কি আছে এই National Digital Health Mission (NDHM Yojana) তে।

National Digital Health Mission কি?

National Digital Health Mission হলো একটি ভলেন্টারি প্রোগ্রাম যার মাধ্যমে রোগী, ডাক্তার, হাসপাতাল, ক্লিনিক, ইন্স্যুরেন্স কোম্পানী, ফার্মেসি ও অন্যান্য স্বাস্থ্য সেবা প্রদানকারী সংস্থার মধ্যে বিদ্যমান দূরুত্ব কমিয়ে এনে এক সুঁতোয় বাঁধার প্রক্রিয়া।

এটি একটি সমন্বিত প্রক্রিয়া, যার মাধ্যমে ভারতের স্বাস্থ্যসেবার সাথে জড়িত সকল শাখাকে এক হয়ে কাজ করে একটি সেতু বন্ধন তৈরি করবে।

ভারতের ৭৪ তম স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এই National Digital Health Mission শুরু হবার ঘোষনা করেন। এই National Digital Health Mission ভারতের স্বাস্থ্য ক্ষেত্রে এক বিপ্লব নিয়ে আসবে বলে বিশেষজ্ঞরা মনে করেন।

NDHM Yojana এর লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য কি?

আপনাদের সুবিধার জন্য National Digital Health Mission এর সুবিধাগুলি নিচে সম্পূর্ণ তথ্য দেওয়া আছে যা আপনাদের NDHM Yojana বুঝে উঠতে সাহায্য করবে।

১) National Digital Health Mission  প্রত্যেক ভারতীয় নাগরিকের জন্য একটি হেলথ কার্ড যার মাধ্যমে কোন নাগরিক তার চিকিৎসা সেবার জন্য সারা দেশের বিভিন্ন ডাক্তার, ডায়াগনিস্টিক সেন্টার, হাসপাতাল, ক্লিনিক ও অন্যান্য স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠানের একটি যোগবন্ধন তৈরি হয়। নাগরিকের চিকিৎসাকালীন সকল রেকর্ড তার হেলথ কার্ডে জমা থাকবে।

২) এই ডিজিটাল প্লাটফর্ম ৪ টি মূল বিষয়ের উপর নির্ভর করে।
A. প্রত্যেক নাগরিকের জন্য হেলথ আইডি
B. ব্যক্তিগত হেলথ রেকর্ড
C. ডিজিটাল ডাক্তার রেজিস্ট্রি
D. স্বাস্থ্য সেবা প্রতিষ্ঠানের রেজিস্ট্রি

৩) এই হেলথ আইডি হাসপাতাল, ডায়াগনিস্টিক সেন্টার, ফার্মেসিতে কার্যকর। স্বাস্থ্য সংক্রান্ত সমস্ত সংস্থাগুলি একত্রেই এই সার্ভিস ব্যবহার করতে পারবে।

৪) ভবিষ্যতে এই কার্ডের সেবা e-Pharmacy এবং টেকিমেডিসিন সেবায় ও কার্যকর করা হবে। বাড়িতে বসেই দেশের যে কোনো ডাক্তারের সাথে পরামর্শ করা যাবে।

৫) এই কার্যক্রম একটি সেচ্ছাসেবী কার্যক্রম, যে কেউ স্বইচ্ছায় এই কার্ড কার্যক্রমে অংশ নেবে। এর অর্থ হলো কোনো মানুষ তার ইচ্ছা অনুসারে এই যোজনাতে যুক্ত হতে পারেন। যদি ইচ্ছা না হয় যুক্ত হওয়া কোনো আবশ্যক নয়।

৬) হাসপাতাল ও ডাক্তার শুধুমাত্র ঐ ব্যক্তির অনুমতি পেলে এই কার্ডের তথ্য দেখতে পারবে।

৭) Digi Doctor প্রোগ্রামের আওতায় ভারতীয় ডাক্তাররা এই প্রোগ্রামে নিবন্ধিত হতে পারবে। ডাক্তাররা সারা দেশে অনলাইনের মাধ্যমে প্রেসক্রিপশন দিতে পারবে।

৮) পরবর্তীতে এই ব্যবস্থার প্রসারের জন্য ভারতীয় সরকারের Mobile App তৈরী করার পরিকল্পনা রয়েছে। যার দ্বারা এই ডিজিটাল সার্ভিস সুবিধা সহজেই সাধারণ মানুষ ব্যবহার করতে পারে।

৯) আয়ুস্মান ভারতের পক্ষ্য হতে জাতীয় পর্যায়ে এই উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

১০) এই প্রকল্পের অর্থায়নের জন্য ভারতের অর্থ মন্ত্রালয় ৪৭০ কোটি টাকা বরাদ্ধ দিয়েছে। তবে NHA এর চুড়ান্ত প্রস্তাবে এই বাজেট ৪০০ কোটি টাকা অতিক্রম করবে না বলে জানিয়েছে।

১১) শুধু সরকারী হাসপাতাল নয় বেসরকারী হাসপাতালও এই প্রকল্পের অন্তর্ভুক্ত হবে। যাতে করে ভারতের স্বাস্থ্য ক্ষেত্রের বড় অংশ এই প্রকল্পের আওতায় আনা সম্ভব হবে।

১২) এই প্রকল্প ভারতের স্বাস্থ্য ক্ষেত্রে এক নতুন বিপ্লব আনবে বলে জানিয়েছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

আজ আমরা ভারতের National Digital Health Mission (NDHM Yojana) নিয়ে আলোচনা করলাম। এই আলোচনায় আমরা National Digital Health Mission  (NDHM Yojana) কি,  কবে চালু হয়েছে, কি কি সুবিধা রয়েছে এ নিয়ে বিস্তারিত জানতে পারলাম। হেলথ কার্ড নিয়ে আরো বিস্তারিত জানতে আমাদের সাইটে নিয়মিত চোখ রাখুন। আমাদের লেখা নিয়ে যে কোন মন্তব্য করুন আমাদের ফেসবুক পেজে। আপনার যেকোন মন্তব্য আমরা সাদরে গ্রহন করবো।

Leave a Comment