প্রধানমন্ত্রী One Nation One Health Card যোজনা, এই কার্ড দিয়ে কিভাবে উপকৃত হবেন?

কিছুদিন ধরেই আপনারা One Nation One Health Card সম্পর্কে শুনে চলেছেন। সরকারের এই নতুন Health Card কি ? এই কার্ড দিয়ে আমরা কিভাবে উপকৃত হব? আসুন জেনে নিন সবকিছু।

কিছুদিন ধরেই খবর ভেসে আসছিলো এই Health Card সম্পর্কে। সরকারের এই যোজনা অনুসারে ভারতীয় নাগরিকের জন্য Health Card-এর ব্যবস্থা, স্বাস্থ্য উন্নয়নের জন্য করা হয়েছে যা চলবে দীর্ঘদিনের জন্য।

মোদী সরকারের One Nation One Health Card যোজনা
মোদী সরকারের One Nation One Health Card যোজনা

১৫ই আগস্ট ২০২০ ভারতীর সরকার One Nation One Health Card-এর ঘোষণা দিয়েছেন। আজ আমরা এই হেলথ কার্ড স্কিম নিয়ে জানার চেষ্টা করবো।

জানার চেষ্টা করবো এই Health Card কি? এই Health Card কিভাবে কাজ করে? এই কার্ডের নিরাপত্তা কি? এই কার্ডের সুবিধা কি পাওয়া যাবে। আসুন দেখে নি এই One Nation One Health Card এর বিস্তারত তথ্য।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ভারতের ৭৪তম স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে লাল কিলা থেকে ন্যাশেনাল ডিজিটাল স্বাস্থ্য মিশন যোজনার ঘোষনা করেছেন।

তিনি দেশের উদ্দেশ্যে ভাষন দেয়ার সময় বলেন, আজ থেকে দেশে ডিজিটাল স্বাস্থ্য মিশনের কার্যক্রম শুরু হতে যাচ্ছে। এই ডিজিটাল স্বাস্থ্য মিশন আমাদের দেশের স্বাস্থ্য ক্ষেত্রে নতুন উন্নয়ন এনে দেবে।

One Nation One Health Card কি ?

এটি ভারতের জনগনের জন্য “ ১ দেশ ১ হেলথ কার্ড”। এই ডিজিটাল কার্ড ভারতের সকল নাগরিককে করতে হবে। এই কার্ডে একজন নাগরিকের স্বাস্থ্য সম্পর্কিত সকল তথ্য থাকবে।

সেই সাথে বিগত দিনে ওই ব্যক্তি যত স্বাস্থ্যগত পরীক্ষা করিয়েছে, যে চিকিৎসা নিয়েছে তার ইতিহাস ওই ডিজিটাল কার্ডে সংরক্ষিত থাকবে।

এই কার্ডে প্রবেশের অনুমতি শুধুমাত্র অনুমোদিত ব্যক্তির থাকবে। দেশের যেকোন স্থান হতে এই কার্ডের তথ্য জানা যাবে।

কিভাবে এই  Health Card কাজ করবে?

এই প্রক্রিয়ায় সকল নাগরিককে ভারতীয় সরকার একটি আইডি নাম্বার ও হেলথ কার্ড প্রদান করবে।

ওই আইডি নাম্বার অনুযায়ী ব্যক্তি অনলাইনে তার নিজের কার্ডের তথ্য যেকোন সময় দেখতে পাবে। সেই সাথে তার সকল তথ্য জমা থাকবে।

এই Health Card-এ কিভাবে সুবিধা দেবে?

কোন নাগরিক তার স্বাস্থ্যগত পরীক্ষা করালে তার পরীক্ষার রিপোর্ট এই ডিজিটাল আইডি কার্ডে জমা হবে। শুধু তাই নয়, কোন রোগী ভারতের একপ্রান্ত হতে অন্য প্রান্তে চিকিৎসার জন্য গেলে, তাকে তার পূর্ববর্তী সকল রিপোর্ট নিয়ে যেতে হবে না।

শুধুমাত্র ডিজিটাল আইডি কার্ড হলেই যেকোন স্থান হলে ডাক্তার তার পূর্ববর্তী সকল চিকিৎসা, মেডিক্যাল রিপোর্ট দেখতে পাবে। এভাবে সকল নাগরিকের স্বাস্থ্য সংক্রান্ত ঝামেলা কমে আসবে।

সবাই কি এই কার্ড নিতে বাধ্য থাকবেন?

এই কার্ডের তথ্য আধার কার্ডের তথ্যের উপর নির্ভর করে হবে। এই প্রকল্পের মাধ্যমে হাসপাতাল, ডাক্তার, ক্লিনিক, রোগী মিলে একটা কেন্দ্রীয় সার্ভার তৈরি হবে।

মজার ব্যাপার হলো, এই ডিজিটাল স্বাস্থ্য কার্ডে যুক্ত হওয়া ব্যক্তি, হাসপাতাল, ডাক্তার, ক্লিনিক সবার ব্যক্তিগত ব্যাপার। তারা চাইলে এই “One Nation One Health Card” এর সাথে যুক্ত হতে পারে, না চাইলে না হতে পারে।

এই Health Card কিভাবে সারাদেশে সম্পন্ন হবে?

এই প্রকল্পের সাথে জড়িত বিভিন্ন ব্যক্তি হতে জানা যায় যে,  এই প্রকল্প সারা দেশে বিভিন্ন ধাপে ধাপে সম্পন্ন হবে। প্রথম ধাপের কাজ শেষ করার জন্য ৫০০ কোটি টাকা ধরা হয়েছে।

এই Health Card-এর তথ্য নিরাপত্তা আছে?

আপনি হয়তো ভাবছেন যে, এই কার্ডের তথ্যের নিরাপত্তা কিভাবে দেবে। ব্যক্তিগত তথ্যের নিরাপত্তা বর্তমানে একটি আলোচিত বিষয়। এই কার্ডের সাথে জড়িত কর্মকর্তাগন কার্ডের তথ্যের ১০০% নিরাপত্তা থাকবে বলে জানিয়েছেন।

শুধু তাই নয়, জানা গেছে যে, এই কার্ডের কার্যপরীধি ধীরে ধীরে বাড়াবার পরিকল্পনা রয়েছে। শুধুমাত্র হাসপাতাল বা ক্লিনিক নয়, ভবিষ্যতে মেডিসিন স্টোর এবং হেলথ ইন্স্যুরেন্স কোম্পানীগুলিকেও এই ডিজিটাল কার্ডের আওতায় আনার পরিকল্পনা রয়েছে।

একজন নাগরিকের তথ্যের নিরাপত্তা সবচেয়ে জরুরী। তাই এই কার্ডের তথ্য একজন ডাক্তার শুধুমাত্র তখনই দেখতে পারবে যখন ওই নাগরিক ডাক্তারকে তার হেলথ কার্ডের তথ্য জানাতে অনুমতি দেবেন। তাই বলা যায় এই কার্ডের নিরাপত্তা নিয়ে নিশ্চিন্ত থাকা যায়।

আশা করি আপনারা মোদী সরকারের এই নতুন One Nation One Health Card যোজনা সম্পর্কে জানতে পারলেন। কি এই Health Card এবং কিভাবেই বা এই কার্ড আপনাদের কাজে লাগবে। এই বিষয়ে আরো কিছু প্রশ্ন বা মন্তব্য থাকলে আমাদের কমেন্টের মাধ্যমে জানাবেন।

Leave a Comment