ব্যবসা শুরু করুন দুগ্ধ জাতীয় জিনিসপত্রের আর প্রতিমাসে কামান ৭০ হাজার টাকা

আপনি যদি কোনো ব্যবসা শুরু করতে চান আর বুঝে উঠতে পারছেন না কি করবেন। আপনার জন্য নিয়ে এই ব্যবসার প্ল্যান লাভদায়ক হবে।

আপনি দুগ্ধ জাতীয় জিনিসপত্রের ব্যবসা শুরু করতে পারেন মানে দুধের থেকে বানানো জিনিসগুলির ব্যবসা। কিছু বেসরকারি এজেন্সির রিপোর্টে জানা গেছে বর্তমান সময়ে দেশে ডেইরি প্রোডাক্ট (দুগ্ধ জাতীয় জিনিসের) চাহিদা বেড়ে চলেছে তাই এই সময় এই ব্যাবসা করা লাভবান।

ব্যবসা শুরু করুন দুগ্ধ জাতীয় জিনিসপত্রের আর প্রতিমাসে কামান ৭০ হাজার টাকা
ব্যবসা শুরু করুন দুগ্ধ জাতীয় জিনিসপত্রের আর প্রতিমাসে কামান ৭০ হাজার টাকা

এই ব্যবসা যদি ভালো করে করেন তাহলে এই ব্যবসা কখনো ফেল হবেনা। আর আপনি ৫ লক্ষ টাকা দিয়ে এই ব্যবসা শুরু করতে পারবেন আর প্রতি মাসে ৭০ হাজার টাকা পর্যন্ত কমিয়ে নিতে পারবেন।

টাকার জন্য মোদী সরকার করবে সাহায্য:

ব্যবসা তো শুরু করে ইচ্ছুক কিন্তু টাকার ব্যাপারে একটু পিছু পা হয়ে যাই, কিন্তু এই ব্যবসার জন্য মোদী সরকার আপনাকে সাহায্য করবে প্রধানমন্ত্রী মুদ্রা যোজনার দ্বারা। এই যোজনার দ্বারা আপনি ১০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত ব্যবসার লোন পেয়ে যাবেন।

(মুদ্রা লোন সম্পর্কে সমস্ত তথ্য এখানে পাবেন → ) এই লোণের সাহায্যে আপনি এই ব্যবসা শুরু করতে পারবেন।

শুধুমাত্র টাকার ব্যবস্থায় নয় সরকার আপনার ব্যবসার পুরো বিবরণ বা তথ্য দেবে, যার ফলে ব্যবসাতে অনেক সাহায্য পাবেন। কিন্তু আপনি ব্যবসা করতে চান তার জন্য নিজেকে প্রথম থেকে তৈরী রাখবেন।

ব্যবসা শুরু করুন দুগ্ধ জাতীয় জিনিসপত্রের
ব্যবসা শুরু করুন দুগ্ধ জাতীয় জিনিসপত্রের

কত টাকা লাগবে এই ব্যবসা করতে :

দুগ্ধজাত জিনিসপত্রের ব্যবসা শুরু করার আগে আপনাকে জিনিসপত্রের দাম জানা জরুরি। আপনি দই, বাটার, ফ্লেভার মিল্ক, ঘী এবং অন্নান্ন জিনিসপত্র বানিয়ে বিক্রি করতে পারবেন।

প্রধানমন্ত্রী মুদ্রা স্কীমে এই ব্যবসার প্রজেক্ট প্রোফাইল বানানো হয়েছে সেই অনুসারে এই ব্যবসা প্রায় ১৬ লক্ষ ৫০ হাজার তাকাই চালু করা সম্ভব।

আপনাকে ৫ লক্ষ টাকা লাগাতে হবে এই প্রজেক্টে বাকি ৭০ শতাংশ টাকা মুদ্রা লোনের অনুসারে ব্যাংক আপনাকে দেবে।

কত টাকার বিক্রয় হবে প্রতি বছরে :

প্রধানমন্ত্রী মুদ্রা স্কিমের এই প্রজেক্ট প্রোফাইল অনুসারে, এই ব্যবসা করলে আপনি এক বছরে প্রায় ৭৫ হাজার লিটার ফ্লেভার মিল্ক বিক্রয় করতে পারবেন।

এছাড়া প্রায় ৩৬ হাজার লিটার দই, প্রায় ৯০ হাজার লিটার বাটার মিল্ক  ৪৫০০  কিলো ঘী বানিয়ে বিক্রয় করতে পারবেন।

প্রধানমন্ত্রী মুদ্রা স্কিমের এই প্রজেক্ট প্রোফাইল অনুসারে এই  বিক্রয়ে এক বছরে প্রায় ৮২ লক্ষ ৫০ হাজার টাকার ব্যবসা হবে।

দুগ্ধ জাতীয় জিনিসপত্রের ব্যবসা
দুগ্ধ জাতীয় জিনিসপত্রের ব্যবসা

প্রতি বছর প্রায় ৮২ লক্ষ ৫০ হাজার টাকার ব্যবসা করলে আপনার বার্ষিক খরচ প্রায় ৭৪ লক্ষ ৪০ হাজার টাকা, এর সাথে লোনের ১৪ শতাংশ সুদ ও যুক্ত থাকবে। এই সব বাদ দিয়ে এক বছরে প্রায় ৮ লক্ষ ১০ হাজার টাকার পরিষ্কার লাভ থাকবে।

ব্যবসার জন্য জায়গা কত দরকার হবে :

এই ব্যবসার প্রজেক্টের জন্য প্রায় ১০০০ বর্গফুট জায়গার দরকার হবে। এই জায়গার মধ্যে প্রায় ৫০০ বর্গফুট জায়গা প্রসেসিংয়ের জন্য।

প্রায় ১৫০ বর্গফুট জায়গা রেফ্রিজারেশন রুমের জন্য। প্রায় ১৫০ বর্গফুট ওয়াশিং এরিয়ার জন্য।

অফিসের জন্য প্রায় ১০০ বর্গফুট আর বার্থরুমের জন্য প্রায় ১০০ বর্গফুট জায়গার দরকার হবে।

কি কি মেশিনপত্র লাগবে এই প্রজেক্টের জন্য :

প্রধানমন্ত্রী মুদ্রা স্কিমের এই প্রজেক্ট প্রোফাইল অনুসারে ক্রিম স্প্রেয়ার, প্যাকিং মেশিন, অটোক্লেভ, বোতল ক্যাপিং মেশিন, রেফ্রিজারেটর, ফ্রিজার, কেন কুলার, কপার বটম হিটিং বেসেল্স, স্টেইনলেস স্টিলের স্টিয়ারিং বেসেল্স, প্লাস্টিক ট্রে, ডিসপেনসার, ফিলারস, লবণ সরবরাহকারী এবং সিলারস ইত্যাদি মেশিনপত্রের দরকার হবে।

যদি আমাদের এই তথ্য আপনাদের সাহায্য করে, যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে অবশ্যই সকলের থাকে শেয়ার করবেন। আর এই ধরণের আরো তথ্যের জন্য নজর রাখবেন আমাদের ওয়েবসাইটে।

Leave a Comment