কার্তিক মাস 2023: কার্তিক মাসে তুলসী গাছ নিয়ে এই ভুল করলে জীবনে আসতে পারে মহাবিপদ

কার্তিক মাসে তুলসী গাছের পূজা অর্চনা, তুলসী গাছ প্রতিটি হিন্দু বাড়িতে সুন্দর করে লাগানো হয়, আর তার যত্নও নেওয়া হয়। শাস্ত্র মতে তুলসী গাছ বাড়িতে থাকা মঙ্গলজনক। তাছাড়া প্রায় পুজাতেই তুলসী পাতা প্রয়োজন পড়ে। কার্তিক মাসে তুলসী পুজো করার বিধান রয়েছে, তা তো আমরা সকলেই জানলাম। এই মাসে ভগবান বিষ্ণু যোগ-নিদ্রা থেকে জাগ্রত হন।

মহাবিশ্বে আনন্দ এবং করুনার সৃষ্টি রয়েছে, এই মাসে দেবী লক্ষ্মীও ভক্তদের অঢেল সম্পদ প্রদান করে থাকেন। তাছাড়া কার্তিক মাসে অর্থ এবং ধর্ম উভয় সম্পর্কিত অনেক পরীক্ষা ও নিয়ম রয়েছে। যেগুলি মেনে চললে সংসারে সুখ, শান্তি সমৃদ্ধি সর্বদাই বজায় থাকে।

কার্তিক মাসে তুলসী গাছ নিয়ে এই ভুল করলে জীবনে আসতে পারে মহাবিপদ
কার্তিক মাসে তুলসী গাছ নিয়ে এই ভুল করলে জীবনে আসতে পারে মহাবিপদ

পৌরাণিক কাহিনী এবং শাস্ত্র মতে কার্তিক মাসকে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করা হয়। এই সময়ে প্রদীপ দান করা শুভ কাজ, এর ফলে সমস্ত পাপ নাশ হয়ে যায়। এই মাসে অনেক শুভ উৎসব পালিত হয়।

বিশ্বাস অনুসারে যে ব্যক্তি এই মাসে মন্দিরে, নদীর তীরে, তুলসীর মঞ্চের সামনে এবং নিজের শোয়ার ঘরে প্রদীপ জ্বালাবেন তিনি সকল প্রকার সুখ লাভ করতে পারবেন, আবার এই কার্তিক মাস ভগবান বিষ্ণুর কাছে সবচেয়ে প্রিয় মাস।

আর এই কার্তিক মাসে তুলসী গাছ সম্পর্কিত এমন অনেক নিয়ম কানুন রয়েছে, যেগুলি মেনে চললে আপনি সর্ব সুখ লাভ করতে পারবেন। অনেকেই হয়তো এই নিয়ম কানুন সম্পর্কে অবগত নন।

তো চলুন তাহলে জেনে নেওয়া যাক, কার্তিক মাসে তুলসী গাছ সম্পর্কিত এমন অনেক নিয়ম সম্পর্কে:

১) তুলসী গাছ সম্পর্কিত নিয়ম, রীতি-নীতি:

আমরা সকলেই জানি যে, কার্তিক মাস জুড়ে তুলসি পূজার বিধান রয়েছে। এই মাসে দেবী লক্ষ্মীও কিন্তু সকল গৃহস্থ বাড়িতে গিয়ে নিজের আরাধনা নিয়ে তাদেরকে অঢেল সম্পদের মালিক করে তোলেন। যে কোন বৃহস্পতিবার তুলসী গাছ লাগানো যেতেই পারে। যদিও কার্তিক মাস এর জন্য সবচেয়ে ভালো সময়। কার্তিক মাসে তুলসী গাছের পুজো করলে বিবাহের ইচ্ছা পূর্ণ হয়।

তাছাড়া তুলসী গাছ লাগানোর জন্য বাড়ির মাঝখানে অথবা উঠানে লাগানো যেতে পারে। শোয়ার ঘরের কাছে বারান্দায় লাগানো যেতে পারে, সকালে তুলসী গাছে জল ঢেলে প্রদক্ষিণ করতে হয়, সন্ধ্যার সময় নিয়মিত ঘি এর প্রদীপ জ্বালানো খুবই ভালো। কেননা বিশ্বাস করা হয় যে, কার্তিক মাসে তুলসীর পূজো শুধুমাত্র ব্রাহ্ম মুহূর্তে করা উচিত।

এছাড়াও তুলসী দান করা শ্রেষ্ঠ দান বলে বিবেচনা করা হয়, পূজার পাশাপাশি তুলসী পূজার মন্ত্র গুলো পাঠ করতে হবে। এছাড়া মঙ্গলবার হনুমান জিকে তুলসী নিবেদন করলে সংসারে ধন-সম্পদ আসে বলে মনে করা হয়। কার্তিক মাসে খাবারে তুলসী ব্যবহার করলে কখনোই খাবারের অভাব হয় না ঘরে।

২) তুলসী পূজার সর্তকতা:

কিছু পূজা ছাড়া বেশিরভাগ বুঝাতে তুলসী পাতার প্রয়োজন পড়ে। সেই কারণে পূজার জন্য তুলসী পাতার প্রয়োজন হলে সব সময় সকালে সেটি তুলতে হবে। অন্য সময়ে তুলসী পাতা তোলা একেবারেই উচিত নয়। এছাড়া রবিবার তুলসী তলায় প্রদীপ জ্বালানো উচিত নয়।

ভগবান বিষ্ণুকে তুলসীর ডাল অর্পণ করা যেতে পারে। ভগবান গণেশ এবং মা দুর্গাকে তুলসী নিবেদন করতে কখনোই ভুলবেন না কিন্তু। তাছাড়া তুলসী পাতা কখনো বাসি হয় না, পুরানো পাতা পূজায় ব্যবহার করা যেতেই পারে। এই বিশ্বাস অনেকদিন আগে থেকেই চলে আসছে।

৩) সংক্রান্তিতে তুলসী পাতা তুলতে নেই:

হয়তো কোন পূজার জন্য তুলসী পাতার প্রয়োজন পড়ল, তবে তা বলে আপনাকে অবশ্যই তিথি নক্ষত্র এবং দিনক্ষণ দেখতে হবে। কেননা প্রতিদিন কিন্তু তুলসী পাতা তোলার নিয়ম নেই।

এমন কিছুদিন রয়েছে সেই দিন গুলিতে তুলসী পাতা তোলা একেবারেই নিষিদ্ধ। যেমন ধরুন সংক্রান্তিতে আপনি তুলসী পাতা তুলতেই পারবেন না।

৪) অতিরিক্ত জল অর্পণ নয়:

বাড়িতে তুলসী গাছ থাকলে সেই তুলসী গাছে জল দেওয়া অনেকখানি পূণ্যের কাজ এবং শুভ বলে মনে করা হয় ঘরের জন্য। তবে তুলসী গাছে অতিরিক্ত জল দান করলে সেটা হীতে বিপরীত হতে পারে।

যেমন গাছের গোড়ায় জল জমে গাছ মরে যেতেও পারে, তেমনি তুলসী গাছ মরে যাওয়ার ক্ষেত্রে আপনার সংসারে অমঙ্গল ডেকে আনতে পারে।

৫) সঠিক দিকে তুলসী গাছ লাগান:

সংসারের সুখ, শান্তি ও সমৃদ্ধির জন্য আপনি বাস্তুশাস্ত্র অনুসারে তুলসী গাছ সবসময় বাড়ির উত্তর বা উত্তর-পূর্ব দিকে লাগাতে পারেন। পুরাণের কাহিনী অনুসারে জানা যায় যে, এই দিকে দেবতাদের বাস রয়েছে।

সেই কারণে এই দিকে তুলসী গাছ লাগানো আপনার এবং আপনার পরিবারের সকলের জন্য শুভ বলে মনে করা হয়।

৬) তুলসী গাছ প্রদক্ষিণ করা:

অনেক নিয়ম-নীতি গুলির মধ্যে দিয়ে তুলসী পূজা সম্পন্ন করা হয়। তেমনি আপনি যদি প্রতিদিন তুলসীকে প্রদক্ষিণ করতে চান জল নিবেদন করার সময়, তাহলে তুলসী গাছটিকে তিনবার প্রদক্ষিণ করতে হবে, প্রথমে সূর্যকে জল নিবেদন করে তারপরে তুলসীকে জল নিবেদন করতে হবে।

৭) নৈবেদ্য তে তুলসী অর্পণ:

অনেক সময় দেখা যায় বাড়িতে যখন গাওয়া ঘি তৈরি করা হয়, মাখন থেকে ঘি তৈরি করার সময় সেই ঘিতে তুলসী পাতা দেওয়া হয়। এছাড়াও অনেক পূজার নৈবেদ্য তে, যেমন ধরুন ক্ষীর, ফল মূল, প্রসাদে তুলসী পাতা অর্পণ করলে বাড়িতে কোন রকম খাবারের অভাব দেখা দেয় না, সর্বদাই ভরা থাকে সবকিছু।

এই সমস্ত বিষয় গুলি আপনি যদি কার্তিক মাসে পালন করে থাকেন, তাহলে ভগবান বিষ্ণু সন্তুষ্ট হবেন আপনার উপরে। তুলসী গাছ নিয়ে এমন অনেক নিয়ম রয়েছে যেগুলি আপনি কার্তিক মাসে বিশেষ করে মানতে পারেন ভক্তি ভরে এবং নিষ্ঠা ভরে। এর জন্য আপনি লক্ষ্মীর আশীর্বাদ পাওয়ার পাশাপাশি জীবনের সকল বাধা বিপদ দূর করে হয়ে উঠবেন সম্পদশালী।

Leave a Comment