2022 ইন্ডিয়ান ব্যাংক বিজনেস লোন আবেদন পদ্ধতি | 2022 Indian Bank Business Loan in Bengali

Indian Bank Business Loan 2022 (ইন্ডিয়ান ব্যাংক বিজনেস লোন 2022): How to Apply for Indian Bank Business Loan? | Indian Bank Business Loan Apply Process in Bengali.

স্বচ্ছল জীবন যাপনের জন্য প্রতিনিয়ত একটা ইনকাম মানুষের প্রয়োজন হয়। সে ক্ষেত্রে চাকরি যে সবার ক্ষেত্রে হয় সেটা তো নয়, তার জন্য কেউ না কেউ কোনো না কোনো কর্ম জীবন বেছে নিয়েছেন। সেটা ছোট হোক অথবা বড়, ছোট ব্যবসা হোক অথবা বড় ব্যবসা।

তার মধ্যে দিয়ে ইনকাম করছেন এবং জীবন অতিবাহিত করছেন। তবে অনেক সময় দেখা যায় ছোট জলের ব্যবসা থেকে শুরু করে বড় কোন কোম্পানির শুরু করার জন্য অল্প কিছু হলেও পুঁজির প্রয়োজন হয়। সেই পুঁজি টুকু অনেকের কাছে থাকে না। আর তাই ব্যবসা শুরু করতে পারেন না।

Bank NameIndian Bank
Type of LoanBusiness Loan
Loan Application ProcessOnline / Offline
Official Websiteindianbank.net.in

ব্যবসার ক্ষেত্রে নিজের ইচ্ছামত কাজ করা যায় এবং তা থেকে লাভবান হওয়া যায়। আর তাই সকলের মনে একটা ইচ্ছা থাকে যে, নিজের একটা ব্যবসা হবে, যা থেকে ভালোমতো উপার্জনের মধ্যে দিয়ে জীবন অতিবাহিত করতে পারবেন। সেক্ষেত্রে কিন্তু আপনি ব্যাংক থেকে লোন নিতে পারেন। ব্যাংক ব্যবসা করার জন্য খুবই কম এবং আকর্ষণীয় সুদে লোন দিয়ে থাকে।

ব্যবসার জন্য যে সমস্ত ম্যাটেরিয়ালস আপনার প্রয়োজন, এমনকি মেশিন, ট্রেনিং এবং অন্যান্য ম্যাটেরিয়ালসের ক্ষেত্রে যতটা খরচ হয় তার উপরে লোন দিয়ে থাকে। আর তাই আপনি ইন্ডিয়ান ব্যাংক বিজনেস লোন (Indian Bank Business Loan) নিতে পারবেন খুবই সহজে।

ইন্ডিয়ান ব্যাংক বিজনেস লোন আবেদন পদ্ধতি | Indian Bank Business Loan in Bengali
ইন্ডিয়ান ব্যাংক বিজনেস লোন আবেদন পদ্ধতি | Indian Bank Business Loan in Bengali

ইন্ডিয়ান ব্যাংক গ্রাহকদের জন্য ৮.৭৫% সুদ দিয়ে বিজনেস লোন দিয়ে থাকে। সেক্ষেত্রে আপনি এই লোন এর মধ্যে দিয়ে ব্যবসার সমস্ত রকমের মেটেরিয়ালস, মেশিন এবং যদি কর্মচারী রেখে থাকেন তাদের বেতন, আর যদি কোন প্রশিক্ষণের প্রয়োজন হয়, সেটাও কিন্তু আপনি সম্পন্ন করতে পারবেন।

তো চলুন তাহলে জানা যাক, কিভাবে আপনি ইন্ডিয়ান ব্যাংক বিজনেস লোন নিয়ে নিজের একটি ব্যবসা শুরু করবেন:

ইন্ডিয়ান ব্যাঙ্ক বিজনেস লোন 2022 (Indian Bank Business Loan 2022):

ইন্ডিয়ান ব্যাঙ্ক বিজনেস লোন যেগুলি দিয়ে থাকে সেগুলি হল:

১) IB My Own Shop:

এই লোনের ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ লোন এমাউন্ট ৫০ লাখ টাকা এবং লোন পরিশোধের সময়সীমা ১২০ মাস অর্থাৎ ১০ বছর।

২) IB Doctor Plus:

সর্বোচ্চ লোন এমাউন্ট ১ লাখ টাকা এবং লোন পরিশোধের সময়সীমা ১২০ মাস অর্থাৎ দশ বছর। এবং যদি আবেদনকারী চেয়ে থাকেন বেশি মাত্রায় লোন, সেক্ষেত্রে ১০ লাখ পর্যন্ত লোন পেতে পারেন এই লোন এর মধ্যে।

৩) IB Contractors:

এই লোন নেয়ার জন্য আবেদনকারীর অনেকটা সুবিধা হতে পারে, যেমন ধরুন সর্বোচ্চ লোন এমাউন্ট ১০ লাখ টাকা থেকে শুরু করে ৫ কোটি টাকা পর্যন্ত, আপনি লোন নিতে পারবেন ব্যবসার জন্য। আর লোন পরিশোধের সময়সীমা ৮৪ মাস অর্থাৎ ৭ বছর।

৪) Treadwell:

এই লোনের সর্বোচ্চ লোন এর মাত্রা ০.১০ কোটি থেকে শুরু করে ৫ কোটি টাকা পর্যন্ত হয়। আর লোন পরিশোধের সময়সীমা ৬০ মাস অর্থাৎ ৫ বছর পর্যন্ত আপনি সময় পাবেন এই লোন পরিশোধ করার জন্য।

৫) IND SME Secure:

সর্বোচ্চ লোন এমাউন্ট ১০ লাখ টাকা এবং এই লোন পরিশোধ করতে পারবেন অনেকটা সময় নিয়ে, ১২০ মাস অর্থাৎ ১০ বছর পর্যন্ত।

৬) IB Micro:

ইন্ডিয়ান ব্যাংক এই লোন এর ক্ষেত্রে গ্রাহকদের জন্য সর্বোচ্চ ২০ লাখ টাকা পর্যন্ত লোন অফার করে থাকে। আর এই লোনের পরিশোধের সময়সীমা ৬০ মাস অর্থাৎ ৫ বছর পর্যন্ত।

৭) IND SME Mortgage:

সর্বোচ্চ লোন এমাউন্ট ১০ লাখ টাকা পর্যন্ত এবং লোন পরিশোধের সময়সীমা ১২০ মাস অর্থাৎ ১০ বছর। প্রসেসিং ১.১৮% (শতাংশ) লোন অ্যামউন্ট এর উপরে নিয়ে থাকে।

Indian Bank Business Loan আবেদনকারীর ডকুমেন্টস:

ইন্ডিয়ান ব্যাঙ্ক থেকে ব্যবসা করার জন্য যে সমস্ত ডকুমেন্টস গুলো প্রয়োজন পড়বে সেগুলি হল:

১) সম্পূর্ণ ফিলাপ করা এবং আবেদনকারীর সই করা লোন অ্যাপ্লিকেশন ফর্ম (Indian Bank Business Loan Apply Form)।

২) আবেদনকারীর পাসপোর্ট সাইজের ফটোগ্রাফ।

৩) ভোটার আইডি কার্ড, আধার কার্ড, প্যান কার্ড।

৪) পরিচয় পত্র, তার সাথে আবেদনকারীর বয়স, ইনকাম এবং ঠিকানার প্রমাণপত্র।

৫) ফার্ম অ্যাড্রেস, Establishment and Vintage Proof

৬) লাস্ট ৩ বছরের ব্যালেন্স শীট।

৭) লাস্ট বছরের আইটি রিটার্নস (IT Returns)

৮) Any Additional Documents required by the bank

ইন্ডিয়ান ব্যাংক বিজনেস লোন নেওয়ার জন্য আবেদনকারীর যোগ্যতা: 

১) আবেদনকারীর এই লোনের জন্য অবশ্যই ১৮ বছর থেকে ৬৫ বছর বয়সের মধ্যে বয়স হতে হবে।

২) আবেদনকারীকে অবশ্যই ভারতীয় নাগরিক হতে হবে।

৩) যে সমস্ত ডকুমেন্টস গুলি এর ক্ষেত্রে প্রযোজ্য সেগুলি অবশ্যই আবেদনকারীর থাকতে হবে।

ইন্ডিয়ান ব্যাংক বিজনেস লোন (Indian Bank Business Loan):

১) সুদের হার ৮.৭৫% ।

২) ছোট ব্যবসা হোক অথবা বড় ব্যবসার ক্ষেত্রে এই লোন নিতে পারবেন।

৩) ব্যবসা করার জন্য মেশিন কেনার ক্ষেত্রে এবং ব্যবসার র মেটেরিয়াল কেনার ক্ষেত্রে আপনি এই লোন নিতে পারবেন।

৪) কর্মচারী দের বেতন দেওয়া থেকে শুরু করে যেকোনো ট্রেনিং এর ক্ষেত্রে আপনি এই লোন নিতে পারবেন।

ইন্ডিয়ান ব্যাংক বিজনেস লোন আবেদন করবেন কিভাবে?

ইন্ডিয়ান ব্যাংক বিজনেস লোন নেওয়ার জন্য আপনি দুই রকম ভাবে আবেদন করতে পারবেন, অনলাইন আবেদন অথবা অনলাইন আবেদন।

Indian Bank Business Loan অনলাইন আবেদন:

Step 1. প্রথমত আপনাকে ইন্ডিয়ান ব্যাঙ্ক এর অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে যেতে হবে, https://www.indianbank.net.in/ ওয়েবসাইটের মধ্যে দিয়ে আপনি এই লোনের জন্য আবেদন করতে পারবেন।

Step 2. তারপর লোন (Loan) অপশনে গিয়ে বিজনেস লোন ( Business Loan) অপশনটি আপনাকে সিলেক্ট করতে হবে।

Step 3. এরপর এপ্লাই নাও অপশনটিতে ক্লিক করুন।

Step 4. এরপর আপনার সামনে একটি লোন অ্যাপ্লিকেশন ফর্ম (Indian Bank Business Loan Application Form) আসবে, প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টস গুলি দিয়ে ফটো এবং আবেদনকারীর সই আপলোড করে সেই লোন অ্যাপ্লিকেশন ফর্ম টি ফিলাপ করতে হবে।

Step 5. এরপর সব কিছু ভালোভাবে চেক করে নেওয়ার পর সাবমিট (Submit) বাটনে ক্লিক করুন। ইন্ডিয়ান ব্যাংক আপনার এই অ্যাপ্লিকেশনটি ভেরিফাই করবে এবং এই লোনের বিষয়ে আপনার সাথে যোগাযোগ করবে।

Indian Bank Business Loan অফলাইন আবেদন:

তাছাড়া আপনি যদি অনলাইনের বিষয়ে এতটা সচ্ছল না হন, তাহলে কিন্তু অফলাইনেও এই লোনের জন্য আবেদন করতে পারবেন অনায়াসেই। তার জন্য প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টস গুলো নিয়ে আপনার কাছাকাছি ইন্ডিয়ান ব্যাংকের যে কোন ব্রাঞ্চে গিয়ে বিজনেস লোন (Business Loan) এর জন্য আবেদন করতে হবে।

তাহলে জানা হয়ে গেল, যে কিভাবে আপনি ইন্ডিয়ান ব্যাংক থেকে ব্যবসা করার জন্য লোন পেতে পারেন অর্থাৎ বিজনেস লোন পেতে পারেন খুবই সহজ কয়েকটি পদক্ষেপ অবলম্বন করে। তাহলে আর দেরি কেন! তাই না!

নিজের একটি ব্যবসা করার স্বপ্নটাকে পূরণ করার জন্য খুব শীঘ্রই এই ব্যাংক বিজনেস লোন আপনি নিতেই পারেন। খুবই কম এবং আকর্ষণীয় সুদের হার তার সাথে সামান্য পরিমাণ ডকুমেন্টেশন এবং লোন পরিশোধের সময়সীমা আপনি হাতে অনেকটাই পাবেন।

তার ফলে ব্যবসা করার মধ্যে দিয়ে প্রতিমাসে ই এম আই (EMI)  বাবদ এই লোন আপনি পরিশোধ করতে পারবেন অনায়াসেই, কোনো রকম অসুবিধা ছাড়াই। তাছাড়া লুকানো কোন চার্জ থাকে না বললেই চলে, যেটা আপনাকে পরবর্তীতে অসুবিধায় ফেলতে পারে।

তো এইভাবে আপনি অনলাইন হোক অথবা অফলাইন, দু রকম ভাবেই এই লোনের জন্য অর্থাৎ ব্যবসা করার জন্য লোন এর আবেদন করতে পারেন। আর উদ্যোক্তা হিসেবে ছোট ব্যবসা হোক অথবা বড় ব্যবসা শুরু করতে পারবেন বেশ কিছু সময়ের মধ্যেই।

আর নিজের ব্যবসাতে নিজেই মালিক হয়ে ভালোমতো উপার্জনের মধ্যে দিয়ে নিজের ব্যবসা করার স্বপ্ন পূরণ করতে পারবেন খুব সহজে। তবে তার জন্য অবশ্যই আপনাকে উদ্যমী হতে হবে। আর আশা করি সেটা অবশ্যই আপনার পক্ষে সম্ভব হবে, না হলে ব্যবসা করার জন্য চিন্তা ভাবনা করতেন না, তাই না!

HomeClick here
Official WebsiteClick here

FAQ for Indian Bank Business Loan

ইন্ডিয়ান ব্যাংক বিজনেস লোন আবেদনকারীর বয়সসীমা কত?

ইন্ডিয়ান ব্যাংক বিজনেস লোন আবেদনকারীর এই লোনের জন্য অবশ্যই ১৮ বছর থেকে ৬৫ বছর বয়সের মধ্যে বয়স হতে হবে।

ইন্ডিয়ান ব্যাংক বিজনেস লোনের সুদের হার কত?

ইন্ডিয়ান ব্যাংক বিজনেস লোনের সুদের হার ৮.৭৫% ।

ইন্ডিয়ান ব্যাংক বিজনেস লোন কি কারণে দিয়ে থাকে?

ইন্ডিয়ান ব্যাংক ব্যবসার জন্য যে সমস্ত ম্যাটেরিয়ালস আপনার প্রয়োজন, এমনকি মেশিন, ট্রেনিং এবং অন্যান্য ম্যাটেরিয়ালসের ক্ষেত্রে যতটা খরচ হয় তার উপরে বিজনেস লোন দিয়ে থাকে।

Leave a Comment