ইনকাম ট্যাক্স রিফান্ড পাওয়ার জন্য কি করবেন? ট্যাক্স রিফান্ড প্রক্রিয়া

Income Tax Refund Process in Bengali: অতিরিক্ত ইনকাম ট্যাক্স রিফান্ড পাওয়ার জন্য সঠিক আইনি পদ্ধতি | ইনকাম ট্যাক্স নিয়ম অনুসারে ট্যাক্স রিফান্ড নেওয়ার পদ্ধতি | আসুন জেনে নিন কিভাবে আপনি আপনার ট্যাক্স রিফান্ডের জন্য আবেদন করবেন।

আয়কর বিভাগ অনুসারে আইন অনুযায়ী প্রত্যেক ব্যাক্তি তার উপার্জন এর উপর ভিত্তি করে একটি সময় সাপেক্ষ হিসাবে সরকারকে কর অথবা ট্যাক্স দিয়ে থাকে। যে ক্ষেত্রে অতিরিক্ত ট্যাক্স এর জন্য রিফান্ড অথবা সেই ট্যাক্স ফেরত পাওয়ার প্রতিশ্রুতি দেওয়ার অনুমতি দিয়ে থাকে। কর্মচারীদের জন্য জারি করা একটি এই রিফান্ডের বিষয় নিম্নলিখিত বিষয়গুলি অন্তর্গত হয়ে থাকে।

ইনকাম ট্যাক্স রিফান্ড পাওয়ার জন্য কি করবেন? জানুন ট্যাক্স রিফান্ড প্রক্রিয়া
ইনকাম ট্যাক্স রিফান্ড পাওয়ার জন্য কি করবেন? জানুন ট্যাক্স রিফান্ড প্রক্রিয়া

১) বিভিন্ন রকমের কোম্পানি তাদের কর্মচারীদের থেকে নিজেদের ট্যাক্স রিটার্ন অথবা বাঁচানোর একটি প্রমাণ পত্র প্রস্তুত করার জন্য বলে থাকে। যাতে কেটে নেওয়া সেই টক্স এর বিরুদ্ধে এমন টাকা বাঁচানোর আর নিবেশ নির্ধারিত করা যেতে পারে।

২) আয়কর অধিনিয়ম 1961 এর ধারা 237 এবং 245 ট্যাক্স ফেরত পাওয়ার সম্বন্ধিত আর এইরকম যেকোনো রিফান্ড এর ক্ষেত্রে ইনকাম ট্যাক্স আধিকারীক কে সন্তুষ্ট করার বিষয় থাকে। যাতে যে কোনো বছরের জন্য নির্ধারিত ট্যাক্স দেওয়ার পরে সেই অ্যামাউন্ট পর্যাপ্ত পরিমান ট্যাক্স এর অ্যামাউন্ট এর থেকে অনেক বেশি হয়ে যায়।

ট্যাক্স রিফান্ড এর প্রক্রিয়া কি?

১) যেকোনো নির্ধারিত ক্ষেত্রে আই টি অধিনিয়ম অনুসারে টাকা ফেরত পাওয়ার প্রতিশ্রুতি করার জন্য ফরম 30 জমা করা অবশ্যই প্রয়োজন।

২) সাধারণ পাঠ্যক্রম অনুযায়ী আয়কর রিটার্ন জমা করার সময় অথবা জমা করার সাথে সাথে একটি ট্যাক্স ফেরত দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেওয়া যেতে পারে।

৩) রিফান্ড এর জন্য কোনরকম ট্যাক্স জারি করা নেই, কেননা ভর পাই করার পর অতিরিক্ত ট্যাক্স এর রসিদ হয়ে থাকে, আর অর্জিত আয় থাকে না।

৪) রিফান্ড প্রাপ্ত করার জন্য আয়কর রিটার্ন জমা করার তারিখ থেকে চার থেকে ছয় মাস সময় লেগে থাকে।

৫) টাকা ফেরত পাওয়ার যে প্রতিশ্রুতি দেয়া হয়, সেটা মূল্যায়ন করার বছরের শেষে অথবা যে সময় দেওয়া হয়, সেই সময়ের ভিতরে, বছরের মধ্যে।

৬) যে কোন কারণের ক্ষেত্রে যদি এ বিষয়ে দেরি হয়ে থাকে, সেই মামলায় আয়কর আধিকারিকদের কাছে একটি আবেদন পত্র জমা করতে পারেন। তাছাড়া সেটিকে যাতে ৬ বছর এর আগে বাড়ানো যেতে পারে, সে বিষয়ে আবেদন করতে পারেন।

৭) রিফান্ড এর উপর সুদের জন্য বছরের প্রথম দিন থেকে ০.৫ শতাংশ প্রতি মাসে এবং ৬ শতাংশ প্রতি বছরে প্রত্যেকের কাছ থেকে নেওয়া যেতে পারে, যতক্ষণ পর্যন্ত নির্ধারিত টাকা ফেরত পাওয়া না হয়ে থাকে, ততক্ষণ পর্যন্ত।

৮) যদি এই ট্যাক্স এর অ্যামাউন্ট বর্ণনা করার ক্ষেত্রে কোনো রকম ভুল হয়ে থাকে,  তাহলে তেমন পরিস্থিতিতে ট্যাক্স ফেরত পাওয়ার উপায় ও স্বীকৃতি প্রদান করা যেতে পারে অথবা এটি অস্বীকার করাও যেতে পারে।

টি ডি এস (TDS) রিফান্ড এর প্রক্রিয়া কি?

ট্যাক্স কাটার ক্ষেত্রে অতিরিক্ত টাকা ফেরত পাওয়ার জন্য কোনরকম বিশিষ্ট ফর্ম সম্পূর্ণরূপে ফিলাপ করার কোনরকম প্রয়োজন নেই অথবা যেনো ভরা না হয়ে থাকে। যেমন ধরুন আয়কর রিটার্ন জমা করার সময় এমন করা যেতে পারে ৪ থেকে ৬ মাসের মধ্যে টি ডি এস রিফান্ড (TDS Refund) এর প্রতিশ্রুতি হওয়াটা জরুরী।

আর প্রাপ্ত হওয়া যেকোনো রিফান্ড এর উপর ৬ শতাংশ প্রতি বছরে হিসাব অনুসারে দিতে হবে। যদি ওই বছরের জন্য রিফান্ড এর তুলনায় ট্যাক্সের দশগুণ অধিক হয়ে থাকে, তো।

আইনত ভাবে আপনার অতিরিক্ত ট্যাক্স বাঁচানোর জন্য এই সমস্ত পদক্ষেপ গ্রহণ করতে পারেন। তার সাথে বিশেষভাবে খেয়াল রাখতে হবে সুদের বিষয় এবং আইনি নিয়মাবলী গুলি।

এ ছাড়াও অতিরিক্ত ট্যাক্স বাঁচানোর জন্য বা রিফান্ড পাওয়ার জন্য কোন দক্ষ উকিলের সাথে যোগাযোগ করতে পারেন। যিনি আপনার সমস্ত রকম পরিস্থিতি ও পদ্ধতির মধ্যে দিয়ে ট্যাক্স রিটার্ন অথবা রিফান্ড এর বিষয়ে সহযোগিতা করতে পারবেন।

এছাড়া প্রতি মাসে, প্রতি বছর অনুযায়ী আপনার থেকে কেটে নেওয়া ইনকাম ট্যাক্স বা অন্য কোন ট্যাক্স এর বিষয়ে ভালো ভাবে সমস্ত রকম আইনী পদক্ষেপ গুলি মাথায় রেখে ট্যাক্স রিফান্ডের বিষয়ে সচেতন হতে হবে। যা কিনা আপনার অনেকটাই সহযোগিতা করতে পারে।

রিফান্ড অথবা ট্যাক্স রিটার্ন করার জন্য সে ক্ষেত্রে চার থেকে ছয় মাস লাগতে পারে। তবে এর মধ্যে যত পরিমাণ সুদ আপনাকে প্রতি মাসে অথবা প্রতি বছর দিতে হবে সেটাও কিন্তু খেয়াল রাখা জরুরী।

Leave a Comment