হর ঘর তিরঙ্গা সার্টিফিকেট 2022 ডাউনলোড পদ্ধতি [অনলাইন রেজিস্ট্রেশন]

হর ঘর তিরঙ্গা অভিযানে যোগদান করেছেন? আপনার এই যোগদানের জন্য সরকার দিচ্ছে সরকারি সার্টিফিকেট যা আপনি অনলাইন ডাউনলোড করতে পারবেন। এখানে জানুন কিভাবে আপনি হর ঘর তিরঙ্গা সার্টিফিকেট ডাউনলোড করতে পারবেন। (Har Ghar Tiranga Certificate Download 2022 – Azadi Ka Amrit Mahotsav 2022)

বলতে গেলে স্বাধীনতা দিবসের মাস পড়ে গিয়েছে। চলতি মাসের ১৩ তারিখ থেকে ১৫ তারিখ পর্যন্ত টানা তিন দিন প্রতিটি ঘরে জাতীয় পতাকা উড়তে দেখা যাবে। হর ঘর তিরঙ্গা অভিযানের ঘোষণা সমস্ত দেশের প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদি দ্বারা করা হয়েছে।

Har Ghar Tiranga Certificate Download - হর ঘর তিরঙ্গা সার্টিফিকেট ডাউনলোড
Har Ghar Tiranga Certificate Download – হর ঘর তিরঙ্গা সার্টিফিকেট ডাউনলোড

এই অভিযান অনুসারে দেশের প্রধানমন্ত্রী সমস্ত নাগরিক কে নিজেদের ঘরে পতাকা উত্তোলন করার জন্য আহ্বান জানিয়েছেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী টুইট এর মাধ্যমে সমস্ত দেশবাসীকে জানিয়েছেন এই বার্তা।

হর ঘর তিরঙ্গা অভিযান সম্পর্কে কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য সম্পর্কে জানা যাক:- 

  • অভিযানের নাম: হর ঘর তিরঙ্গা অভিযান
  • শুরু করা হয়েছে: প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি দ্বারা
  • বর্তমান বছর: ২০২২ সাল
  • রেজিস্ট্রেশন এর তারিখ: ২২ শে জুলাই থেকে ৫ ই আগস্ট ২০২২ পর্যন্ত
  • পতাকা উত্তোলন করার সময়: ১৩ আগস্ট থেকে ১৫ ই আগস্ট ২০২২
  • অমৃত মহোৎসব: স্বাধীনতার ৭৫ তম বর্ষপূর্তি উদযাপন উপলক্ষে
  • অফিসিয়াল ওয়েবসাইট: harghartiranga.com

স্বাধীনতা দিবসের ৭৫ তম বর্ষপূর্তি উদযাপন করা নিয়ে এ বছর অনেকখানি উৎসাহ উদ্দীপনা লক্ষ্য করা যাবে প্রতিটি নাগরিকদের মধ্যে। ভারত স্বাধীন হওয়ার সেই শুভ মুহূর্ত, আনন্দদায়ক মুহূর্তকে আরো বেশি গুরুত্বপূর্ণ করে তোলার জন্য এই অভিযান চালানো হয়েছে সমগ্র দেশে। সেই কারণে প্রতিটি ঘরে পতাকা উত্তোলন করার জন্য এই অভিযানের ঘোষণা করেছেন প্রধানমন্ত্রী।

এর জন্য নোডাল আধিকারিকদের নিযুক্ত করা হয়েছে। সমস্ত লোক এই দিনের জন্য অর্থাৎ স্বাধীনতা দিবসের জন্য জাতীয় পতাকা খুবই সহজে আপনার কাছাকাছি পোস্ট অফিস / ডাকঘর থেকে কিনতে পারবেন। তার সাথে সাথে অনলাইন থেকেও কিনতে পারবেন। সেটা একটি বিকল্প হিসেবে রাখা হয়েছে।

এর জন্য সরকার দ্বারা তিন রকমের পতাকার ব্যবস্থা করা হয়েছে এবং তিনটি আলাদা আলাদা দামেও, যেমন:- ৯ টাকা, ১৮ টাকা, ২৫ টাকা। নাগরিকরা নিজেদের সুবিধামতো এবং পছন্দমত জাতীয় পতাকা কিনতে পারেন।

১৩ ই আগস্ট থেকে ১৫ ই আগস্ট ২০২২ পর্যন্ত এই মহোৎসব চলবে। যা কিনা খুবই গর্বের বিষয়। এই বিশেষ তিনদিন অনেক প্রতিযোগিতাও চলবে। যেখানে প্রতিযোগিতার মধ্যে যারা বিজয়ী হবেন রাজ্য স্তর থেকে পুরস্কার, ট্রফি অথবা আকর্ষণীয় উপহার দেওয়া হবে।

প্রতিটি ঘর যেন জাতীয় পতাকার সাথে দেখা যায়, যা কিনা দেশের জন্য খুবই গর্বের বিষয়। আর টানা তিন দিন এইটি থাকার জন্য সুন্দর দেখানোর পাশাপাশি গর্ব অনুভব হওয়াটাও স্বাভাবিক। এই অভিযানে অংশগ্রহণ করার জন্য সমস্ত দেশবাসীদের অনুরোধ করা হয়েছে, যে তারা harghartiranga.com এই ওয়েবসাইটের উপরে গিয়ে হর ঘর তিরঙ্গা অভিযানের প্রমাণপত্র অথবা সার্টিফিকেট ডাউনলোড যেনো করে নেন।

তবে কিভাবে এই হর ঘর তিরঙ্গা সার্টিফিকেট ডাউনলোড করবেন সে বিষয়ে কিন্তু অনেকেই জানেন না। তো চলুন আজকের এই লেখাটির মধ্য দিয়ে জানা যাক যে, কিভাবে আপনি এই হর ঘর তিরঙ্গা সার্টিফিকেট ডাউনলোড করবেন:-

তো চলুন জেনে নেওয়া যাক হর ঘর তিরঙ্গা অভিযান এর রেজিস্ট্রেশন কিভাবে করবেন আর সার্টিফিকেট কিভাবে ডাউনলোড করবেন:-

হর ঘর তিরঙ্গা সার্টিফিকেট ডাউনলোড পদ্ধতি:

Step 1. সবার প্রথমে আপনাকে হর ঘর তিরঙ্গা অভিযানের ওয়েবসাইট harghartiranga.com এর উপরে যেতে হবে।

Step 2. এবার দেখবেন আপনার সামনে এই ওয়েবসাইটের হোম পেজ আসবে, যেখানে আপনাকে “Pin a Flag” এর উপরে ক্লিক করতে হবে।

Har Ghar Tiranga Pinned Location - হর ঘর তিরঙ্গা পিন সেট করা
Har Ghar Tiranga Pinned Location – হর ঘর তিরঙ্গা পিন সেট করা

Step 3. ক্লিক করার পর আপনার সামনে একটি নতুন পেজ ওপেন হবে, যেখানে আপনার নাম আর মোবাইল নাম্বার দিয়ে নেক্সট (Next) বাটনের উপরে ক্লিক করতে হবে, অথবা আপনি আপনার জি-মেইল আইডি দিয়েও কন্টিনিউ করতে পারেন।

Har Ghar Tiranga Portal Login - হর ঘর তিরঙ্গা পোর্টালে লগইন করা
Har Ghar Tiranga Portal Login – হর ঘর তিরঙ্গা পোর্টালে লগইন করা

Step 4. নেক্সট (Next) বাটনে ক্লিক করার পর আপনার সামনে আর একটি পেজ ওপেন হবে এবং আপনার রেজিস্ট্রেশন সম্পূর্ণ হয়ে গেছে দেখাবে।

এই পেজে আপনি এই লেখাটি দেখতে পাবেন, Congratulations ! Your Flag has been Pinned.

Har Ghar Tiranga Certificate Download - হর ঘর তিরঙ্গা সার্টিফিকেট ডাউনলোড
Har Ghar Tiranga Certificate Download – হর ঘর তিরঙ্গা সার্টিফিকেট ডাউনলোড

এই লেখাটির ঠিক নিচেই দেখবেন “Download Certificate” অপশন রয়েছে। এখান থেকেই আপনার হর ঘর তিরঙ্গা সার্টিফিকেট ডাউনলোড করে নিতে পারবেন।

Har Ghar Tiranga Certificate - হর ঘর তিরঙ্গা সার্টিফিকেট
Har Ghar Tiranga Certificate – হর ঘর তিরঙ্গা সার্টিফিকেট

Step 5. এবার আপনার হর ঘর তিরঙ্গা সার্টিফিকেট ডাউনলোড করার জন্য ডাউনলোড সার্টিফিকেট অপশন এ ক্লিক করুন। তারপর প্রিন্ট আউট করে ও বের করে নিতে পারবেন।

জাতীয় পতাকা উত্তোলন করার কিছু নিয়ম সম্পর্কে জানা যাক: 

প্রতিটি জিনিসের কিছু না কিছু নিয়ম থাকে, তেমনি দেশের জাতীয় পতাকা উত্তোলন করার জন্য কিছু নিয়ম আমাদের পালন করতেই হয়, তাই না ! সেটা কি আপনার জানা আছে ? পতাকা তোলার সময় আপনাকে কোন কোন বিষয়ের প্রতি খেয়াল রাখতে হবে ? সেগুলো জানাটা খুবই জরুরী।

তো চলুন কোন কোন বিষয়ের প্রতি আপনাকে খেয়াল রাখতে হবে জেনে নিন:- 

  • রাষ্ট্রীয় পতাকা ফাটা  অথবা অপরিষ্কার হওয়া চলবে না।
  • পতাকার কাপড় খাদি, সুতি অথবা সিল্ক এর হতে হবে। প্লাস্টিক দিয়ে তৈরি পতাকা কখনো ই ব্যবহার করা চলবে না।
  • পতাকার উপরে কোন কিছু লেখা অথবা ছাপা থাকলে হবে না।
  • অন্য কোন পতাকা রাষ্ট্রীয় ধ্বজ থেকে উপরে রাখা যাবে না, অথবা সমান সমান রাখা যাবে না।
  • কোন রাষ্ট্রীয় শোক এর ক্ষেত্রে এই পতাকা অর্ধেক ঝুঁকিয়ে আনা যেতে পারে, তাছাড়া অন্য কোন কারণে কিন্তু ঝুঁকানো যাবে না।
  • যদি কোন ভবন এর জানালা, ব্যালকনি অথবা সামনে কোন অংশে জাতীয় পতাকা আড়াআড়িভাবে লাগানো থাকে তাহলে সেটি বিগুল আওয়াজের সাথে উত্তোলন করা যেতে পারে, আবার নামিয়ে দেওয়াও যেতে পারে।
  • যদি কোন আধিকারিকের গাড়ির উপরে পতাকা লাগানো হয়, তাহলে গাড়ির ডানদিকে অথবা একেবারে মাঝখানে লাগানো যেতে পারে।
  • কোন মঞ্চের উপরে পতাকা ওড়ানোর উপর এই বিষয়ের প্রতি খেয়াল রাখতে হবে যে, যখন বক্তা কোন মুখ্য শ্রোতার দিকে থাকবেন তখন সেই পতাকা সেই ব্যক্তির ডান দিকে অবশ্যই হতে হবে।
  • পতাকা সরকারি ভবনের উপরে রবিবার অথবা অন্য ছুটির দিনে ও সূর্যোদয় থেকে সূর্যাস্ত পর্যন্ত সময়ের মধ্যে ওড়ানো যেতে পারে।
  • বিশেষ অবসর আর নিয়মের সাথে পতাকা রাতেও কিন্তু উত্তোলন করা যেতে পারে।
  • পতাকা উত্তোলনের সময় সর্বদা স্ফূর্তীর সাথে উত্তোলন করা উচিত, আর সেই পতাকা নামিয়ে নেওয়ার সময় খুবই দুঃখের সাথে নামানো উচিত।
  • তাছাড়া জাতীয় পতাকাকে বিগুল আওয়াজের সাথে উত্তোলন করা এবং নামানো যেতে পারে।
  • পতাকা যদি অপরিষ্কার হয়ে যায় এবং কোন জায়গায় ছিঁড়ে যায়, তাহলে সেটি আর উত্তোলন না করে সম্মানের সাথে সম্পূর্ণরূপে নষ্ট করে দেওয়া উচিত।
  • জাতীয় পতাকাকে কোনদিন টেবিল ক্লথ অথবা অন্য কোন কিছু ঢাকার কাজে ব্যবহার করা যাবে না।পোশাক করা যাবে না।
  • সম্পূর্ণরূপে নষ্ট হয়ে যাওয়া জাতীয় পতাকা শ্রদ্ধার সাথে একধারে পুড়িয়ে ফেলা উচিত। তবে জনসমক্ষে জাতীয় পতাকা পোড়ানো আইনত অপরাধ।
  • জাতীয় পতাকা উত্তোলন করার সময় অবশ্যই দেখে নেবেন পতাকার গেরুয়া রং যেন উপরে থাকে।
  • পতাকা উত্তোলন করার সময় কোনভাবেই পতাকার কোন অংশ যেন মাটির কোন কাদা মাটি জলে স্পর্শ না করে, অথবা মাটিতে লুটিয়ে যেন না পড়ে, সেদিকে বিশেষভাবে খেয়াল রাখবেন।

এই সমস্ত বিষয়গুলি লক্ষ্য করলে আপনি সম্মানের সাথে এবং খুবই সুন্দরভাবে পতাকা উত্তোলন করতে পারবেন। তবে এ সমস্ত বিষয়গুলি যদি আপনার না জানা থাকে তাহলে জাতীয় পতাকার প্রতি সম্মান জানাতে, দেশের প্রতি সম্মান জানাতে গিয়ে, বিপরীতে কিন্তু আপনি তাকে অসম্মানই করতে পারেন। সেই কারণে এই বিষয়গুলি জেনে রাখা খুবই জরুরী।

আর এই বছর যেহেতু প্রতিটি ঘরে ঘরে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করার অভিযান শুরু হয়েছে, তাই এই বিষয়গুলি মাথায় রেখে তবেই ঘরে পতাকা উত্তোলন করবেন। সে ক্ষেত্রে দেশের মর্যাদা, সম্মান, শ্রদ্ধা, দেশ ভক্তি সবকিছু বজায় থাকবে, তাই না !

Leave a Comment