2022 ব্যাংক অফ মহারাষ্ট্র যানবাহন লোন আবেদন পদ্ধতি | 2022 Bank of Maharashtra Vehicle Loan in Bengali

Bank of Maharashtra Vehicle Loan 2022 (ব্যাংক অফ মহারাষ্ট্র যানবাহন লোন 2022): How to Apply for Bank of Maharashtra Vehicle Loan? | Bank of Maharashtra Vehicle Loan Apply in Bengali.

বর্তমান পরিস্থিতিতে যানবাহন ছাড়া কোনো কাজ সম্পন্ন হবেই না, সেটা আপনার ব্যক্তিগত হোক অথবা ব্যবসার ক্ষেত্রে। তার জন্য অবশ্যই আপনার গাড়ির প্রয়োজন। আপনি কোথাও ঘুরতে যাবেন সেক্ষেত্রে কিন্তু আপনার প্রাইভেট কার হোক অথবা ভাড়া করা কোন গাড়ি, তবুও তো কোনো না কোনো গাড়ি আপনার লাগবেই, তাই না।

আর সে ক্ষেত্রে নিজের ব্যক্তিগত গাড়ি সেটা দু চাকা হোক অথবা চারচাকা কিন্তু আপনার কিছু পরিমাণ টাকা কম পড়তে পারে, যেটা আপনি লোন নেওয়ার মধ্যে দিয়ে পূরণ করে থাকেন।

Bank NameBank of Maharashtra
Type of LoanVehicle Loan / Auto Loan
Loan Application ProcessOnline / Offline
Official Websitebankofmaharashtra.in

আবার অন্যদিকে দেখতে গিয়ে দেখা যায় যে কোন ব্যাক্তি গাড়ি কেনার মধ্যে দিয়ে ব্যবসা করতে চাইছেন সেখানেও কিন্তু একটু বেশি পরিমাণ টাকার প্রয়োজন হয়, যেটা বেশিরভাগ মানুষের কাছে থাকে না। তার জন্য ব্যাংক থেকে লোন নিতে হয়। আর সেটা অনেকটাই কম সুদ দিয়ে বেশ কিছু সময় হাতে পাওয়া যায়, তার মধ্যে এই লোন পরিশোধ করতে হয়।

ব্যাংক অফ মহারাষ্ট্র যানবাহন লোন আবেদন পদ্ধতি | Bank of Maharashtra Vehicle Loan in Bengali
ব্যাংক অফ মহারাষ্ট্র যানবাহন লোন আবেদন পদ্ধতি | Bank of Maharashtra Vehicle Loan in Bengali

তেমনি আপনি কিন্তু ব্যাঙ্ক অফ মহারাষ্ট্র (Bank of Maharashtra) থেকে Vehicle Loan নিতে পারবেন অনায়াসেই। যার মধ্যে দু চাকা থেকে চার চাকা এবং তার সাথে সাথে ব্যবসা করার জন্য যে সমস্ত গাড়ি ব্যবহার করা হয়ে থাকে সেগুলো এর মধ্যে পড়ে যেটা আপনার প্রয়োজনে আসবে।

সুচিপত্র

Bank of Maharashtra Vehicle Loan 2022:

১) প্রথমত আপনার ব্যক্তিগত প্রয়োজনে যেটা কিনা খুবই সাধারন গাড়ি হয়ে থাকে যেমন ধরুন বাইক (টু হুইলার) অথবা চারচাকা সেটা কার হতে পারে। যেগুলো আপনি আপনার ব্যক্তিগত প্রয়োজনে নিতে পারেন।

২) আবার ধরুন ব্যবসার ক্ষেত্রে ট্যাক্সি, ডেলিভারি ভ্যান এবং প্যাসেঞ্জার নিয়ে যাওয়ার জন্য যে গাড়িগুলো হয়ে থাকে তার সাথে সাথে Good Carrier হিসাবে যে গাড়িগুলো ব্যবহার করা হয়, ছোট করে ব্যবসার ক্ষেত্রে সেগুলো কিন্তু এই লোন এর মধ্যে পড়ে যেটা আপনি লোন এর মধ্যে দিয়ে নিতে পারবেন।

৩) আবার যে গাড়িগুলো (HCVS) এই পর্যায়ের মধ্যে পড়ে যেমন ধরুন কমার্শিয়াল গুডস ট্রানস্পর্টেশন (Commercial Goods Transportation), কনস্ট্রাকশন (Construction) এই ক্ষেত্রে যে গাড়িগুলো ব্যবহার করা হয় সেগুলি ও আপনি নিতে পারবেন এই লোন এর মধ্যে দিয়ে। মাইনিং এক্টিভিটিস (Mining Activities)।

৪) এছাড়া বড় ব্যবসার ক্ষেত্রে যেমন ধরুন প্যাসেঞ্জার বাস (Passenger Bus), সেমি লাক্সারী Semi Luxury), লাক্সারী বাস (Luxury Buses) ইত্যাদি।

ব্যক্তিগত ব্যবহারের ক্ষেত্রে Vehicle Loan:

চলুন সবার প্রথমে আমরা ব্যক্তিগত ব্যবহারের ক্ষেত্রে ব্যাবহ্রত বাহনগুলির সম্পর্কে এবং ব্যক্তিগত ব্যবহারের জন্য বাহনের লোনগুলি সম্পর্কে জেনে নি।

Bank of Maharashtra Car Loan 2022:

১) এই লোন নেওয়ার জন্য সেটা যদি চার চাকা হয়ে থাকে সে ক্ষেত্রে প্রতি ১ লাখ টাকায় ১,৫২৪ টাকা আপনাকে ই এম আই (EMI) দিতে হবে এবং এই লোনের পরিশোধের সময়সীমা আপনি পাবেন সর্বোচ্চ ৭ বছর পর্যন্ত।

২) তাছাড়া এই লোনের সুদের হার ৭.৩০% পর্যন্ত।

৩) এই লোন আপনার মাসিক ইনকাম এবং ব্যাংক ব্যালেন্সের উপরে নির্ভর করে, সেই হিসেবে কিন্তু লোন দেওয়া হয়ে থাকে ব্যাংক থেকে।

৪) আর এক্ষেত্রে আবেদনকারীর বয়স হতে হবে অবশ্যই ১৮ বছর থেকে সর্বোচ্চ ৬০ বছর বয়স পর্যন্ত।

৫) অন রোড প্রাইস হিসাবে সর্বোচ্চ গাড়ির ৯০%  দাম হিসাবে আপনি এই লোন পাবেন।

৬) এই লোন পরিশোধ করার সর্বনিম্ন সময়সীমা হল দুই বছর এবং সর্বোচ্চ সময়সীমা হল ৭ বছর।

Bank of Maharashtra Bike Loan 2022 (Two Wheeler Loan):

১) এটা কিন্তু আপনি আপনার ব্যক্তিগত প্রয়োজনে ব্যবহার করতে পারবেন। আর সেই অনুযায়ী কিন্তু ব্যাংক লোন দিয়ে থাকে।

২) বাইক লোন এর ক্ষেত্রে সুদের হার ১০.৮০% (শতাংশ) থেকে শুরু করে ১২.৮০% পর্যন্ত হয়ে থাকে। যেটা বাইক লোন এবং সুপার বাইক লোন এর ক্ষেত্রে।

৩) লোন পরিশোধের সময়সীমা হিসাবে আপনি সর্বোচ্চ পাঁচ বছর (5 years) পর্যন্ত হাতে সময় পাবেন।

৪) প্রসেসিং ফি হিসেবে ০.২৫%  পর্যন্ত আপনি দেবেন আপনার লোন এমাউন্ট এর উপরে। যেটা সর্বনিম্ন ৫০০ টাকা হয়ে থাকে।

৫) এই লোনের জন্য আবেদন করার ক্ষেত্রে অবশ্যই আবেদনকারীকে ভারতীয় নাগরিক হতে হবে এবং তার সাথে সাথে আবেদনকারীর বয়স হতে হবে ২১ বছর থেকে ৬৫ বছরের মধ্যে।

ব্যক্তিগত Vehicle Loan এই ক্ষেত্রে কি কি ডকুমেন্টস এর প্রয়োজন:

পরিচয় পত্র হিসাবে (Identity card):

১) প্যান কার্ড (PAN card)

২) ভোটার কার্ড (Voter card)

৩) কোম্পানি আইডি (Company ID)

৪) ড্রাইভিং লাইসেন্স (Driving license)

৫) পাসপোর্ট (Passport)

৬) আধার কার্ড (Aadhaar card)

ঠিকানার প্রমাণপত্র হিসাবে (Certificate of Address):

১) ভোটার আইডি কার্ড (Voter ID card)

২) টেলিফোন বিল (Telephone bill)

৩) ড্রাইভিং লাইসেন্স (Driving license)

৪) পাসপোর্ট (Passport)

৫) সেল deed (Sell deed)

৬) গ্যাস কানেকশন বিল (Gas connection bill)

৭) এলআইসি পলিসি (LIC policy)

৮) ক্রেডিট কার্ড বিল স্টেটমেন্ট (Credit card bill statement)

৯) রেন্টাল অগ্রিমেন্ট (Rental agreement)

ইনকাম প্রুফ হিসাবে (Income proof):

১) সেলারি সার্টিফিকেট (Salary Certificate)

২) লেটেস্ট পে স্লিপ (Latest pay slip)

৩) আর NBFC যে সমস্ত ডকুমেন্টস গুলি দেখতে চাইবে সেগুলি আপনার প্রয়োজন পড়বে।

Bank of Maharashtra Commercial Vehicle Loan 2022:

বাইক লোন অথবা কার লোন যার জন্য আপনার বর্তমান মাসিক ইনকাম এর উপরে নির্ভর করে আপনাকে যেমন ব্যাংক লোন দিয়ে থাকে, তেমনি তার ঠিক বিপরীত টা হয়ে থাকে Commercial Vehicle Loan এর ক্ষেত্রে।

কেননা এটা যেহেতু ব্যবসার ক্ষেত্রে প্রযোজ্য আর তাই এই লোন আপনি নিয়ে গাড়ি কিনে তা থেকে ইনকাম করে সেই ইনকামের টাকা থেকে লোন পরিশোধ করতে পারবেন। আর সেই কারণে এই লোন নেওয়া টা অনেকটাই রিস্ক হয়ে থাকে।

কারণ ব্যবসা ভালো হতে পারে অথবা খারাপ। সেক্ষেত্রে আপনাকে এমন কিছু সিকিউরিটি হিসেবে ব্যাংকের কাছে রাখতে হতে পারে যার বিনিময়ে আপনি এই লোন পেতে পারবেন। যার মধ্যে দিয়ে আপনি ব্যবসা শুরু করতে পারেন।

সেটা হতে পারে তিন চাকা অটো, ই-রিক্সা, ট্যাক্সি ডেলিভারি ভ্যান, প্যাসেঞ্জার বহন করার যে কোন গাড়ি, প্যাসেঞ্জার বাস, সেমি লাক্সারি, লাক্সারি বাস ইত্যাদি।

তার সাথে সাথে কনস্ট্রাকশন এর ক্ষেত্রে যে সমস্ত গাড়ির প্রয়োজন হয়, মাইনিং অ্যাকটিভিটিজ এর জন্য যে সমস্ত গাড়ির প্রয়োজন হয়, সেগুলো কিন্তু এই লোনের মধ্যে দিয়ে আপনি নিতে পারবেন। যেটা দিয়ে আপনি ব্যবসা করতে পারবেন।

Bank of Maharashtra Commercial Vehicle Loan নেওয়ার যোগ্যতা:

১) All Business units having constitutions

২) নিজস্ব ব্যবসার ক্ষেত্রে (Individuals)।

৩) প্রোপাইটার শিপ (Proprietorship)।

৪) পার্টনারশিপ কন্সার্নস (Partnership concerns)।

৫) কোম্পানি (Companies)।

৬) সোসাইটি ট্রাস্ট এবং ট্রান্সপোর্টেশন বিজনেস অথবা অন্যান্য যে কোন ব্যবসার ক্ষেত্রে আপনি এই লোন নিতে পারবেন, তার প্রমান পত্র আপনার থাকতে হবে।

৭) তার সাথে এই লোন নেওয়ার জন্য আবেদনকারীর অবশ্যই থাকতে হবে সাউন্ড নলেজ, এবং যে ব্যবসার জন্য এই গাড়ি নিতে চাইছেন এবং যার জন্য লোন নেবেন সেই ব্যবসা সম্পর্কে যথেষ্ট অভিজ্ঞতা থাকতে হবে।

কেননা ব্যবসার পরে আপনি যে উপার্জন টা করবেন তার উপরে কিন্তু এই লোন পরিশোধ করাটা নির্ভর করছে। সে ক্ষেত্রে অনেকটাই ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে থাকে এই লোন।

Bank of Maharashtra Vehicle Loan এর পরিমাণ:

সর্বোচ্চ ৫ কোটি টাকা পর্যন্ত হয়ে থাকে এই লোনের মাত্রা। যেটা সর্বনিম্ন ১০ হাজার থেকে শুরু করে সর্বোচ্চ ৫ কোটি টাকা পর্যন্ত হয়ে থাকে। যার মধ্যে সমস্ত রকম গাড়ি এবং ব্যবসার জন্য ব্যবহৃত বিভিন্ন রকমের গাড়ি আপনি পেয়ে যাবেন। যার মধ্যে অবশ্যই আপনি এম্বুলেন্স থেকে শুরু করে ভাড়ায় গাড়ি দেওয়ার জন্য বিভিন্ন রকমের গাড়ি পেয়ে যাবেন।

Bank of Maharashtra Vehicle Loan এর সুদের হার:

এই লোনের সুদের হার ৯.০০%  থেকে শুরু করে ১২.০০% পর্যন্ত হয়ে থাকে। যা কিনা খুবই কম এবং আকর্ষণীয়। যেটা আপনি খুব সহজে পরিশোধ করতে পারবেন।

Bank of Maharashtra Vehicle Loan পরিশোধের সময়সীমা:

এই লোন পরিশোধের সময়সীমা আপনি অনেক টাই পাবেন ৬০ মাস অর্থাৎ পাঁচ বছর পর্যন্ত। (Moratorium up to 3 months)।

Bank of Maharashtra Vehicle Loan এর মার্জিন:

নতুন যানবাহনের ক্ষেত্রে ১৫%  থেকে ২৫% পর্যন্ত মার্জিন নিয়ে থাকে এবং পুরনো গাড়ির ক্ষেত্রে ৪০% থেকে ৫০%  পর্যন্ত মার্জিন নিয়ে থাকে।

কি কি যানবাহনের জন্য এই লোন নিতে পারবেন: 

ব্যক্তিগত প্রয়োজনে টু হুইলার (Two Wheeler) থেকে শুরু করে থ্রি হুইলার (Three Wheeler), ফোর হূইলার (Four Wheeler), ট্যাক্সি, ই- রিক্সা, প্যাসেঞ্জার বহন করা সমস্ত রকমের গাড়ি, ট্যাক্সি, ডেলিভারি ভ্যান, কনস্ট্রাকশন এর ক্ষেত্রে যে সমস্ত গাড়ির প্রয়োজন হয় সেগুলি, মাইনিং অ্যাক্টিভিটিসের জন্য যে সমস্ত গাড়ির প্রয়োজন হয় সেগুলি, লাক্সারি বাস, সেমি লাক্সারি, অ্যাম্বুলেন্স ইত্যাদি।

Bank of Maharashtra Vehicle Loan আবেদন করবেন কিভাবে?

Step 1. প্রথমত আপনাকে ব্যাঙ্ক অফ মহারাষ্ট্র এর অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে ভিজিট করতে হবে, https://www.bankofmaharashtra.in/ এই ওয়েবসাইটের মধ্যে দিয়ে আপনি এই লোন এর জন্য আবেদন করতে পারবেন।

Step 2. তারপরে “Products” এই অপশনে ক্লিক করতে হবে।

Step 3. এরপর এ ক্লিক করুন “Loan” অপশনে।

Step 4. এরপর “Vehicle Loan” এই অপশনটি আপনি দেখতে পাবেন এবং সেখানে “Apply Now” এই অপশনটির উপরে ক্লিক করতে হবে।

Step 5. এরপর আপনার সামনে একটি নতুন পেজ ওপেন হবে, যেখানে আপনার নাম, পিনকোড, শহর, জেলা, আপনার জন্ম তারিখ, আপনার মোবাইল নাম্বার এবং ইমেইল আইডি এবং আরো যে সমস্ত ডকুমেন্টস গুলো প্রয়োজন পড়বে সেগুলি দিয়ে ফিলাপ করতে হবে।

Step 6. যে সমস্ত শর্ত গুলো এখানে থাকবে সেগুলো “Agree” করার পর “Click Here to Proceed” এই অপশনে ক্লিক করতে হবে।

Step 7. আপনার আবেদনটি ব্যাঙ্ক অফ মহারাষ্ট্র ভেরিফাই করবে এবং খুব তাড়াতাড়ি আপনার সাথে যোগাযোগ করবে।

তবে অবশ্যই আপনার একটা কথা মাথায় রাখতে হবে যে, ব্যবসার ক্ষেত্রে যে গাড়ির লোন আপনি নিতে চাইছেন সেটা কিন্তু নিতে গেলে আপনার কিছু সিকিউরিটি হিসেবে রাখতে হতে পারে ব্যাংকের কাছে।

যেটার উপরে ভরসা করে ব্যাংক আপনাকে এই লোন দেবে, কেননা আপনি ব্যবসা শুরু করার পর যে লাভ করবেন সেই লাভের টাকা দিয়ে এই লোন পরিশোধ করবেন সে ক্ষেত্রে এটা বিশেষভাবে গুরুত্বপূর্ণ।

HomeClick here
Official WebsiteClick here

FAQ for Bank of Maharashtra Vehicle Loan

কতটা পরিমাণ যানবাহন লোন পেতে পারি ব্যাংক অফ মহারাষ্ট্র থেকে?

ব্যাংক অফ মহারাষ্ট্র থেকে ১০ হাজার টাকা থেকে ৫ কোটি টাকা পর্যন্ত যানবাহন লোন পেতে পারেন।

ব্যাংক অফ মহারাষ্ট্র যানবাহন লোনের সুদ কত?

ব্যাংক অফ মহারাষ্ট্র যানবাহন লোনের সুদ প্রায় ৯.০০% থেকে ১২.০০% পর্যন্ত (পরিবর্তনশীল), লোন আবেদনের পূর্বে ব্যাংক থেকে বর্তমান সুদ জেনে নেবেন।

ব্যাংক অফ মহারাষ্ট্র যানবাহন লোন অ্যাপ্লিকেশন ফর্ম কোথায় থেকে পাওয়া যাবে?

ব্যাংক অফ মহারাষ্ট্র যানবাহন লোন অ্যাপ্লিকেশন ফর্ম আপনি পেয়ে যাবেন ব্যাংক অফ মহারাষ্ট্রর অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে ডাউনলোড সেকশনে।

Leave a Comment