2022 ব্যাংক অফ মহারাষ্ট্র গোল্ড লোন আবেদন পদ্ধতি | 2022 Bank of Maharashtra Gold Loan in Bengali

Bank of Maharashtra Gold Loan 2022 (ব্যাংক অফ মহারাষ্ট্র গোল্ড লোন 2022): How to Apply for Bank of Maharashtra Gold Loan? | Bank of Maharashtra Gold Loan Apply in Bengali.

সোনার অলংকার যেমন সৌন্দর্য বৃদ্ধি ঘটায়, তেমনি তার সাথে সাথে এই সোনার অলংকার আপনার অনেক খারাপ পরিস্থিতি তে, তার সাথে সাথে বিভিন্ন রকম কাজে সহযোগিতা করে থাকে। আর সেই কারণে সোনার অলংকার অনেকেই সম্পত্তি হিসেবে রেখে দেন। যেটা আপদে বিপদে অনেকটাই কাজে আসে।

এই যেমন ধরুন, হঠাৎ করে কোনো আর্থিক সমস্যা দেখা দিলে ব্যাংকে গিয়ে অলংকার গুলি বন্ধক রেখে তার বিনিময়ে কিছু টাকা নিয়ে আসা যায়। আর সেই টাকা দিয়ে আপনি আপনার প্রয়োজনীয়তা মেটাতে পারেন। সেটাকে এককথায় গোল্ড লোন (Gold Loan) বলা হয়।

Bank NameBank of Maharashtra
Type of LoanGold Loan
Loan Application ProcessOnline / Offline
Official Websitebankofmaharashtra.in

যেটা আপনি আপনার সোনার অলংকার গুলি ব্যাংকে দিয়ে তার পরিবর্তে টাকা নিচ্ছেন এবং কিছু অল্প পরিমাণ সুদ দিয়ে পরিমিত সময়ের মধ্যে সেই লোন পরিশোধ করছেন। এর মধ্যে দিয়ে আপনার সোনার অলংকার যেমন সুরক্ষিত থাকছে, তার সাথে সাথে আপনার প্রয়োজনীয় আর্থিক সমস্যা মিটে যাচ্ছে।

ব্যাংক অফ মহারাষ্ট্র গোল্ড লোন আবেদন পদ্ধতি | Bank of Maharashtra Gold Loan in Bengali
ব্যাংক অফ মহারাষ্ট্র গোল্ড লোন আবেদন পদ্ধতি | Bank of Maharashtra Gold Loan in Bengali

তো চলুন তাহলে জানা যাক, কিভাবে আপনি ব্যাংক অফ মহারাষ্ট্র থেকে গোল্ড লোন নিতে পারবে এবং তা ছাড়াও এই লোন এর অন্যান্য তথ্য সম্পর্কেও জানা যাক:

সুচিপত্র

Bank of Maharashtra Gold Loan 2022:

এই লোন আপনি হঠাৎ করে কোন টাকার প্রয়োজন পরলে, যেমন ধরুন আপনার টিউশন ফিজ, বিয়ের ক্ষেত্রে, হাসপাতালের খরচ হিসাবে, কোথাও ঘুরতে যাওয়ার জন্য, অথবা নতুন কোনো ব্যবসা শুরু করতে চাইছেন সে ক্ষেত্রেও এই লোন আপনি নিতে পারেন। কেননা খুবই কম সময়ের মধ্যে এই লোন আপনি পেয়ে যাবেন।

Bank of Maharashtra Gold Loan নেওয়ায় গ্রাহকদের সুবিধা: 

১) লোন পরিশোধের সময়সীমা:

ব্যাংক অফ মহারাষ্ট্র থেকে আপনি যদি গোল্ড লোন নিয়ে থাকেন, সেক্ষেত্রে এই লোন পরিশোধের সময়সীমা আপনি সর্বোচ্চ পাবেন যেটা, সেটা হল ১২ মাস, অর্থাৎ এক বছর। এর মধ্যে আপনাকে সুদ সমেত লোন এর অ্যামাউন্ট পরিশোধ করতে হবে।

২) সর্বোচ্চ লোন এমাউন্ট (Maximum Loan Amount):

ব্যাংক সর্বোচ্চ লোন মহা ব্যাংক স্কিম (Maha bank Scheme) থেকে ৫ লাখ টাকা সর্বোচ্চ লোন দিয়ে থাকে। তবে সেটা আপনার সোনার অলংকার এর উপরে নির্ভর করবে। কিন্তু সর্বাধিক বলতে গেলে ৫ লাখ টাকা, আপনি গোল্ড লোন হিসাবে পেতে পারেন।

৩) সর্বনিম্ন লোন এমাউন্ট (Minimum Loan Amount): 

ব্যাংক অফ মহারাষ্ট্র থেকে আপনি যখন গোল্ড লোন নেবেন, সে ক্ষেত্রে সর্বনিম্ন লোন এমাউন্ট হল ২০ হাজার টাকা। হঠাৎ আপনার অল্প কিছু টাকার প্রয়োজন পড়লে সেটা কিন্তু এই সর্বনিম্ন এবং তার মধ্যে থেকে আপনি গোল্ড লোন নিতে পারেন, যা কিনা আপনি একবছরের মধ্যে খুব সহজেই পরিশোধ করতে পারবেন এবং আপনার প্রয়োজনীয়তাও মেটাতে পারবেন।

৪) গয়নার ওপর লোনের টাকার পরিমান (The amount of loan money on jewelry): 

এই লোনের জন্য আবেদনকারীর সোনার অলংকারের প্রতি গ্রাম অনুযায়ী ২০০০ টাকা পেতে পারেন। সেক্ষেত্রে অবশ্যই সেই অলংকার গুলি ২২ ক্যারেট গোল্ড (22 carat gold) হতে হবে। যেটা মার্কেট ভ্যালু হিসাবে ৭৫%  হয়ে থাকে, সে ক্ষেত্রে যদি কোন গয়নার সাথে কোন পাথর যুক্ত থাকে সেটাও কিন্তু সেই হিসেবে ধরা হয়।

৫) গয়নার সুরক্ষা (Jewelry protection):

আপনার গোল্ড জুয়েলারি দিয়ে যেহেতু আপনি এই লোন নিচ্ছেন, সে ক্ষেত্রে ব্যাংকে আপনি অনায়াসেই আপনার সোনার অলংকার গুলি রাখতে পারবেন। কোন রকম ভয় ছাড়াই। নিশ্চিন্তে থাকতে পারবেন, কেন না এক্ষেত্রে আপনার গয়না গুলো ভালোভাবে সুরক্ষিত থাকবে।

৬) সোনার ধরন (Gold type):

সমস্ত রকমের সোনার অলংকার ব্যাংক গ্রহণ করে নেয়, এই গোল্ড লোন দেওয়ার ক্ষেত্রে। তবে প্রাইমারি গোল্ড এর জন্য কোন রকম লোন কিন্তু আপনি পাবেন না।

৭) পরিশোধের বিকল্প (Repayment Option):

আপনি এই গোল্ড লোন নিয়ে পরিশোধের সময়সীমা পাবেন ১২ মাস পর্যন্ত অর্থাৎ এক বছরের মধ্যে আপনার সুদ সমেত এই লোন পরিশোধ করতে হবে। ক্যাশ ক্রেডিট ফেসিলিটি আছে এবং প্রতিমাসে আপনি ইএমআই (EMI)  দিয়েও এই লোন পরিশোধ করতে পারেন।

ব্যাংক অফ মহারাষ্ট্র গোল্ড লোন নেওয়ার জন্য কোনরকম প্রসেসিং ফি নেয় না, তবে সেটা অনেক ক্ষেত্রে আবেদনের উপরে নির্ভর হতে পারে।

Bank of Maharashtra Gold Loan নেওয়ার জন্য যোগ্যতা:

ব্যাংক অফ মহারাষ্ট্র থেকে গোল্ড লোন নেওয়ার জন্য সেটা যে কোন অলংকার হতে পারে, অথবা গোল্ড কয়েন হতে পারে। সে ক্ষেত্রে আবেদনকারীর বয়স হতে হবে অবশ্যই ১৮ বছর থেকে ৭০ বছরের মধ্যে। তাহলেই কিন্তু মহারাষ্ট্র ব্যাংক থেকে গোল্ড লোন (Gold Loan) আপনি পেতে পারেন।

Bank of Maharashtra Gold Loan এর সুদের হার এবং অন্যান্য তথ্য:

সুদের হার: ৭.০০%

লোন পরিশোধের সময়সীমা: সর্বনিম্ন এক বছর থেকে শুরু করে সর্বোচ্চ ২৪ মাস অর্থাৎ দু’বছর, আবার ৩৬ মাসও হয়ে থাকে যেটা তিন বছর ধরা হয়।

প্রসেসিং ফি: যেটা সময় সময় চেঞ্জ হতে থাকে এবং ব্যাংকের উপরে নির্ভর করে।

গ্যারান্টার প্রয়োজন: না

প্রি ক্লোজার চার্জ: সেটা ব্যাংক নির্ধারণ করে থাকে সময় সময় ক্ষেত্রে।

Bank of Maharashtra Gold Loan আবেদন করার যোগ্যতা:

১) প্রথমত যে ব্যক্তি এই লোনের জন্য আবেদন করবেন অবশ্যই সে আবেদনকারীকে হতে হবে ১৮ বছরের।

২) যে কোন ব্যক্তি এই গোল্ড লোন এর জন্য আবেদন করতে পারেন, যদি তার কাছে সোনা, সোনার অলংকার, সোনার কয়েন, থেকে থাকে তাহলে কিন্তু সেটা সম্পত্তি হিসেবে ব্যাংকের কাছে জমা রেখে তার পরিবর্তে লোন নিতে পারবেন।

৩) যে ব্যক্তি এই লোনের জন্য আবেদন করবেন সেই ব্যক্তির রেগুলার ইনকাম থাকতে হবে। তবে এটা অপশনাল।

৪) যে ব্যাক্তি এই ব্যাংকের কাছে সেভিং একাউন্ট (Saving Account) করা আছে এবং কারেন্ট একাউন্ট (Current Account) আছে সেই ব্যক্তি এই লোনের জন্য আবেদন করতে পারবেন। সে ক্ষেত্রে অগ্রাধিকার পেতে পারেন। তবে এটাও কিন্তু অপশনাল।

Bank of Maharashtra Gold Loan আবেদনকারীর ডকুমেন্টস:

গোল্ড লোন নেওয়ার জন্য আবেদনকারীর যে সমস্ত ডকুমেন্টস এর প্রয়োজন হবে সেগুলি হল:

১) সম্পূর্ণ ফিলাপ করা এবং আবেদনকারীর সই করা গোল্ড লোন অ্যাপ্লিকেশন ফর্ম (Gold Loan Application Form)।

২) আবেদনকারীর দুটো পাসপোর্ট সাইজের ফটো।

৩) পরিচয় পত্র হিসেবে- ভোটার আইডি কার্ড, পাসপোর্ট, প্যান কার্ড, ড্রাইভিং লাইসেন্স, গভারনমেন্ট ডিপার্টমেন্ট আইডি কার্ড, আধার কার্ড।

৪) ঠিকানার প্রমাণপত্র হিসাবে- টেলিফোন বিল, লেটেস্ট ইলেকট্রিসিটি বিল, ব্যাংক অ্যাকাউন্ট স্টেটমেন্ট, লেটেস্ট ক্রেডিট কার্ড স্টেটমেন্ট, রেন্টাল অগ্রিমেন্ট।

৫) ইনকাম ফুট হিসাবে- ফর্ম 16, লেটেস্ট স্যালারি- স্লিপ, ইনকাম ট্যাক্স রিটার্ন, সেটা অবশ্যই দু বছর হতে হবে। তবে এটা অপশনাল।

Bank of Maharashtra Gold Loan Amount: 

ব্যাংক অফ মহারাষ্ট্র থেকে গোল্ড লোন নেওয়ার জন্য আপনি সর্বোচ্চ ২০ লাখ টাকা পর্যন্ত গোল্ড লোন নিতে পারবেন তবে সর্বনিম্ন গোল্ড লোন এর কোনরকম লিমিট নেই।

Bank of Maharashtra Gold Loan কিভাবে আবেদন করবেন?

এই লোন নেওয়ার জন্য আবেদনের ক্ষেত্রে আবেদনকারীকে প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টস এবং আবেদনকারীর কাছে যে সমস্ত সোনার অলংকার, সোনার কয়েন রয়েছে সেগুলি নিয়ে কাছাকাছি ব্যাংক অফ মহারাষ্ট্র এর যে কোন ব্রাঞ্চে গিয়ে এই লোনের জন্য আবেদন করতে পারেন।

আপনার সোনার অলংকার এবং সোনার কয়েন এর উপরে নির্ভর করে আপনি সর্বোচ্চ এবং সর্বনিম্ন লোন পেতে পারেন। তার সাথে সাথে মার্কেট ভ্যালু হিসাবে আপনি লোন পাবেন এবং তার সাথে সুদের হার সম্পর্কে একটা আলাদা ধারণা আপনি করতে পারবেন।

HomeClick here
Official WebsiteClick here

FAQ for Bank of Maharashtra Gold Loan

ব্যাংক অফ মহারাষ্ট্র গোল্ড লোনের সুদের হার কত?

ব্যাংক অফ মহারাষ্ট্র গোল্ড লোনের সুদের হার ৭.০% (পরিবর্তনশীল)

ব্যাংক অফ মহারাষ্ট্র গোল্ড লোনের প্রসেসিং ফিস কত?

ব্যাংক অফ মহারাষ্ট্র গোল্ড লোনের প্রসেসিং ব্যাংক সময়ে সময়ে পরিবর্তন করতে থাকে, আবেদনের সময় এই বিষয়ে ব্যাংক থেকে জেনে নেওয়া দরকার।

ব্যাংক অফ মহারাষ্ট্র গোল্ড লোন পরিশোধের সময় কত?

ব্যাংক অফ মহারাষ্ট্র গোল্ড লোন পরিশোধের জন্য ১২ মাস, ২৪ মাস, ৩৬ মাস সময় দিয়ে থাকে। গ্রাহক নিজস্য সুবিধার হিসাবে চয়ন করতে পারেন।

ব্যাংক অফ মহারাষ্ট্র গোল্ড লোন নিতে হলেগ্যারান্টার প্রয়োজন হয় কি?

না, ব্যাংক অফ মহারাষ্ট্র গোল্ড লোন নিতে হলে গ্যারান্টার প্রয়োজন হয় না।

Leave a Comment