2022 ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া এডুকেশন লোন আবেদন পদ্ধতি | 2022 Bank of India Education Loan in Bengali

Bank of India Education Loan 2022 (ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া এডুকেশন লোন 2022): How to Apply for Bank of India Education Loan? | Bank of India Education Loan Apply in Bengali.

শিক্ষা হলো জীবনের আলো, আর তাই ভালো কিছু করার উদ্দেশ্যেই হোক অথবা জীবনে প্রতিষ্ঠিত হতে শিক্ষা মানুষের জীবনে কতটা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে সেটা আমরা সবাই কমবেশি জানি। আর তাই তো গরীব হোক অথবা বড়লোক, নিজেদের পড়াশোনার পাশাপাশি নিজের সন্তানদের পড়াশোনার দিকে বেশ ভালোভাবেই খেয়াল রাখেন।

আর তাই উচ্চশিক্ষায় শিক্ষিত করতে ভালোমতো তাদের জ্ঞান অর্জনের জন্য শিক্ষার ক্ষেত্রে কিছু হলেও তো টাকার প্রয়োজন হয়, এমন অনেক মানুষ আছেন যে টাকার অভাবে পড়াশোনা মাঝপথেই ছেড়ে দিতে হয়।

Bank NameBank of India
Type of LoanEducation Loan
Loan Application ProcessOnline / Offline
Official Websitebankofindia.co.in

আর সারা জীবন এই আফসোস বয়ে বেড়াতে হয়। কিন্তু ব্যাংক থেকে যখন লোন নিয়ে আপনি খুবই কম টাকা সুদ দিয়ে ই এম আই (EMI) এর মাধ্যমে লোন পরিশোধ করে যদি পড়াশোনা করতে পারেন তাহলে এই সুযোগ কেন হাতছাড়া করবেন!

ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া এডুকেশন লোন আবেদন পদ্ধতি | Bank of India Education Loan in Bengali
ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া এডুকেশন লোন আবেদন পদ্ধতি | Bank of India Education Loan in Bengali

নিজের স্বপ্ন পূরণ, উচ্চশিক্ষায় শিক্ষিত হওয়ার ইচ্ছা, সবকিছু আপনি পূরণ করতে পারবেন ব্যাংক থেকে এডুকেশন লোন (Education Loan) নিয়ে। সে ক্ষেত্রে ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া (Bank of India) থেকে আপনি এডুকেশন লোন নিতে পারেন খুবই কম টাকা সুদ দিয়ে, আপনি এই লোন নিতে পারবেন এবং পরিশোধ করার জন্য আপনি বেশ কিছুটা সময় হাতে পাবেন।

তো চলুন তাহলে জানা যাক, আপনি কিভাবে ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া থেকে এডুকেশন লোন নেবেন এবং তা থেকে নিজের ইচ্ছা পূরণ করতে পারবে:

সুচিপত্র

Bank of India Education Loan-এর প্রকার:

ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া দুই প্রকারের এডুকেশন লোন দিয়ে থাকে। ছাত্রছাত্রীরা তাদের দরকার অনুসারে শিক্ষা লোন নিতে পারে।

১) ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া স্টার এডুকেশন লোন:

সর্বোচ্চ লোন এর মাত্রা ২০ লাখ টাকা পর্যন্ত। সুদের হার ৮.৯৫% p.a. থেকে ৯.৭৫% p.a.

২) ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া স্টার বিদ্যা লোন:

সর্বোচ্চ লোন এর মাত্রা ২০ লাখ টাকা পর্যন্ত। তার সাথে সুদের হার বলতে গেলে RBI format

ব্যাংক অফ ইন্ডিয়ার দুইরকম এডুকেশন লোন এর সুবিধা:

প্রতিটি এডুকেশন লোনের নিজস্য আলাদা আলাদা সুবিধা রয়েছে, কোন লোন আবেদনের পূর্বে এই সুবিধাগুলি জেনা নেওয়া উচিৎ।

১) ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া স্টার এডুকেশন লোন: 

এই লোন নেওয়ার ক্ষেত্রে কোনরকম প্রসেসিং ফি নেওয়া হয় না, যদি আপনি ভারতের মধ্যে পড়াশোনা করেন।

তার উপরে খুবই আকর্ষণীয় সুদের হার যা কিনা ৮.৯৫% থেকে ৯.৭৫% পর্যন্ত।

আর যদি আপনি ভারতের বাইরে কোথাও পড়াশোনা করতে চান, এই লোন নিয়ে সে ক্ষেত্রে কিন্তু প্রসেসিং ফি হিসেবে এই ব্যাংক ৩,০০০ টাকা নিয়ে থাকে।

সর্বোচ্চ লোন এর মাত্রা এর ৭.৫ লাখ টাকা অভিভাবকদের রক্ষণাবেক্ষণে রাখা হয়, যেটা সেই ছাত্র-ছাত্রী পড়াশোনা শেষ করার পর ইনকাম শুরু করে সেটা শোধ করতে পারবে সুদ সমেত।

২) ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া স্টার বিদ্যা লোন:

এই লোন  নিতে গেলে অর্থাৎ ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া স্টার বিদ্যা লোন নেওয়ার জন্য যে সুদের হার আপনি দেবেন সেটা নির্ভর করে আর বি আই (RBI format) ফরমেট এর উপর।

কোনরকম প্রসেসিং ফি নেওয়া হয়না, ভারতের মধ্যে পড়াশোনা করার জন্য।

যদি আপনি ভারতের বাইরে পড়াশোনা করেন এই লোন নিয়ে তাহলে, সেক্ষেত্রে আপনার ৫০০০ টাকা পর্যন্ত প্রসেসিং ফি দিতে হতে পারে।

এক্ষেত্রে ছাত্র-ছাত্রীর অভিভাবক, বাবা-মা এই লোনের জন্য আবেদন করতে পারেন।

তাছাড়া এই লোন পরিশোধ করার যে সময় দেওয়া হয় সেটা ছাত্র-ছাত্রী পড়াশোনা শেষ করে ইনকাম শুরু হওয়ার সাথে সাথে শুরু হয়।

সবচেয়ে কম সময় হলো এই লোন শোধ করার সেটা এক বছর।

আর এই লোন পরিশোধ করার সর্বোচ্চ সময় হল ৫ বছর।

Bank of India Education Loan নেওয়ার যোগ্যতা:

১) আবেদনকারীকে অবশ্যই সিকিওর থাকতে হবে যে তাদের এডমিশন নিয়ে, যেটা প্রফেশনাল অথবা টেকনিক্যাল কোর্স হতে হবে এবং সেটা ভারতের মধ্যে হতে পারে অথবা কোন বাইরে।

২) আবেদনকারীকে অবশ্যই ভারতীয় নাগরিক হতে হবে।

৩) আবেদনকারী অন্য কোন ব্যাংক থেকে এডুকেশন লোন নিয়ে থাকলে এই লোনের জন্য আবেদন করতে পারবেন না।

৪) আবেদনকারীর বাবা-মা অথবা অন্যকোন অভিভাবক এই লোনের জন্য co-এপ্লিকেন্ট হিসেবে  সিগনেচার করতে পারে।

৫) আবেদনকারীর কাছাকাছি কোন ব্যাংক থাকলে সে যদি ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া হয়ে থাকে তাহলে আর সেই আবেদনকারী সেখানকার স্থানীয় হয়ে থাকেন, সেক্ষেত্রে লোন খুব তাড়াতাড়ি হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

Bank of India Education Loan EMI Calculator:

ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া থেকে এডুকেশন লোন নিয়ে সেই লোনের ইএমআই ক্যালকুলেশন কিভাবে করবেন সেটা জানা যাক:

১) প্রথমত আপনাকে ব্যাংক অফ ইন্ডিয়ার অফিসের ওয়েবসাইট এ যেতে হবে, https://www.bankofindia.co.in/

২) এবং Calculator টাইপ করে সার্চ বাটনে ক্লিক করতে হবে।

৩) তারপর Calculator এর উপরে ক্লিক করুন এবারে আপনার লোন এমাউন্ট দিয়ে দিন, আর দিতে হবে সুদের হার, তার সাথে পরিশোধ করার সময়সীমা।

৪) এবারে আপনি এখানে দেখতে পাবেন যে প্রতি মাসে কত টাকা ইএমআই (EMI) দিতে হবে আপনাকে এই লোনের জন্য।

তো চলুন এবার জানা যাক, আপনি কিভাবে ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া থেকে এডুকেশন লোন এর জন্য আবেদন করবেন:

Bank of India Education Loan অনলাইন আবেদন:

১) প্রথমত আপনাকে ব্যাংক অফ ইন্ডিয়ার অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে যেতে হবে, https://www.bankofindia.co.in/

২) সেখানে Apply Now অপশনে ক্লিক করুন, তারপর loan অপশনে ক্লিক করে Education Loan এ ক্লিক করুন।

৩) একটি নতুন অ্যাপ্লিকেশন ফর্ম আপনার সামনে ওপেন হবে, সেখানে আপনার প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টস, ছবি, সিগনেচার, আপলোড করতে হবে। তারপর সবকিছু ঠিকঠাক দেখে নেওয়ার পর সাবমিট বাটনে ক্লিক করতে হবে।

৪) কয়েকদিনের মধ্যেই আপনার এই আবেদনটি ভেরিফাই হয়ে যাবে, তারপর আপনার কাছে ফোন আসবে। তার কিছুদিনের মধ্যে আপনার লোন এর অ্যামাউন্ট আপনার ব্যাংক একাউন্টে জমা হয়ে যাবে।

Bank of India Education Loan অফলাইন আবেদন:

আপনার কাছা কাছি ব্যাংক অফ ইন্ডিয়ার কোনো ব্রাঞ্চে গিয়ে এডুকেশন লোন এর জন্য আপনি আবেদন করতে পারবেন, তাছাড়া হেল্প লাইন নাম্বার (টোল ফ্রি) এ ফোন করেও আপনি এই লোনের জন্য আবেদন করতে পারবেন।

1800 103 1906 (Toll-free), 1800 220 229 (Toll-free-Covid Support)/ (022) – 40919191 (Chargeable number) এই নাম্বারগুলোতে ফোন করেও আপনি এই লোনের জন্য আবেদন করতে পারেন অথবা তথ্য জানতে পারেন। এই নাম্বার গুলো ২৪/৭ এভেলেবেল থাকে।

Bank of India Education Loan নেওয়ার জন্য ডকুমেন্টস:

১) পরিচয় পত্র হিসেবে- পাসপোর্ট, প্যান কার্ড, ভোটার আইডি কার্ড, ইত্যাদি।

২) ঠিকানার প্রমাণপত্র হিসাবে- রেশন কার্ড, পাসপোর্ট, ভোটার আইডি কার্ড, ইত্যাদি।

৩) এডুকেশন ডকুমেন্টস হিসাবে- মাধ্যমিক এবং উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার মার্কশীট ও ডিগ্রী সার্টিফিকেটস্।

৪) ইনকাম সার্টিফিকেট হিসাবে- ফর্ম 60, ফর্ম 16, প্যান কার্ড, ইনকাম ট্যাক্স রিটার্ন, স্যালারি স্লিপ, ইত্যাদি।

৫) সম্পূর্ণ ফিলাপ করা এবং তার সাথে আবেদনকারী এবং কো-এপ্লিকেন্ট এর সই করা লোন অ্যাপ্লিকেশন ফর্ম।

সেন্ট্রাল গভর্নমেন্ট ইন্টারেস্ট সাবসিডি স্কিম, এডুকেশন লোন এর ক্ষেত্রে:

ইকনোমিক্যালি ওয়েকার সেকশন এর ক্ষেত্রে এডুকেশন লোন এর জন্য কিছুটা হলেও ছাড় রয়েছে (Central Government Interest Subsidy Scheme), মিনিস্ট্রি অফ হিউম্যান রিসোর্স ডিপার্টমেন্ট, গভমেন্ট অফ ইন্ডিয়া এডুকেশন লোন এর জন্য সুদের হার কিছুটা পরিমাণ কম রেখেছে।

এই লোন অ্যাপ্রুভ হয় কোন প্রফেশনাল কোর্স করার ক্ষেত্রে এবং সেটা হতে হবে অবশ্যই ভাল প্রতিষ্ঠিত ইনস্টিটিউট থেকে। আর সে ক্ষেত্রে সুদ এর পরিমাণ অনেকটাই কম করা হয়।

আর এই ছাড় অথবা সাবসিডি দেওয়া হয়ে থাকে সেই সমস্ত ছাত্র-ছাত্রীদের, যাদের অভিভাবক অথবা বাবা-মা এর ইনকাম বছরে ৪.৫০ লাখ টাকা হয়ে থাকে।

এ লোন নেওয়ার পর পড়াশোনার শেষে চাকরি পাওয়ার পর থেকে এক বছর থেকে ছয় বছর পর্যন্ত সময় দেওয়া হয়। এই লোন পরিশোধ করার যত তাড়াতাড়ি সম্ভব আপনি এই লোন পরিশোধ করে দিতে পারলে সেটা আপনার ক্ষেত্রে বেশি সুবিধাজনক।

HomeClick here
Official WebsiteClick here

FAQ for Bank of India Education Loan

ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া কত টাকা এডুকেশন লোন দিয়ে থাকে?

আবেদন কারির যোগ্যতা এবং লোনের ডিমান্ড এর উপরে নির্ভর করে লোনের অ্যামাউন্ট, তাছাড়া ২০ লাখ টাকা পর্যন্ত আপনি লোন নিতে পারবেন।

ব্যাংক অফ ইন্ডিয়ার শিক্ষা লোনের সুদের হার কত?

ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া শিক্ষা লোনের সুদের হার 8.95% থেকে শুরু হয়ে থাকে কিন্তু শিক্ষা লোনের বিভিন্ন প্রকার থাকার কারণে সুদের হার পরিবর্তন হতে দেখা যায় কিছু কিছু শিক্ষা লোনের সুদের হার 9.75% হয়ে থাকে। একনজরে বলা যেতে পারে এই লোনের সুদের হার 8.95% থেকে 9.75% মধ্যে থাকে।

এডুকেশন লোনের প্রসেসিং ফি কেমন?

বেশিরভাগ এডুকেশন লোনের প্রসেসিং ফি নেই বললেই চলে, কিন্তু এটা একদমই নেই সেটা বলা চলবে না কারণ বিভিন্ন ব্যাংক তাদের নিয়ম অনুসারে প্রসেসিং ফি ফের বদল করতে থাকে কোন ব্যাংক ফ্রিতে দেয় কোন ব্যাংক এর জন্য প্রসেসিং ফি নেই। তাই প্রসেসিং ফি নির্ভর করে ব্যাংকের ওপর।

Leave a Comment