Bangla Bhumi - Bengali Business - Latest Loan - Bank Updates - Mutual Fund & Insurance

Bangla Bhumi - Bengali Business - Latest Loan - Bank Updates - Mutual Fund & Insurance

BanglarBhumi, Khatian and Plot Information, Bangla Land and Property Guide, Jomir Tathya, Government Schemes News, Loan, Bank, Mutual Fund, Insurance and Startup Business News in Bangla. Bengali Guide for Ancestral Property Laws, Land Inheritance Laws, Property Partition, Property Investments.

Join Bangla Bhumi Telegram Channel আমাদের Telegram Channel জয়েন করুন

Mudra Loan-এর উদ্দেশ্য কি ? সরকারের বিনা গ্যারেন্টি 10 লক্ষ টাকার মুদ্রা লোনের সম্পর্কে জেনে নিন


Know Everything About Mudra Loan in Bengali - PM Mudra Loan Apply Online
Know Everything About Mudra Loan in Bengali - PM Mudra Loan


আপনি ব্যবসা করতে চান কিন্তু ব্যবসার মূলধন না থাকায় ব্যবসাশুরু করতে পারছেন না অথবা ব্যবসা কে আরো বড় করতে পারছেন না। এদিক ওদিক চেষ্টা করেও যোগাড় করতে পারছেন না আপনার ব্যবসার জন্য জরুরি মূলধন। আপানার জন্য সুখবর নিয়ে এসেছে, প্রধানমন্ত্রী মুদ্রা লোন। এই মুদ্রা লোনের আওতায় আপনি বিনা গ্যারেন্টি সর্বাধিক 10 লক্ষ টাকার লোন নিতে পারবেন। আসুন দেখে নি মুদ্রা লোন কি? মুদ্রা লোন কিভাবে নিতে হয়? মুদ্রা লোন পেতে কি কি কাগজপত্র দরকার হয়? 


মুদ্রা লোন কি ?

মুদ্রা লোন ২০১৫ সাল থেকে চালু হওয়া ভারতীর সরকারের উদ্যোগে একটি বিশেষ ঋন ব্যবস্থা। এর সাহায্যে কোন জামানত ছাড়াই (বিনা গ্যারেন্টি) কোন ব্যক্তি ব্যাংক হতে সর্বাধিক ১০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত ঋন পেতে পারে।  জামানত ছাড়াই এই ঋন নেয়া যায় বলে অনেকের জন্য এই ঋন নেয়া সুবিধা জনক। এই ঋন বিভিন্ন ব্যাংক থেকে পেতে পারেন। সাধারনত ছোট উদ্যোক্তাদের সহায়তা দিতে সরকারের পক্ষ হতে এই ঋনের ব্যবস্থা করা হয়েছে। এই ঋন প্রকল্পের নাম প্রধানমন্ত্রী মুদ্রা যোজনা। এই ঋন প্রকল্পের আওতায় যে কোন ভারতীয় নাগরিক তার ব্যবসা শুরু করার জন্য ঋন চাইতে পারে। বিদ্যমান ব্যবসা বৃদ্ধি করার জন্যও এই ঋনের জন্য আবেদন করা যায়। নতুন ব্যবসা শুরু করতে ব্যক্তির ব্যবসার পরিকল্পনা, ভবিষ্যৎ সম্ভব্য আয়ের কাগজপত্র এবং বিদ্যমান ব্যবসা সম্প্রসারন করতে ব্যবসা সংক্রান্ত পূর্বের কাগজপত্রও সাথে জমা দিতে হয়। 


মুদ্রা লোনের উদ্দেশ্যঃ 

ভারতীয় সরকার জনগনকে নিজে প্রতিষ্ঠির হতে সহায়তা করতে এবং ছোট ব্যবসায়ীদের আরো বড় মুলধন নিয়ে ব্যবসা সম্প্রসারন করতে এই ঋন চালু করেছে। এই ঋনের মাধ্যমে ভারতের অনেক যুবক তার কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করতে পেরেছে। 


মুদ্রা লোনের বৈশিষ্ট্যঃ

মুদ্রা লোনের কিছু বৈশিষ্ট্য নিচে দেয়া হলো

১) এই মুদ্রা ঋনের কোন নির্দিষ্ট সুদের হার নেই। বিভিন্ন ব্যাংকে এই ঋনের জন্য বিভিন্ন সুদের হার নির্ধারন করতে পারে। এই সুদের হার সাধারনত ব্যবসার প্রকৃতি এবং ব্যবসার ঝুঁকির উপর নির্ভর করে থাকে। এই মুদ্রা লোনের সুদের হার বার্ষিক ১০-১২ শতাংশ হয়ে থাকে। 

২) এই ঋনের জন্য কোন জামানতের প্রয়োজন হয়না। 

৩) এই ঋনের জন্য কোম প্রসেসিং ফি নাই। 

৪) এই ঋনের মেয়াদ ৫ বছর পর্যন্ত বাড়ানো যেতে পারে। 

এই মুদ্রা ঋনের আবেদনের জন্য কি কি দরকার হয়?

এই লোনের জন্য আপনাকে আপনার ব্যবসার পরিকল্পনা জমা দিতে হবে। এজন্য আপনাকে আপনার ব্যবসার পরিকল্পনা প্রস্তুত করতে হবে। আপনার ব্যবসার পরিকল্পনার সাথে আপনার ব্যবসার প্রতিবেদন, ভবিষ্যতের আয় সম্পর্কিত পরিকল্পনা ইত্যাদি জমা দিতে হবে। এতে করে ব্যাংক কর্মকর্তা আপনার ব্যবসার গতিবিধি এবং আপনার ব্যবসায় কত টাকা লোন লাগবে, এই লোন আপনার কি উপকারে আসবে, এই লোন আপনি কিভাবে শোধ করবেন তার ধারনা পাবে। 




মুদ্রা লোনের জন্য আবেদন কিভাবে করবেন?

আপনি এই মুদ্রা ঋনের জন্য কোন ব্যাংকে আবেদন করবেন সেটা বেছে নিতে হবে। আপনি চাইলে কয়েকটি ব্যাংকেও আবেদন করতে পারবেন। প্রয়োজনীয় কাগজপত্র সহ আপনার আবেদনপত্রটি আপনার পছন্দের ব্যাংকে জমা দেবেন। যদিও আপনার ব্যবসার ধরন অনুযায়ী আপনার কাগজপত্রের চাহিদা পরিবর্তিত হতে পারে, তবুও আপনাদের জন্য কিছু প্রচলিত কাগজপত্রের তালিকা দেয়া হলো। 

১) আবেদনকারীর পরিচয় সম্বলিত কাগজপত্র যেমন, PAN কার্ড, আধার কার্ড, ভোটার আইডি কার্ড, ইত্যাদি।

২) ব্যবসার মালিকানার দলিল।

৩) কর সংক্রান্ত কাগজপত্র।

৪) ব্যবসার লাইসেন্স। 

৫) ঠিকানা প্রমানের জন্য বিদ্যুৎ বিল, টেলিফোন বিলের কপি।

৬) ব্যবসার যে সংক্রান্ত কাজে আপনি ঋন নিতে চান তার বিষদ ব্যাখ্যা। 

৭) ব্যবসা সংক্রান্ত বিগত দিনের কাগজপত্র।

৮) ২ লক্ষ টাকার উপরে ঋন হলে গত ২ বছরের ব্যালান্স শিট। 

৯) ঋন নেয়ার পর সম্ভব্য ব্যালান্স শিট।

আপনার আবেদনপত্র ও সাথে জমাকৃত কাগজপত্র যাচাই করে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ আপনার ঋনটি অনুমোদন দেয়া হবে কিনা জানিয়ে দেবে। আপনার আবেদন অনুমোদিত হলে আপনাকে এইটি মুদ্রা কার্ড দেওয়া হবে যার দ্বারা লোনের রাশি ব্যবহার করতে পারবেন। 

আরো পড়ুন: দেশের সবথেকে বড় ক্যান্সার হাসপাতাল, ফিস মাত্র ১০ টাকা - জানুন কোথায় আছে

আজ আমরা কেন্দ্র সরকারের মুদ্রা লোন কি, কিভাবে এই লোন নিতে হয়, এই লোন নিতে কি কি যোগ্যতা দরকার হয়, এই লোনের আবেদনের সাথে কি কি কাগজপত্র জমা দিতে হয়। আগামীতে আমরা আরো অনেক লোন নিয়ে জানবো। লোন নিয়ে আরো জানতে নিয়মিত চোখ রাখুন আমাদের সাইটে। আমাদের লেখা নিয়ে যে কোন মন্তব্য আমাদের কমেন্ট করে বা আমাদের ফেসবুক পেজে জানাবেন। আপনাদের মন্তব্য আমরা সবসময় সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে দেখে থাকি।


সরকারি যোজনা ছাড়াও বিভিন্ন রকমের Invesments, Insurance, Loan, LIC Policy, Mitual Funds ইত্যাদি Financial ব্যাপারে বাংলাতে জানার জন্য আমাদের ওয়েবসাইটে নজর রাখুন। এখানে পাবেন এই সকল বিষয়ে দুর্দান্ত গাইড যা আপনাকে আপনার টাকা সুরক্ষিত ভাবে বিনিয়োগ এবং অন্যান্য ব্যাপারে সাহায্য করবে। আপনাদের যে কোন পরামর্শ, প্রশ্ন আমাদের কমেন্টের মাধ্যমে জানানোর জন্য অনুরোধ করা হলো।

1 comment: