Bengali Business News - Latest Loan News - Bank Updates - Mutual Fund and Insurance News

West Bengal Government Schemes News, Loan, Bank, Mutual Fund, Insurance and Startup Business News of West Bengal.

Four Wheeler Loan: চার চাকার গাড়ির লোনের জন্য কিভাবে আবেদন করবেন? জেনে নিন সবকিছু

What is Four Wheeler Loan? How to Apply for Four Wheeler Loan
What is Four Wheeler Loan? How to Apply for Four Wheeler Loan? Know in Bengali

দিনে দিনে মধ্যবিত্তের ইচ্ছা আর ইচ্ছে পূরণের চাহিদা বেড়ে উঠেছে। অনেকেই এখন স্বপ্ন দেখেন নিজের চার চাকার গাড়িতে চড়ে শপিং করতে যাবার অথবা বাচ্চাকে স্কুলে নামিয়ে দিয়ে আসার। অনেক দিন থেকে টাকা জমিয়েও হয়ে উঠছে না স্বপ্নের গাড়ি কেনার টাকা। তাদের স্বপ্ন সত্যি করতে এখন এগিয়ে এসেছে অনেক সরকারী বেসরকারী ব্যাংক। সহজ শর্তে আর সুবিধাজনক কিস্তিতে এখন পাওয়া যাচ্ছে চার চাকার গাড়ির জন্য লোন। যার মাধ্যমে আপনি সহজেই গাড়ির মালিক হয়ে যেতে পারেন আর মাসিক কিস্তিতে পরিশোধ করতে পারেন ব্যাংকের লোন। উন্নত দেশের প্রায় ৮৫% চার চাকার গাড়িই ব্যাংক লোনের সুবিধা নিয়ে কেনা হয়। আমাদের দেশেও অনেকদিন ধরেই ব্যাংক চার চাকার গাড়ির জন্য লোন দিয়ে আসছে। কিন্তু আমরা অনেকেই ভালোভাবে জানিনা কিভাবে এই আবেদন করতে হয়। গাড়ি লোন (Car Loan) পেতে কি কি যোগ্যতাই বা দরকার হয়, আসুন আজকে আমরা আলোচনা করি চার চাকার গাড়ির লোন নিয়ে।

চার চাকার গাড়ির লোন কি? 

যখন কোন ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানকে কোন ব্যাংক বা নন-ব্যাংক আর্থিক প্রতিষ্ঠান গাড়ি কেনার জন্য লোন দিয়ে থাকে তাকে গাড়ি লোন বলা হয়। এই লোন সাধারনত লম্বা সময়ের কিস্তিতে পরিশোধ করা যায়। কিস্তি পরিশোধের সময় মূল টাকা ও সুদ একই সাথে কর্তন করা হয়ে থাকে। অনেক সময় ব্যাংকের সাথে গাড়ি সরবরাহ প্রতিষ্ঠানের চুক্তি হয় এবং গাড়ি সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান গাড়ির ক্রেতার সাথে কিস্তিতে গাড়ি বিক্রির জন্য চুক্তি করে থাকে।

আরো পড়ুন: কিভাবে নিজের স্বপ্নের Bike কিনবেন Bike Loan দিয়ে? জেনে নিন

চার চাকার গাড়ির লোন পাবার জন্য যোগ্যতা কি ? 

চাকরিজীবী ও ব্যবসায়ী উভয় পেশার ব্যক্তিকেই চার চাকার গাড়ির লোনের জন্য বিবেচিত করা হয়ে থাকে। তবে দুই পেশার ব্যক্তির যোগ্যতার মাপকাঠি আলাদা আলাদা হয়। দেখে নেই যোগ্যতাগুলি কি কি ।

চাকরিজীবীর জন্যঃ
চাকরিজীবীদের জন্য চার চাকার গাড়ির লোনের নূন্যতম যোগ্যতা নিম্নরুপ।
১) ভারতীয় নাগরিক হতে হবে।
২) চাকরিজীবী সরকারী, আধা সরকারী, বেসরকারী, স্বায়ত্বশাষিত প্রতিষ্ঠানের চাকরিজীবী হতে পারে।
৩) ব্যক্তির বয়স সর্বনিম্ন ২১ বছর থেকে লোন পরিশোধ হওয়া পর্যন্ত ৬০ বছর হতে পারবে।
৪) চাকরির অভিজ্ঞতা কমপক্ষে ২ বছর এবং বর্তমান প্রতিষ্ঠানে নূন্যতম ১ বছর কাজ করার অভিজ্ঞতা থাকতে হবে।
৫) ব্যক্তির বার্ষিক আয় নূন্যতম ৩ লক্ষ টাকা হতে হবে।

ব্যবসায়ীর জন্যঃ 
ব্যবসায়ীদের জন্য চার চাকার গাড়ির লোনের নূন্যতম যোগ্যতা নিম্নরুপ।
১) ভারতীয় নাগরিক হতে হবে।
২) যে কোন সরকার অনুমোদিত ব্যবসায়ী হতে পারে।
৩) নূন্যতম বয়স ২১ বছর থেকে লোন পরিশোধ হওয়ার সময় সর্বোচ্চ ৬৫ বছর হতে পারবে।
৪) কমপক্ষে ২ বছর ব্যবসার অভিজ্ঞতা থাকতে হবে।
৫) বার্ষিক আয় কমপক্ষে ৩ লক্ষ টাকা হতে হবে।




কি কি কাগজপত্র জমা দিতে হবে?

আমরা অনেকেই জানি না চার চাকার গাড়ির লোনের জন্য কি কি কাগজপত্র জমা দিতে হয়। আজ আমরা এখানে দেখবো চার চাকার গাড়ির লোনের জন্য কি কি দরকার হয়। চলুন দেখে নিই চার চাকার গাড়ির লোনের আবেদনের সাথে কি কি কাগজপত্র জমা দিতে হবে। আবেদনকারী চাকরজীবী বা ব্যবসায়ী হলে দুই পেশার জন্য আলাদা আলাদা রকমের কাগজপত্র জমা দিতে হয়।

চাকরিজীবী হলেঃ 
লোন গ্রহিতা চাকরিজীবী হলে তার পরিচয় প্রমানের সাথে তার চাকরির প্রমানাদি জমা দিতে হবে।  চার চাকার গাড়ির লোনের আবেদনের সাথে নিম্নবর্ণিত কাগজপত্র জমা দিতে হবে।
১) স্বাক্ষর সহকারে আবেদন পত্র।
২) ৩ কপি পাসপোর্ট সাইজের ছবি।
৩) প্রতিষ্ঠানের আইডি কার্ড।
৪) পরিচয় প্রমাণের জন্য আইডি কার্ড।
৫) সর্বশেষ ৬ মাসের বেতনের প্রমানাদি।
৬) ৬ মাসের ব্যাংক স্টেটমেন্ট ।
৭) আয়কর প্রদানের প্রমানাদি।
৮) ইলেক্ট্রিসিটি বিল অথবা টেলিফোন বিলের কপি।

আরো পড়ুন: পড়াশুনার জন্য Education Loan কিভাবে আবেদন করবেন ? জেনে নিন

ব্যবসায়ী হলেঃ 
লোন গ্রহিতা ব্যবসায়ী হলে তার নিজের পরিচয়ের কাগজপত্র ছাড়াও তার ব্যবসার কাগজপত্র জমা দিতে হয়। চার চাকার গাড়ির লোনের আবেদনের সাথে নিম্নবর্ণিত কাগজপত্র জমা দিতে হবে।
১) স্বাক্ষর সহকারে আবেদন পত্র।
২) ৩ কপি পাসপোর্ট সাইজের ছবি।
৩) ট্রেড লাইসেন্সের কপি 
৪) পরিচয় প্রমাণের জন্য আইডি কার্ড।
৫) সর্বশেষ ৬ আয়ের প্রমানাদি।
৬) ৬ মাসের ব্যাংক স্টেটমেন্ট ।
৭) আয়কর প্রদানের প্রমানাদি।
৮) ইকেক্ট্রিসিটি বিল অথবা টেলিফোন বিলের কপি।

এই হলো ভারতের চার চাকার গাড়ি লোনের বিস্তারিত। দিনদিন চার চাকার গাড়ির লোন (Car Loan) অনেক জনপ্রিয় হচ্ছে। অনেক ব্যাংকই লোন দেয়ার জন্য এগিয়ে আসছে। বিভিন্ন ব্যাংক ক্ষেত্র বিশেষে নানা তথ্য চাইতে পারে এবং ক্ষেত্র বিশেষে নানা বিষয়ে ছাড় দিতে পারে। তাই গাড়ি লোনের ব্যাপারে নিকটস্থ ব্যাংকে যোগাযোগ করলে আরো দরকারী তথ্য পেতে পারেন। গাড়ির লোন ব্যাপারে আরো কিছু জানার জন্য আমাদের নিচে কমেন্ট করে জানাতে পারেন।
Comment on This News.