Join Bangla Bhumi Telegram Channel আমাদের Telegram Channel জয়েন করুন

২১ দিনের লকডাউনে ছাড় পাবেন কী কী ? সবার আগে জেনে নিন


Rebate Form India Lock Down

আজ (২৪ মার্চ ২০২০) রাত ১২:০০ থেকে সম্পূর্ণ ভারত ২১ দিনের জন্য লকডাউন করে দেওয়া হয়েছে এর ফলে সমস্তকিছু বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। এই ২১ দিনের লোকডাউন-এ কোন কোন জিনিসে ছাড় দেওয়া হয়েছে তা জেনে নিন।

২১ দিনের লকডাউনে, ছাড় পাবেন কী কী ?
♦️ খাদ্রপদার্থ, শাক সব্জি, মুদিখানা, ফল, মাছ, মাংস, দুধ ও পাউরুটি বিক্রয় কে ছাড় দেওয়া হয়েছে। এই ধরণের কাজের পরিবহন ও মজুত কেউ ছাড় দেওয়া হয়েছে।
♦️ওষুধপত্রের দোকান, ওষুধ উৎপাদন ও এর পরিবহন চালু থাকবে এছাড়া চশমার দোকান কেউ ছাড় দেওয়া হয়েছে।
♦️সমস্ত স্বাস্থ্য পরিষেবার ছাড় দেওয়া হয়েছে।
♦️হাসপাতাল ও অন্যান্য আপৎকালীন সময়ে ব্যবহার করি গাড়ি যেমন যাত্রীবাহী গাড়ি ও মালগাড়ি ছাড় দেওয়া হয়েছে।
♦️পানীয় জলের সরবরাহ, বিদ্যুৎ পরিষেবা ও জঞ্জাল ওঠানোর কাজে ছাড় দেওয়া হয়েছে।
♦️পেট্রোল পাম্প, এলপিজি গ্যাসের সার্ভিস, জ্বালানি তেলর দোকান এবং এই পরিষেবার সংস্থানগুলি ও পরিবহনকে ছাড় দেওয়া হয়েছে।
♦️ইন্টারনেট সার্ভিস, টেলিকম সার্ভিস এবং তথ্যপ্রযুক্তি সার্ভিসগুলি ছাড়ের মধ্যে রাখা হয়েছে।
♦️মুদিখানার জিনিসপত্র ও খাবারের হোম ডেলিভারি ও অনলাইন শপিং করা ছাড়ের মধ্যে রাখা হয়েছে।
♦️ব্যাঙ্ক ও ব্যাংকার এ.টি.এম গুলি চালু থাকবে।
♦️দমকল, আপৎকালীন পরিষেবা ও অসামরিক প্রতিরক্ষা পরিষেবা গুলি চালু থাকবে।
♦️পুলিশ, সশস্ত্র বাহিনী ও অধসেনা গুলি নিয়মিত চলবে।
♦️সংবাদ মাধ্যম গুলি, ডিজিটাল ও পেপার ছাড়ের মধ্যে রয়েছে।
♦️আদালত ও সংশোধনাগার বিভাগ ও কানুন সম্মন্ধি কাজ চালু থাকবে।

কবে থেকে লকডাউন শুরু করা হয়েছে ?
কার্ফুয়ের সময় : আজ রাত ১২:০০ থেকে (২৪ মার্চ ২০২০ থেকে)
আপাতত এই লক ডাউন - ৩ সপ্তাহের জন্য মানে ২১ দিনের জন্য লাগানো হয়েছে।
প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছেন এই লকডাউন এক প্রকারের কার্ফুয়ের মত তাই কঠিন ভাবে এই লকডাউন মেনে চলতে হবে না হলে শাস্তি দেওয়া হবে। এই লকডাউনের সময় দেশের কোনো ব্যক্তি বাড়ির বাহিয়ে না যায় এই কথা নরেন্দ্র মোদী বলেছেন।
জেনে নিন কি নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ?