West Bengal Government Schemes News, Banglar Bhumi

Modi Government Schemes News, West Bengal Government Schemes News, Startup Business News of West Bengal, Khatian and Plot Information of West Bengal

About Kali Puja in Bengali Language

কালী পূজা বঙ্গ সমাজের অত্যন্ত মাননীয় উৎসব । কালী পূজা কে শ্যামা পূজা নামেউ জানা যায় । প্রধানত কালী পূজা পশ্চিমবঙ্গ, ওড়িশা, আসাম তে ভীষণ আনন্দে অনুষ্ঠানিত হয় । বর্তমান সময়ে কালী পূজা ভারতবর্ষের প্রায় সমস্ত প্রদেশে অনুষ্ঠানিত হয় । প্রত্যেক বাঙালি বাড়ি তে কালী পূজা নিয়মিত রূপে করা হয় । কালী পূজা সমস্ত ভারতে এক সময়ে অনুষ্ঠানিত হয় । আশ্বিন – কার্ত্তিক মাসে আমাবস্যা তে মধ্য রাত্রি তে মাঁ কালীর পূজা অর্চনা করা হয় । মুখ্য রূপে কালী পূজা আশ্বিন মাসে হয়ে থাকে কিন্তু কোন-কোন সময়ে কার্ত্তিক মাসেউ পূজা হয়ে থাকে ।

কালী পূজা বঙ্গ সমাজের ২য় সর্ব পূজার মধ্যে একটি পূজা । দুর্গা পূজার শেষ হবার পর কালী পূজার কার্যকলাপ চালু হয়ে যায় । পশ্চিমবঙ্গ ,আসাম, ওড়িশার মত জনপ্রিয় জায়গায় মাঁ কালীর জন্য বিভিন্ন মণ্ডপ , বিভিন্ন আলোর সাজ ইত্যাদি করা হয় । কলকাতার মত শহরে কালী পূজার জন্য আলোর সাজ এবং মণ্ডপ অতুলনীয় ভাবে বানানো হয়ে থাকে । মণ্ডপ বাদেউ অধিকাংশ কালীপূজা নিজস্ব বাড়ি তে হয়ে থাকে ।


কালিপুজার প্রধান আকর্ষণ সর্ব রাত্রি ব্যাপী মাঁ কালীর পূজা অর্চনা , আলোর সাজ এবং আতশবাজি । আতশবাজি কালীপূজার এক গুরুত্তপূর্ণ আকর্ষণ । প্রায় সমস্ত বাড়ির পূজা অনুষ্ঠানে সর্ব রাত্রিব্যাপী আতশবাজি জালানো হয় , এই কাজ ছোট বাচ্চা থেকে বড় লোকেরাও অত্যন্ত আনন্দিত হয়ে করে থাকে । রাত্রিব্যাপী মাঁয়ের পূজা হবার পর ভোরে বলি দেওয়া হয় । বর্তমান সময়ে বলি কেবল ছাগল (Goat) এর দেওয়া হয় । অতি প্রাচীন সময়ে কালীপূজাতে নরবলি দেওয়া হতো আর মহিষ এর ও বলি দেওয়া হতো । এই ধরনের কালী পূজা তান্ত্রিক মতে শ্মশানে  করা হতো আজও এই ধরনের কালীপূজা করা হয় কিন্তু এই সময়ে নরবলি বা মহিষ বলি দেওয়া হয় না এই কালীপূজাকে শ্মশানকালী পূজা নামে জানা যায় । কালী পূজা ৩দিন ধরে অনুষ্ঠানিত হয় ৩দিন ধরে নিয়মিত রূপে মাঁ কালীর পূজা অর্চনা করা হয় ।


ভারতবর্ষর অনান্য প্রদেশে কালীপূজার দিন বা কালীপূজা কে দীপাবলি নামে অনুষ্ঠানিত হয় । দীপাবলি উৎসব এর মানে আলোর উৎসব । প্রাচীন কথা অনুসারে এই দিন শ্রী শ্রী রামচন্দ্র লঙ্কার রাজা রাবণ কে মৃত্যু প্রদান করে মাতা সীতা কে কে নিয়ে নিজের রাজত্য অযোধ্যা ফিরেছিলেন । সেই দিন সমস্ত দেশব্যাপী প্রদীপ আলো জালিয়ে এবং মাঁ লক্ষ্মীর পূজা করে আনন্দিত ও এই দিন কে উৎসব এর মত অনুষ্ঠানিত করেছিলেন । সেই থেকে দীপাবলি উৎসব অনুষ্ঠানিত হয় । দীপাবলির দিন রাতে শ্রী শ্রী মাঁ লক্ষ্মী দেবীর পূজা অর্চনা করা হয় । এই দিন প্রত্যেক বাড়িতে নতুন কিছু জিনিসপত্র আদি কেনা হয় এবং তার পূজা করা হয় । দীপাবলির রাতে প্রদীপ জেলে সমস্ত জায়গা আলোকিত করা হয় । আতশবাজি ও আলোর চমকে দীপালির রাত সর্ব ভারতে আনন্দিত হয়ে ওঠে ।



বঙ্গবাসী মানুষেরা যেই ভাবে দুর্গাপূজা উৎসব কে ভীষণ আনন্দিত হয়ে অনুষ্ঠানিত সেই ভাবে কালীপূজা উৎসব কেউ ভীষণ আনন্দে , আলোকিত করে ও পূজা অর্চনা করে অনুষ্ঠানিত করেন । বর্তমান সময়ে কালীপূজা ভারত ব্যাপী জুড়ে অনুষ্ঠানিত হয় ।

জয় শ্রী শ্রী মাঁ কালী । তোমায় শত শত প্রণাম জানায় ।

©বাংলা ভূমী

# বাংলা ভূমী , আপনাদের কাছে কালীপূজার এই আর্টিকেল বাংলা ভাষা তে লিখেছে , আশা করছি আপনাদের ভালো লাগছে #

আপনাদেরকে জানায় এই আর্টিকেল কেবল মাত্র বাংলা ভূমী ব্লগ এর জন্য আপনারা এটা শেয়ার করুন কিন্তু নিজেদের ব্লগ/ওয়েবসাইট এ Upload করবেন না । এটা DMCA কানুন থেকে রক্ষিত ।

ধন্যবাদ ।
Comment on This News.